মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১০ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

২৫শ’ ফুট নিচে পড়েও...

প্রকাশিত : ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০১৫
২৫শ’ ফুট নিচে পড়েও...

আল্পস পর্বতের ২৫শ ফুট উঁচু থেকে পা ছিটকে পড়ে গিয়েও দিব্যি বেঁচে গেছে এক ভাগ্যবান ব্রিটিশ বালক। জ্যাক ফক্স নামের ১৪ বছর বয়সী ওই স্কুলছাত্র তার অপর ৮ বন্ধুকে সঙ্গে নিয়ে অস্ট্রিয়ায় গিয়েছিল স্কি করতে এবং ছবি তুলতে। প্রথম দিকে ওপরে বেশ ভালভাবেই চলছিল তাদের কসরত। কিন্তু পহাড়ের খাঁড়িতে দাঁড়িয়ে জ্যাক ফক্সের ছবি তোলার সময় ঘটে বিপত্তি।

হঠাৎ পা ফসকে নিচের দিকে পড়ে যেতে থাকে ছেলেটি। নিচে তাকিয়ে নিজেই মনে মনে বলতে থাকে আর বুঝি রক্ষা নেই। এবার প্রাণটা গেলই বুঝি। কিন্তু না তা হয়নি। কিছুটা নিচে নামার পর প্রকা- এক বরফখ-ের সঙ্গে তার ধাক্কা লাগে। তারপর নিচে পড়ে জ্ঞান হারায়। প্রশিক্ষকদের দাবি মাথায় থাকা শক্ত হেলমেট আর পিঠের ব্যাগটিই হয়ত তাকে বাঁচিয়ে দিয়েছে।

কিন্তু জ্যাক বলছে ‘আমার বিশ্বাস হচ্ছে না যে আমি বেঁচে আছি। বলছে জ্ঞান হারানোর আগে আমার একটি স্মৃতি মনে পড়ছে। আমার মনে হয় আমি একটি বরফখন্ডকে শক্ত করে ধরে ছিলাম। আর এ সময় আমার পা অপর একটি বরফখ-ের ওপর ঠেকিয়েছিলাম। তারপর আমার আর কিছু মনে নেই।’

ছেলেটি বলছে,সত্যিই ঘটনাটি আতঙ্কজনক ছিল। আমার মনে হচ্ছিল হয়ত কয়েক মিনিট পরই মারা যাব।

জ্যাক আরও বলেছে, দিনটি রৌদ্রকরোজ্জ্বল ছিল। সবাই মাথার হেলমেট খুলে ছবি তুলছিল। কিন্তু আমি এটা করিনি। আমার মনে হচ্ছে মাথায় হেলমেট না থাকলে আমি হয়ত বাঁচতেই পারতাম না। আমি সত্যিই ভাগ্যবান। আমার শিক্ষকরা বলছেন, জ্যাক তুমি লটারি কিনলে অবশ্যই জিতবে।

এ কথা শুনে চমকে উঠছেন জ্যাকের চিকিৎসকরাও। তারা বলছে, ঘটনাটি সত্যিই অলৌকিক। জ্যাক শুধু দুই হাতে ব্যথা পেয়েছে। তবে ডান হাতের আঘাতটা একটু বেশি। কয়েকদিন পর একটা হালকা অস্ত্রোপচারে এটা সেরে যাবে। ডেইলি মেইল অবলম্বনে নাজিম মাহমুদ

প্রকাশিত : ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

২৬/০২/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

প্রথম পাতা



ব্রেকিং নিউজ: