কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৪ ডিসেম্বর ২০১৬, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

নির্মিত হচ্ছে ধারাবাহিক নাটক ‘পাগলের মেলা’

প্রকাশিত : ৩ মার্চ ২০১৫
নির্মিত হচ্ছে ধারাবাহিক নাটক ‘পাগলের মেলা’

স্টাফ রিপোর্টার ॥ রাজীব মণি দাসের রচনা ও আজহারুল আলম বাবু পরিচালনায় নির্মিত হয়েছে ধারাবাহিক নাটক ‘পাগলের মেলা’। সাভারের আকরাইনের বিরুলিয়া গ্রামসহ বিভিন্ন মনোরম লোকেশনে নাটকটির শূটিং চলছে। ধারাবাহিক নাটকের বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন শতাব্দী ওয়াদুদ, নাদিয়া, রওনক হাসান, নিসা, ফারুক আহমেদ, দীপা খন্দকার, মাহামুদুল ইসলাম মিঠু, মনিরা মিঠু, কাজী উজ্জল, এস এম মহসিন, জ্যানেট, রিফাত চোধুরী, দিলু, শামীম, মীর সাখাওয়াত, জাদু ফরিদ, সাইদ সাখাওয়াত প্রমুখ।

নাটকের কাহিনীতে দেখা যাবে রাশেদ পালোয়ানের স্ত্রী মারা যাওয়ার পর সে আর বিয়ে করেনি। নিজেই সন্তান লালন-পালন করেছেন। কুস্তি লড়াই তার স্বভাব এবং এতেই সে প্রচুর আনন্দ পায়। রাশেদ পালোয়ান খুবই বদমেজাজী। সহজে তার সঙ্গে কেউ কথা কাটাকাটি করে না। পালোয়ান যা বলে সেটা শত ভুল হলেও তাতে সবাই সম্মতি দেয়। ডাক্তার ভালবাসে সোহাগীকে কিন্তু মুখ ফুটে সেই কথা বলতে পারে না। সোহাগীর বিয়ের বয়স পেরিয়ে যাচ্ছে তবুও বাবার সেদিকে কোনও খেয়াল নেই। পালোয়ানের ভয়ে কেউ বিয়ের প্রস্তাব আনতে চায় না। সোহাগী ভালবাসে ডাক্তারকে। সিরাজ মুহুরি জমির দালালি এবং একজনের সঙ্গে অন্যজনের ঝগড়া বাধিয়ে দিয়ে আবার উভয়ের সঙ্গে মিল করিয়ে কিছু টাকা হাতানই তার কাজ। কিন্তু এটা তার স্ত্রীর পছন্দ না। বিয়ে হয়েছে দীর্ঘ বছর, এখনও কোন সন্তান হয়নি। এ নিয়ে সিরাজ মুহুরি ও তার স্ত্রীর সঙ্গে ঝগড়া লেগেই থাকে। সিরাজ মুহুরির বোন নাছু পাড়া বেড়ানো আর কূটনামিই তার কাজ। বিয়ের পরে স্বামীর সঙ্গে রাগ করে ভাইয়ের সংসারে চলে আসে এবং এখানেই থেকে যায়। নাছু নিজেও জানে না যে সে ভাইয়ের বাড়িতে থাকছে নাকি তার নিজের বাড়িতে। বরং ভাই সিরাজ থাকছে বোন নাছুর বাড়িতে। এক সময় নাছুর বাবা নাছুর শ্বশুরের কাছে কিছু টাকার বিনিময়ে বাড়িটি লিখে দেয়, তবে সেখানেও শর্ত থাকে। নাছু তার ছেলের বউ হবে এবং জমিটি নাছুর নামেই থাকবে। এই তথ্য আবার সিরাজের বউ জানে না। নাছুর ননদ আঙ্গুরী সে ভাবীকে নিতে এসে প্রেমে পড়ে যায় আনুর। সে আর গ্রাম ছেড়ে যেতে চায় না। ছেলেদের সঙ্গে একটু আগ বাড়িয়ে কথা বলা তার স্বভাব। রাশেদ পালোয়ানের বড় ছেলে আনু, খুবই ভদ্র প্রকৃতির ছেলে। কিন্তু সে মাঝে মধ্যে একটা স্বপ্ন দেখে, স্বপ্ন দেখলেই এই নরম স্বভাবের ছেলেটি গরম হয়ে যায়, অর্থাৎ পাগল হয়ে যায়। তাই আনু গ্রামে নরম-গরম নামে পরিচিত। রাশেদ পালোয়ানের মেয়ে সোহাগীকে পাত্র পক্ষ দেখতে এসে বিপাকে পড়ে যায়। এই নিয়ে বাড়ির মধ্যে হুলুস্থুল কা-। এই রকম এই ভিন্ন ধাচের গল্প নিয়ে পাগলের মেলার প্রত্যেকটি চরিত্র এগিয়ে যায়।

প্রকাশিত : ৩ মার্চ ২০১৫

০৩/০৩/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: