মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
৯ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শুক্রবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

জঙ্গী খালেদা জিয়া রেহাই পাবেন না ॥ নাসিম

প্রকাশিত : ৪ মার্চ ২০১৫
  • খুলনায় চিকিৎসক সমাবেশ

স্টাফ রিপোর্টার, খুলনা অফিস ॥ বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও ১৪ দলের সমন্বয়ক স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন, ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারি নির্বাচন না করলে দেশে মার্শাল ল’ জারি হতো। জীবনের ঝুঁকি নিয়ে শেখ হাসিনা নির্বাচন করে গণতন্ত্র দিয়েছেন। সেই নির্বাচনে না গিয়ে খালেদা জিয়া ভুল করেছেন। এখন রাগ করে নাশকতা চালিয়ে জনগণের ওপর প্রতিশোধ নিচ্ছেন, ‘আন্দোলনের বারোটা বাজিয়েছেন’। ২০ দল এখন ‘বিষে’ পরিণত হয়েছে। তিনি বলেন, ২০১৯ সালের আগে সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে না। সংবিধানের বাইরে গিয়ে কোন কিছুই করা সম্ভব নয়। তিনি বলেন, আমরা জঙ্গী দমন করেছি। ‘বাংলা ভাই’সহ অন্য জঙ্গীরা নেই। কিন্তু একটি জঙ্গী এখনও দমন করতে পারিনি। সেই জঙ্গী হলেন বেগম খালেদা জিয়া। তিনিও রেহাই পাবেন না।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম মঙ্গলবার দুপুরে খুলনা মেডিক্যাল কলেজ চত্বরে বিএমএ খুলনার নির্বাচন উপলক্ষে স্বাচিপ মনোনীত পরিষদ পরিচিতি ও খুলনা বিভাগীয় চিকিৎসক সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় একথা বলেন। স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদ (স্বাচিপ) খুলনা এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

স্বাচিপ খুলনার সভাপতি ডাঃ শেখ বাহারুল আলমের সভাপতিত্বে সমাবেশে অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সাবেক স্বাস্থ্যমন্ত্রী প্রফেসর ডাঃ আ ফ ম রুহুল হক এমপি, খুলনা জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ হারুনুর রশিদ, সাধারণ সম্পাদক এসএম মোস্তফা রশিদী সুজা এমপি, বিএমএর সাবেক মহাসচিব ডাঃ মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন, আওয়ামী লীগের স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক ডাঃ বদিউজ্জামান ভূঁইয়া ডব্লিউ, বিএমএর সাবেক মহাসচিব ডাঃ শরফুদ্দিন আহমেদ, স্বাস্থ্য বিভাগের মহাপরিচালক ডাঃ দীন মোহাম্মদ নুরুল হক, বিএমএর সহসভাপতি ডাঃ এহতেশামুল হক চৌধুরী, বিপিএমপিএর কেন্দ্রীয় সভাপতি ডাঃ মনিরুজ্জামান ভূঁইয়া, স্বাচিপের যুগ্ম সম্পাদক ডাঃ মোহাম্মদ জামাল উদ্দিন। এছাড়া খুলনা বিভাগের বিভিন্ন জেলার চিকিৎসক নেতৃবৃন্দ বক্তব্য রাখেন। অনুষ্ঠানে স্বাচিপ মনোনীত প্যানেলের প্রার্থীদের পরিচয় করিয়ে দেয়া হয়।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী নাসিম বলেন, বর্তমান সরকার স্বাস্থ্য সেবায় যুগান্তকারী বিপ্লব ঘটিয়েছে। কমিউনিটি ক্লিনিকের মাধ্যমে তৃণমূল পর্যায়ে সাধারণ মানুষের মাঝে চিকিৎসা সেবা পৌঁছে দিচ্ছে। দক্ষিণাঞ্চলের মানুষের জটিল রোগের চিকিৎসায় শহীদ শেখ আবু নাসের হাসপাতাল মানুষের আস্থায় পরিণত হয়েছে। এ হাসপাতালে অন্যান্য বিভাগ চালুর মধ্য দিয়ে একটি পূর্ণাঙ্গ হাসপাতালে পরিণত করার পরিকল্পনা রয়েছে। খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ক্যান্সার নিরাময় মেশিনটি সেনাবাহিনীর বিশেষজ্ঞদের দ্বারা পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে চালুর ব্যবস্থা করা হবে। চিকিৎসা সেবা মানুষের দোরগোড়ায় পৌঁছে দিতে আরও ১০ হাজার নার্স নিয়োগ করা হবে। উপজেলা পর্যায়ে ডাক্তারদের আবাসন ও গাড়ির ব্যবস্থা খুব সত্বরই বাস্তবায়ন হবে। তিনি বেসরকারী চিকিৎসা প্রতিষ্ঠানগুলোকে সেবার মান বৃদ্ধির পাশাপাশি স্বল্পমূল্যে চিকিৎসা সেবা প্রদানের আহ্বান জানান।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী খুলনা মেডিক্যাল কলেজ চত্বরে শহীদ মিনার, বীর শ্রেষ্ঠ রুহুল আমিন ছাত্রাবাস, আচার্য প্রফুল চন্দ্র ছাত্রাবাস, কবি বেগম সুফিয়া কামাল ছাত্রীনিবাস, ইলা মিত্র ইন্টার্ন হোস্টেল, শহীদ ডাঃ মোর্তুজা হোস্টেল এবং এসএম সুলতান অডিটরিয়ামের নামফলক উন্মোচন করেন। এর আগে সকালে শেখ আবু নাসের বিশেষায়িত হাসপাতাল পরিদর্শন ও ডাক্তারদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী।

প্রকাশিত : ৪ মার্চ ২০১৫

০৪/০৩/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

শেষের পাতা



ব্রেকিং নিউজ: