রৌদ্রজ্জ্বল, তাপমাত্রা ২৩.৯ °C
 
৮ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বৃহস্পতিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

রাজশাহীতে হরতালে ক্লাস নেয়ায় হুমকি দিয়ে প্রধান শিক্ষককে ‘লালচিঠি’

প্রকাশিত : ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

স্টাফ রিপোর্টার, রাজশাহী ॥ হরতালের মধ্যে ক্লাস নেয়ায় রাজশাহী নগরের লক্ষ্মীপুর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষককে লাল রঙের কাগজে লেখা একটি চিঠিতে হুমকি দেয়া হয়েছে। হরতাল ও অবরোধের মধ্যে ক্লাস কার্যক্রম চালিয়ে গেলে বিদ্যালয়টি বোমা মেরে উড়িয়ে দেয়া হবে বলে চিঠিতে উল্লেখ করা হয়েছে। ‘আন্দোলনকামী কর্মীবাহিনী’ নামে ডাকযোগে চিঠিটি দেয়া হয়েছে।

শুক্রবার বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আইরিন জাফর ওই চিঠি হাতে পাওয়ার পর রাজপাড়া থানায়

একটি জিডি করেছেন বলে জানিয়েছেন রাজপাড়া থানার ওসি মেহেদী হাসান।

প্রধান শিক্ষক আইরিন জাফর বলেন, শিক্ষার্থীদের ক্লাস যাতে বিঘœ না হয় সে জন্য হরতালের মধ্যেও ক্লাস চালু রাখার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। যথারীতি ক্লাস চলছে। বিদ্যালয়ের বিভিন্ন শ্রেণীতেও প্রায় শতভাগ শিক্ষার্থী উপস্থিত থাকছে প্রতিদিন। বিদ্যালয়টিতে এসএসসি পরীক্ষা কেন্দ্রও আছে। সে কারণে যে দিন পরীক্ষা থাকে ওই দিন কোন ক্লাস হচ্ছে না।

এরই মধ্যে শুক্রবার লাল চিঠিটি হাতে পেয়েছেন তিনি। চিঠিটি পড়ার পর শঙ্কিত হয়ে তিনি রাজপাড়া থানায় গিয়ে জিডি করেছেন। এছাড়াও রাজশাহী পুলিশ কমিশনারের কাছে তিনি লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।

রাজপাড়া থানার ওসি মেহেদী হাসান জানান, চিঠিতে প্রধান শিক্ষকের উদ্দেশে লেখা হয়েছে, ‘হরতালের দিনগুলোতে আপনার প্রতিষ্ঠান যদি চালান তাহলে আপনার গতিপথ আমরা পরখ করছি। কখন, কবে, কোন সময় আপনার প্রতিষ্ঠানে পেট্রোলবোমা নয়, অন্য কোন বোমা বিস্ফোরিত হলে তার দায়িত্ব কে নেবে-আপনি না সরকারী দল, না বিরোধী দল। যদি এরকম কোন ঘটনা ঘটে তাহলে শিশুদের সব দায়দায়িত্ব আপনার ওপরেই বর্তাবে বলে আমরা মনে করি।’

অপর প্যারায় লেখা হয়েছে, ‘শেখ হাসিনার চক্রান্ত দেশের জনগণ আজ ধরতে পেরেছে। সে জন্য সকলেই সচেতন। শুধু আপনি এখনও সচেতন হননি, সে জন্য আমরা দুঃখিত। আমরা মনে করছি, এ চিঠি পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে আপনার বোধোদয় হবে। আপনি হরতালের দিনগুলোতে ছাত্রছাত্রীদের সাধারণ পোশাকেও প্রতিষ্ঠান চালাবেন না। চিঠিটি বাংলাদেশ ডাক বিভাগের মাধ্যমে পাঠানো হয়েছে। এ বিষয়ে পুলিশ সতর্ক অবস্থানে আছে বলে ওসি জানিয়েছেন।

প্রকাশিত : ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

২৮/০২/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

শেষের পাতা



ব্রেকিং নিউজ: