মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
৯ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শুক্রবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

ইতিহাসের ফেরিওয়ালা বাদল মিয়ার পাশে শেখ পরিবার

প্রকাশিত : ১ মার্চ ২০১৫

নিজস্ব সংবাদদাতা, গোপালগঞ্জ, ২৮ ফেব্রুয়ারি ॥ বঙ্গবন্ধু ভক্ত ইতিহাসের ফেরিওয়ালা বাদল মিয়ার পাশে দাঁড়াল শেখ পরিবার। তার চিকিৎসার জন্য ব্যক্তিগত তহবিল থেকে আর্থিক অনুদান ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে নিয়ে লেখা কিছু বই তুলে দিলেন আওয়ামী লীগ প্রেসিডিয়াম সদস্য শেখ ফজলুল করিম সেলিম এমপি’র ছেলে ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নাঈম। এ উপলক্ষে শনিবার দুপুরের পর গোপালগঞ্জ সার্কিট হাউস মিলনায়তনে আয়োজিত অনুষ্ঠানে তরুণ আইনজীবী ও যুবলীগ সদস্য শেখ ফজলে নাঈম জানান, মহান ২১ ফেব্রুয়ারি রাতে একটি বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেলে ফেরিওয়ালা বাদল মিয়াকে নিয়ে প্রচারিত প্রতিবেদন দেখে তিনি উদ্বুদ্ধ হন এবং গোপালগঞ্জে এসে বাদল মিয়াকে খবর দিয়ে আনেন। তিনি বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু’র জন্য এদেশের অনেক ব্যক্তি নানাভাবে বিরল ভালবাসার জন্ম দিয়ে যাচ্ছেন। তাই বঙ্গবন্ধু ভক্ত বাদল মিয়াকে কাছে পেয়ে তিনি নিজেকে ধন্য মনে করেছেন।

মাদারীপুরের শিবচর উপজেলার মির্জার চর গ্রামের ফেরিওয়ালা বাদল মিয়া বঙ্গবন্ধু হত্যার প্রতিবাদে দীর্ঘ ২০ বছর ধরে খালি পায়ে হেঁটে হেঁটে ইতিহাসের স্মারক বিক্রি করছেন। জাতীয় পতাকা, ব্যাজ, জাতীয় পতাকার মাথার টুপি, বুকে ভাষা শহীদদের ব্যাজ, মাথায় একুশের চেতনার নানা স্লোগান সমৃদ্ধ ফেস্টুনসহ বিভিন্ন স্মারক বিক্রি করেই তার সংসার চলে। এছাড়াও তিনি বিক্রি করেন জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও মুক্তিযুদ্ধের গল্পের বিভিন্ন বই। জাতীয় দিবসগুলোতে তিনি এসব উপকরণ বিক্রি করেন নতুন প্রজন্ম, বৃদ্ধ সকলের কাছে। তার পাশে শেখ পরিবার দাঁড়ানোতে তিনি নিজেকে অত্যন্ত গর্বিত ও ধন্য মনে করে সাংবাদিকদের উদ্দেশে বলেন, হাঁটতে গেলে কেবলই মনে হয় বঙ্গবন্ধুর রক্তের ওপর দিয়ে হাঁটছি। তাই খালি পায়ে হাঁটি। হাঁটতে হাঁটতে পা ফেঁটে যখন রক্ত বের হয়, মনে হয় তাঁর রক্তের ঋণ কিছুটা শোধ করতে পারছি। বাদল মিয়া আরও বলেন, তার চাওয়া-পাওয়ার কিছু নেই, শুধু প্রত্যাশা বাংলাদেশ রাজাকারমুক্ত হোক, জাতির জনককন্যা শেখ হাসিনা ভাল থাকুক, তাহলেই দেশের উন্নতি ও শান্তি হবে।

প্রকাশিত : ১ মার্চ ২০১৫

০১/০৩/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

দেশের খবর



ব্রেকিং নিউজ: