মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১০ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

বন্যায় প্লাবিত গাজা

প্রকাশিত : ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

যুদ্ধবিধ্বস্ত গাজা উপত্যকায় প্রচ- শীতে যখন জীবনযাত্রা ব্যাহত, ঠিক সেই ক্ষণে ইসরাইল বেশ কিছু বাঁধের পানি ছেড়ে প্লাবিত করল গাজা। ফিলিস্তিনী সরকারী কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে জানানো হয়, ইসরাইল ইচ্ছাকৃতভাবে এসব বাঁধের মুখ খুলে দেয়। বর্তমানে বন্যার পানিতে প্লাবিত হয়ে যুদ্ধবিধ্বস্ত গাজায় অধিবাসীরা নিরাপদ স্থানে আশ্রয়ের দিকে ছুটে যাচ্ছে। বিগত কয়েক দশকের মধ্যে এবার গাজায় প্রচ- শীতের উপদ্রব ছিল। বর্তমানে বন্যার পানিতে গাজার অধিবাসীদের আরও নাকাল অবস্থা। ইসরাইল অবশ্য এই অভিযোগ অস্বীকার করেছে। গত বছর গাজা ইপত্যকায় ইসরাইলী হামলায় অধিকাংশ বাড়িঘর বিধ্বস্ত হয়েছিল। হতাহতের সংখ্যা ছিল দু’ হাজারেরও বেশি, যার অধিকাংশ শিশু। তবে এবারের বন্যায় হতাহতের ঘটনা না ঘটলেও ৮০টি পরিবার ক্ষতিগ্রস্ত হয়। কিন্তু শীতের তীব্রতার কারণে এ বন্যায় জনজীবন চরমভাবে বিপর্যস্ত হয়।

সিরিয়ায় তুরস্কের সেনাবাহিনী

একটি ঐতিহাসিক কবর সরিয়ে নিতে তুরস্কের সেনাবাহিনীর এক শ’রও বেশি সদস্য প্রতিবেশী সিরিয়ার দক্ষিণাঞ্চলে প্রবেশ করেছে। ১৩ শতকের সুলায়মান শাহ কবর যুদ্ধবিধ্বস্ত এই অঞ্চলে অবস্থিত। আইএস জঙ্গীরা এই কবর গুঁড়িয়ে দেয়ার হুমকি দিলে তুরস্ক এই পদক্ষেপ নিতে বাধ্য হয় বলে জানান দেশটির একজন মুখপাত্র। গৃহযুদ্ধে বিধ্বস্ত সিরিয়ার দক্ষিণাঞ্চল বর্তমানে সরকারের নিয়ন্ত্রণহীন। তুরস্ক এই অভিযানের বিষয়ে সিরিয়াকে অবহিত করলেও এ নিয়ে কোন আলোচনা করেনি। এ কারণে সিরিয়া তুরস্কের অভিযানে অসন্তোষ প্রকাশ করে তীব্র নিন্দা জানায়। ১২৩৬ সালে মৃত্যুবরণ করা সুলায়মান শাহ ছিলেন ওসমানীয় সম্রাজ্যের প্রতিষ্ঠাতা ওসমানের পিতামহ। তুরস্কের সেনাবাহিনী সুলায়মান শাহর কবর সমেত দেশে নিরাপদ ফিরেছে। তুরস্ক-সিরিয়ার সীমান্তবর্তী একটি অঞ্চলে সুলায়মান শাহকে পুনরায় কবর দেয়া হবে। এই ঘটনার মধ্য দিয়ে প্রতিবেশী সিরিয়ার সঙ্গে আরও তিক্ততা বাড়াল তুরস্ক।

প্রকাশিত : ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

২৫/০২/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: