রৌদ্রজ্জ্বল, তাপমাত্রা ২৩.৯ °C
 
৮ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বৃহস্পতিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

পেসারদের ওপর আস্থা ধোনির

প্রকাশিত : ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ কোন পেসারের ওপর আস্থা রাখতে পারছিলেন না ভারতীয় অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি। চলমান বিশ্বকাপের আয়োজক অস্ট্রেলিয়া-নিউজিল্যান্ডের উইকেট পেসবান্ধব। আর এখন পর্যন্ত দুই ম্যাচে ভারতীয় পেসাররা দারুণ বোলিং করেছেন। ভারতীয় ক্রিকেট ইতিহাসে বরাবরের মতোই বর্তমান দলে থাকা পেসাররা বেশ খরুচে ছিলেন এতদিন। সে কারণেই বলা হচ্ছিল ২৫০ রানের যোগ্য উইকেটে ভারতকে করতে হয় ৩০০ আর ৩০০ রানের উইকেটে প্রয়োজন হয় ৩৫০। গত বছর নিউজিল্যান্ড সফরে ওয়ানডে সিরিজ হারের পর এ বিষয়টা স্বীকার করে নিয়েছিলেন ধোনি। তাই এবার বিশ্বকাপ ধরে রাখার মিশনে পেসারদের ওপর আস্থা রাখতে পারেননি তিনি। ইতিহাস বলে ব্যাটিংয়ের ওপরই পুরোপুরি নির্ভরশীল ভারতীয় দল। পুরো বোলিং বিভাগ নিয়েই কখনও সম্পূর্ণ সন্তুষ্ট থাকতে পারেনি ভারতীয় শিবির। কিন্তু চলমান বিশ্বকাপে বোলাররা যেন নিজেদের মিতব্যয়ী হিসেবে প্রমাণ করতে পেরেছেন এবং ধোনিও কিছুটা চিন্তামুক্ত এখন। চলমান একাদশ বিশ্বকাপে গতবারের চ্যাম্পিয়ন ভারতের চ্যালেঞ্জ শিরোপা ধরে রাখার। সেই চ্যালেঞ্জে এখন পর্যন্ত বেশ ভালভাবেই শুরু করেছে ভারতীয় দল। দুই ম্যাচেই জিতেছে। চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী পাকিস্তানকে হারিয়ে দেয়ার পর প্রবল প্রতিপক্ষ দক্ষিণ আফ্রিকাকেও নাস্তানাবুদ করেছে তারা। উভয় ম্যাচেই ৬ বোলার ব্যবহার করেছেন ধোনি। গত বছর নিউজিল্যান্ড সফরে এবং বিশ্বকাপের আগে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে সিরিজে কোন পেসারই বলের চেয়ে কম রান দিতে পারেননি। কিন্তু চলমান বিশ্বকাপে যেন নিজেদের খুঁজে পেয়েছেন দলের বোলাররা। দুই ম্যাচেই পেসাররা এবং স্পিনাররা তাদের দায়িত্ব ভালভাবেই পালন করেছেন। এবার বিশ্বকাপ শুরুর বেশ আগে থেকেই অস্ট্রেলিয়ার পরিবেশে নিজেদের মানিয়ে নেয়ার সুযোগ পেয়েছেন ভারতীয় ক্রিকেটাররা। অন্যতম পেস স্তম্ভ ইশান্ত শর্মা এবার অস্ট্রেলিয়া সফরে দারুণ করছিলেন। কিন্তু ইনজুরির কারণে বিশ্বকাপ স্কোয়াড থেকেই ছিটকে গেলেন তিনি। তার পরিবর্তে দলে এখন উমেশ যাদব, মোহাম্মদ শামি ও মোহিত শর্মারা খেলছেন। যাদব তার দুর্দান্ত গতি দিয়ে ব্যাটসম্যানদের মোটামুটি ভালভাবেই আটকে রাখতে পেরেছেন প্রথম দুই ম্যাচে। তবে ভারতীয় দলকে সবচেয়ে ভাল বোলিং উপহার দিয়েছেন শামি ঠিক লাইনলেন্থে বল ফেলে। যদিও লাল বলের চেয়ে সাদা বলে তাকে আরও বেশি কার্যকর হিসেবে দেখা গেছে।

তৃতীয় সিমার হিসেবে মোহিত দুই ম্যাচে দারুণ কাজ দেখিয়েছেন। শেষ মুহূর্তে বিশ্বকাপে সুযোগ করে নেয়ার পর নিজেকে প্রমাণ করেছেন মোহিত। তার বিষয়ে ধোনি বলেন, ‘মোহিতের পেসে বৈচিত্র্য আছে। তিনি বাউন্সারগুলো বেশ কাজে লাগাতে পেরেছেন এবং নিজেকে এখন পর্যন্ত ভালভাবেই প্রমাণ করেছেন।’ তিন পেসার দুই ম্যাচে ভাল করলেও সেটা ধরে রাখাটা জরুরী পরবর্তী ম্যাচগুলোয়। ভারতই একমাত্র দল যারা পেসবান্ধব উইকেটেও তিন পেসার এবং দুই কোয়ালিটি স্পিনার নিয়ে দুটি ম্যাচই খেলেছে। রবিচন্দ্রন অশ্বিন ও রবীন্দ্র জাদেজা আস্থার মূল্য দিয়েছেন অধিনায়ক ধোনিকে। পাকদের বিরুদ্ধে জাদেজা শেষদিকে কিছু রান দিলেও প্রোটিয়াদের বিরুদ্ধে অশ্বিনের যোগ্যতম সঙ্গী হিসেবেই ভূমিকা রেখেছেন।

প্রকাশিত : ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

২৮/০২/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: