মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১০ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

অভিজিৎ হত্যায় তীব্র ক্ষোভ, খুনীদের শাস্তি দাবি

প্রকাশিত : ১ মার্চ ২০১৫
  • বিশিষ্ট প্রবাসী বাঙালীদের বিবৃতি
  • বিশিষ্ট প্রবাসী বাঙালীদের বিবৃতি

ড. অভিজিৎ রায়ের নৃশংস হত্যাকা-ের বিরুদ্ধে তীব্র ক্ষোভ ও নিন্দা জানিয়েছে প্রবাসী বাঙালীরা। এক যুক্ত বিবৃতিতে তারা বলেন, ‘যুক্তিবাদী লেখক অভিজিৎ রায়ের নির্মম হত্যাকা-ে আমরা তীব্র ক্ষোভ ও নিন্দা জানাচ্ছি। জঙ্গী মৌলবাদীরা দীর্ঘ দিন ধরে মুক্তমনা ওয়েবসাইটের প্রতিষ্ঠাতা ড. অভিজিৎ রায় এবং তাঁর পিতা বাংলাদেশ রুখে দাঁড়াও আন্দোলনের অন্যতম আহ্বায়ক, মানবাধিকার কর্মী, পদার্থ বিজ্ঞানী, অধ্যাপক ড. অজয় রায়কে হত্যার হুমকি দিয়ে আসছে। ২০০৪ সালের বইমেলায় মৌলবাদীরা যেভাবে প্রথাবিরোধী লেখক অধ্যাপক ড. হুমায়ূন আজাদের ওপর হামলা করেছিল ঠিক একই কায়দায় তারা অভিজিৎ রায়কে হত্যা ও তাঁর স্ত্রী ড. রাফিদা আহমেদ বন্যাকে গুরুতর আহত করেছে।

অভিজিৎ রায় দেশে মুক্ত চিন্তা এবং অসাম্প্রদায়িক চেতনার পথ উন্মুক্ত রাখতে লেখা-লেখি করেছেন। ধর্মান্ধতা, ধর্মীয় অসহিষ্ণুতা ও সন্ত্রাসের বিরোধী ছিলেন। তিনি ধর্মদ্রোহী ছিলেন না। কারও ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত করেননি। তারপরও ধর্মের অবমাননার ধুয়া তুলে যারা ড. অভিজিৎ রায়কে নির্মমভাবে হত্যা করেছে তারা কেবল ধর্মের শত্রু নয়, মানবতারও শত্রু। মানবতার শত্রু এই মৌলবাদীদের বাংলাদেশ ও জাতিবিরোধী এবং মানবাধিকার, মুক্তচিন্তাবিরোধী বর্বর কর্মকা- দেশের মানুষের পাশাপাশি প্রবাসে আমাদেরও ভাবিয়ে তুলেছে। উগ্র ধর্মান্ধদের এই বর্বরতা নির্মূলের জন্য সংঘবদ্ধ সামাজিক প্রতিরোধ গড়ে তুলতে হবে।

আমরা অভিজিৎ রায়ের খুনীদের অবিলম্বে গ্রেফতার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দানের দাবি জানাচ্ছি। লেখক ড. অভিজিৎ রায়ের অকালমৃত্যুতে প্রগতিশীল চিন্তার জগতের এই শূন্যতা সহজে পূরণ হবে না। আমরা তাঁর শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্য ও মুক্তমনার সাথীদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানাচ্ছি।

বিবৃতিতে স্বাক্ষর করেন, যুক্তরাজ্য প্রবাসী প্রথিতযশা সাংবাদিক, সাহিত্যিক ও কলাম লেখক আবদুল গাফফার চৌধুরী, যুক্তরাজ্য প্রবাসী সুলতান মাহমুদ শরিফ, এমএ গণি, জার্মান প্রবাসী লেখক ও সাংবাদিক দাউদ হায়দার, জার্মান প্রবাসী অনিল দাশ গুপ্ত, অস্ট্রিয়া প্রবাসী মানবাধিকার কর্মী, লেখক ও সাংবাদিক এম. নজরুল ইসলাম, ফ্রান্স প্রবাসী মূকাভিনেতা প্রার্থ প্রতিম মজুমদার, সুইডেন প্রবাসী মানবাধিকার কর্মী জামিল মোস্তফা, লেখক সাব্বির রহমান খান, স্লোভাক রিপাবলিক প্রবাসী মানবাধিকার কর্মী ড. আনিসুল হক, গ্রিকল্যান্ড প্রবাসী মানবাধিকার কর্মী ড. আফতাব হোসেন, যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী লেখক ড. নূরুন্নবী, লেখক ড. মহসিন আলী, লেখক বেলাল বেগ, লেখক ড. জ্যোতিপ্রকাশ দত্ত, লেখক পুরবী বসু, লেখক হাসান ফেরদৌস, সাংবাদিক ও লেখক সৈয়দ মোহাম্মদউল্লাহ, লেখক ড. বামন দাশ বসু, সাংবাদিক ও লেখক শিব্বীর আহমেদ, শিক্ষাবিদ ড. বিরুপাক্ষ পাল, কানাডা প্রবাসী লেখক ড. মোজামেল হোসেন খান, সাংবাদিক সাইফুল্লাহ মাহমুদ দুলাল, অস্ট্রেলিয়া প্রবাসী লেখক ও সাংবাদিক অজয় দাশগুপ্ত, অধ্যাপক ড. আবদুর রাজ্জক, অধ্যাপক ড. বোরহানউদ্দীন, শিল্পী সিরাজুস সালেকিন, কৃষিবিদ ড. এজাজ আল মামুন, শিক্ষাবিদ ড. সমীর সরকার, নিউজারল্যান্ড প্রবাসী লেখক প্রকৌশলী শরিফ ভূঁইয়া, রাশিয়া প্রবাসী মানবাধিকার কর্মী ড. এম পাটোয়ারী বাহার, সাউথ কোরিয়া প্রবাসী মানবাধিকার কর্মী বিজন কুমার সরকার, জাপান প্রবাসী মানবাধিকার কর্মী প্রবীর বিকাশ সরকার, মানবাধিকার কর্মী সজল বড়ুয়া প্রমুখ।

প্রকাশিত : ১ মার্চ ২০১৫

০১/০৩/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

প্রথম পাতা



ব্রেকিং নিউজ: