মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১০ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

স্কটল্যান্ডকে হারিয়ে আরেকটি জয়ের লক্ষ্য টাইগারদের

প্রকাশিত : ৪ মার্চ ২০১৫

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ আজ বুধবার দিনটি গিয়ে দিবাগত রাত ৪টায় বিশ্বকাপের আরেকটি ম্যাচ খেলতে নামবে বাংলাদেশ। নেলসনের সেক্সটন ওভালে এবার বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ দুর্বল স্কটল্যান্ড। যে দলটি এখনও বিশ্বকাপে তিন ম্যাচ খেলে কোন জয়ের দেখা পায়নি। সেই দলের বিপক্ষে এরই মধ্যে ৩ ম্যাচে ৩ পয়েন্ট পাওয়া মাশরাফিবাহিনী মুখোমুখি হবে। ম্যাচটি জিতলে দ্বিতীয় জয়ের দেখা পাবে বাংলাদেশ। পারবে কী বাংলাদেশ ম্যাচটি জিতে নিতে?

বাংলাদেশের জেতার আশাতেই এখন সবাই। বাংলাদেশ ক্রিকেটপ্রেমীরা অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছে আরেকটি জয়ের উৎসবে মাততে। যে উৎসব এরই মধ্যে তিনবার করে ফেলেছে দক্ষিণ আফ্রিকা ক্রিকেটপ্রেমীরা। মঙ্গলবার এ বিশ্বকাপে দক্ষিণ আফ্রিকা আরেকটি রেকর্ডময় জয় উপহার দিয়েছে। আগের ম্যাচে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে রেকর্ডময় (২৫৭ রানে) জয় পেয়েছে। এবার আয়ারল্যান্ডকে হারিয়েছে ২০১ রানের বড় ব্যবধানে।

এ জয়ে এখন গ্রুপ ‘বি’-তে ৪ ম্যাচে ৩ জয়ে ৬ পয়েন্ট নিয়ে পয়েন্ট তালিকার দ্বিতীয় স্থানে আছে দক্ষিণ আফ্রিকা। আর আয়ারল্যান্ড শুরুতেই ওয়েস্ট ইন্ডিজকে হারিয়ে চমক জাগানোর পর সংযুক্ত আরব আমিরাতকে হারিয়ে ২ ম্যাচের ২টিতেই জিতেছিল। মঙ্গলবার ক্যানবেরার মানুকা ওভালে দক্ষিণ আফ্রিকার কাছে হেরে বিশ্বকাপে প্রথম হারের দেখা পেয়ে গেল। পয়েন্ট তালিকায় তৃতীয় থেকে চতুর্থ স্থানেও নেমে গেল।

প্রোটিয়াদের কাছে পাত্তাই পেল না আইরিশরা। সবার ভেতরই আশঙ্কা তৈরি হয়েছিল, আবার না দক্ষিণ আফ্রিকাকেও হারিয়ে দিয়ে আরেকটি অঘটনের জন্ম দেয় আয়ারল্যান্ড। কিন্তু তার ধারে কাছেও যেতে পারল না। ১২ রানেই কুইনটোন ডি কককে (১) হারায় দক্ষিণ আফ্রিকা। কিন্তু এরপর যে ওপেনার হাশিম আমলা (১৫৯) ও ফাফ ডু প্লেসিস (১০৯) মিলে আইরিশ বোলারদের ভোগাতে শুরু করলেন, বিশ্বকাপে দক্ষিণ আফ্রিকার পক্ষে দ্বিতীয় উইকেটে সর্বোচ্চ ২৪৭ রানের জুটিই গড়ে ফেললেন।

দুই জোড়া শতকের পর কি আর কিছু থাকে ম্যাচে। ২৫৯ রানে ক্যারিয়ারের চতুর্থ শতক করা প্লেসিস, ২৯৯ রানে ক্যারিয়ারের ২০তম শতকের সঙ্গে ওয়ানডে ক্যারিয়ার সেরা ইনিংস খেলা আমলা ও ৩০১ রানে ভিলিয়ার্সও (২৪) আউট হন। শেষ পর্যন্ত অপরাজিত ৪৬ রান করা ডেভিড মিলার ও ৬১ রান করা রোসাও মিলে ৫০ ওভার শেষ করেন। ৪ উইকেটে দক্ষিণ আফ্রিকা আবার বিশ্বকাপে নিজেদের ইতিহাসের সর্বোচ্চ রেকর্ড স্কোর, ৪১১ রান গড়ে।

এ রান অতিক্রম করতে গিয়ে কাইল এ্যাবোট (৪/২১) ও মরনে মরকেলের (৩/৩৪) বোলিং তোপে এমনভাবেই পড়ে আইরিশ ব্যাটসম্যানরা ৪৫ ওভারে ২১০ রানেই আয়ারল্যান্ডের ইনিংস গুঁড়িয়ে যায়। এন্ডি বালবিরনি সর্বোচ্চ ৫৮ রান করতে সক্ষম হন।

ম্যাচটিতে আমলাও ব্যক্তিগত একটি রেকর্ড গড়েন। ওয়ানডে ক্যারিয়ারে দ্রুততম ২০তম শতক করেন আমলা। ১১১ ওয়ানডেতে ১০৮ ইনিংস খেলেই ২০ শতক পেয়েছেন এ ওপেনার। এর আগে ভারতের বিরাট কোহলি ১৩৩ ইনিংস খেলে এ রেকর্ড গড়েছিলেন। আমলা পেছনে ফেলে দেন কোহলিকে। আর একটি শতক হলেতো দক্ষিণ আফ্রিকার হয়ে ওয়ানডেতে সর্বাধিক ২১ শতক করা হার্শেল গিবসের পাশাপাশি অবস্থান করবেন। দুটি শতক হলে কথাই নেই, দক্ষিণ আফ্রিকার ইতিহাসের সবচেয়ে বেশি শতক করা ব্যাটসম্যান হয়ে যাবেন আমলা। মঙ্গলবার ম্যাচ সেরাও হন আমলা। ম্যাচটি শেষে আমলা বলেন, ‘আমরা উইকেট রেখে খেলেছি। এগিয়েও গিয়েছি। ভাল উইকেট ছিল। জয় সবসময়ই আনন্দের। যে কোন শতকই আনন্দের।’ সেই শতক যদি আবার রেকর্ড বয়ে আনে তাহলেতো কথাই নেই। আমলার সঙ্গে দক্ষিণ আফ্রিকাও রেকর্ডময় আরেকটি জয়েরই দেখা পেল।

বাংলাদেশ কী পারবে রেকর্ডময় একটি জয় উপহার দিতে? এর আগে ২০০৬ সালে ১৪৬ রানের বড় ব্যবধানে একবার স্কটল্যান্ডকে হারিয়েছিল বাংলাদেশ। এবারও সেইরকম কিছু ঘটে গেলেইতো হয়। রেকর্ডময় জয়ই ধরা দিয়ে দেবে।

প্রকাশিত : ৪ মার্চ ২০১৫

০৪/০৩/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

প্রথম পাতা



ব্রেকিং নিউজ: