কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৪ ডিসেম্বর ২০১৬, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

পদ্মায় লঞ্চডুবি ॥ আরও সাত লাশ উদ্ধার

প্রকাশিত : ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

নিজস্ব সংবাদদাতা, মানিকগঞ্জ, ২৫ ফেব্রুয়ারি ॥ পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌরুটের মাঝপদ্মায় গত রবিবারের লঞ্চডুবির ঘটনায় বুধবার আরও ৭টি মরদেহ উদ্ধার করেছে পাটুরিয়া নৌপুলিশ ও ঘিওর ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা। ভোর থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত দুর্ঘটনাস্থল থেকে সাত কিলোমিটার ভাটিতে হরিরামপুর উপজেলার বিভিন্ন স্থান থেকে কয়েক দফায় ওই মৃতদেহগুলো উদ্ধার করা হয়। এ নিয়ে বুধবার দুপুর পর্যন্ত উদ্ধারকৃত মৃতদেহের সংখ্যা দাঁড়ালো ৭৮ জনে। যার মধ্যে ৭১টি মরদেহ পরিবারের সদস্যদের নিকট হস্তান্তর করা হয়েছে। ঘিওর ফায়ার স্টেশন ও পাটুরিয়া নৌপুলিশ জানায়, লঞ্চডুবির ঘটনায় উদ্ধার তৎপরতার অংশ হিসেবে বুধবার ভোর থেকে পদ্মা নদীতে টহল অব্যাহত ছিল । এসময় পার্শ্ববর্তী হরিরামপুর উপজেলার বাল্লা, মালুচি ও আন্ধারমানিক এলাকার পদ্মা নদীর বিভিন্ন স্থান থেকে কয়েক দফায় এই ৭টি মরদেহ উদ্ধার করা হয়, এই টহল অব্যাহত থাকবে। উদ্ধার হওয়া মৃতদেহের মধ্যে ৫ জনের পরিচয় পাওয়া গেছে, এরা হলেন শিবালয় উপজেলার এলাচিপুর গ্রামের মৃত আফাজউদ্দিনের ছেলে সোহরাব হোসেন (৫০), একই উপজেলার ছোট বোয়ালি গ্রামের তপন সূত্রধরের ছেলে সঞ্জিব সূত্রধর (৯), দক্ষিণ তেওতা গ্রামের মৃত জয়নাল আবেদিনের ছেলে আবুল হাসেম (হাসু) (৫৫), মানিকগঞ্জেরই দৌলতপুর উপজেলার সমেতপুর গ্রামের উজ্জল মোল্লার ছেলে ইমন মোল্লা (৩৫) ও কুষ্টিয়া জেলার কুমারখালি উপজেলার যাদবপুর গ্রামের শিলন শেখের স্ত্রী লিপি আক্তার (২৬)। এই ৫টি মরদেহ তাদের স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। পরিচয় না পাওয়ায় ২টি মরদেহ এখনো পাটুরিয়া ঘাটে রাখা হয়েছে।

এছাড়াও নবাবগঞ্জ এলাকার পদ্মা নদীতে একটি মেয়ে শিশুর লাশ উদ্ধার হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। তবে এখনো এই শিশুর লাশটি লঞ্চডুবির কিনা তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি বলে জানিয়েছেন শিবালয় এ এস পি সার্কেল । যোগাযোগ করা হচ্ছে ।

ইটনায় নিখোঁজ যাত্রীর লাশ উদ্ধার ॥ নিজস্ব সংবাদদাতা, কিশোরগঞ্জ থেকে জানান, জেলার হাওর অধ্যুষিত ইটনার ধনু নদীতে ট্রলারডুবির ঘটনায় নিখোঁজের ৪ দিন পর রফিক মিয়া (৩৫) নামে এক যাত্রীর লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। বুধবার সকালে ঘটনাস্থল থেকে দেড় কিলোমিটার দূরে উপজেলা সদরের এরশাদনগরের জেটিঘাটের বিপরীতে নদীতে ভাসমান অবস্থায় তার লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ সময় নিহতের জামার পকেটে রাখা সাড়ে ৪ হাজার টাকা ও একটি মোবাইল ফোন পাওয়া যায়। নিহত রফিক জেলার করিমগঞ্জের গুজাদিয়া ইউনিয়নের টামনি ইসলামপুর গ্রামের মৃত মুক্তার হোসেনের ছেলে।

প্রকাশিত : ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

২৬/০২/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

প্রথম পাতা



ব্রেকিং নিউজ: