কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৩ ডিসেম্বর ২০১৬, ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

সিসি ক্যামেরায় যারা ধরা পড়ছে-

প্রকাশিত : ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০১৫
সিসি ক্যামেরায় যারা ধরা পড়ছে-

স্টাফ রিপোর্টার ॥ সিসি ক্যামেরার ফুটেজ দেখে রবিবার রাতে রাজধানীতে তিন বোমাবাজকে ধরে গণধোলাই দিলে তাদের মৃত্যু হয়। রাজধানীর বিভিন্ন জায়গায় আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর তরফ থেকে সিসি ক্যামেরা বসানো হয়েছে। এছাড়া বোমাবাজদের ধরতে বেসরকারীভাবে বিভিন্ন ভবন, অফিস-আদালতে থাকা সিসি ক্যামেরা সচল রাখার পরামর্শ দেয়া হয়েছে। সেই সব ক্যামেরায় ধরা পড়ছে বোমাবাজরা।

রবিবার রাতে রাজধানীর মিরপুরের কাজীপাড়া, বাইশবাড়ী ও টেকনিক্যাল মোড় এলাকায় পেট্রোলবোমা মেরে পালানোর সময় গণধোলাইয়ের শিকার হয় তিন বোমাবাজ। জনতা আক্রোশের চোটে বোমাবাজদের বেধড়ক মারধর করে।

ঢাকা মহানগর পুলিশ জানায়, রবিবার রাত পৌনে ১০টার দিকে মিরপুরের বেগম রোকেয়া সরণীতে ১০ জনের একটি সংঘবদ্ধ বোমাবাজ দল জড়ো হয়। এরপর স্থানীয় জনতা তিনজনকে আটক করে গণধোলাই দেয়। পরে পুলিশ আহতাবস্থায় ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাদের মৃত ঘাষণা করেন।

গোয়েন্দা সূত্রে জানা গেছে, বোমাবাজদের সংগঠিত হওয়ার দৃশ্য স্থানীয় দোকানের সিসি ক্যামেরার ফুটেজে ধরা পড়ে। পরে জনতা সম্মিলিতভাবে বোমাবাজদের ধরে গণধোলাই দেয়। আর তাতেই মৃত্যু হয়।

পুলিশ ও র‌্যাব সূত্রে জানা গেছে, ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন জেলায় তিন শতাধিক নাশকতাপ্রবণ জায়গা চিহ্নিত করা হয়েছে। ঢাকার ৪০টিসহ প্রায় দুই শতাধিক স্পটে পুলিশ, র‌্যাব ও গোয়েন্দা পুলিশের তরফ থেকে গোপন সিসি ক্যামেরা বসানো আছে। বস্তি ও জামায়াত-শিবিরের প্রভাব বেশি থাকা এলাকায় ক্যামেরাগুলো বসানো হয়েছে। রাজধানীর যাত্রাবাড়ীর শনির আখড়া, মাতুয়াইল কাঠেরপুল, ভাঙ্গাপ্রেস, কাজলা, ডগাইর, পাড়ডগাইর, শ্যামপুর, নামা শ্যামপুর, ফতুল্লা, কমলাপুর রেলওয়ে বস্তি, মতিঝিল টিটিপাড়া বস্তি, রামপুরা, বনশ্রী, নতুন বাড্ডা, মধ্য বাড্ডা, বাড্ডার সাঁতারকূল, ভাটারা, মহাখালীর আমতলী মোড়, আব্দুল্লাহপুর, পল্লবীর কালশী নতুন রাস্তার মোড়, মিরপুর বেড়িবাঁধের চটবাড়ি ও দিয়াবাড়ি, আশুলিয়া মোড়, গাবতলী, আমিনবাজার, শ্যামলী টেকনিক্যাল মোড় ও মোহাম্মদপুর বেড়িবাঁধ এলাকাকে বোমাবাজিপ্রবণ এলাকা হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে। আরও ক্যামেরা বসানোর কাজ চলছে। ক্যামেরাগুলো বসানো হয়েছে অত্যন্ত গোপন জায়গায়, যা বাইর থেকে দেখা যায় না। বিভিন্ন বাসাবাড়ির ছাদে, দেয়ালে বা সুবিধাজনক জায়গায় এসব গোপন ক্যামেরা বসানো আছে। এসব ক্যামেরায় ধারণকৃত ছবি দেখে ইতোমধ্যেই রাজধানী থেকে বেশকিছু বোমাবাজকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

গোয়েন্দা সূত্রে জানা গেছে, আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সিসি ক্যামেরা ছাড়াও দেশের নাশকতাপ্রবণ এলাকাগুলোতে অবস্থিত ব্যবসা প্রতিষ্ঠান, অফিস-আদালত ও বিভিন্ন বাসাবাড়িতে থাকা সিসি ক্যামেরা সচল রাখতে সরকারের তরফ থেকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে। সিসি ক্যামেরার মালিকদের বোমাবাজ ও বোমাবাজির জন্য সংগঠিত হওয়ার দৃশ্য দেখামাত্র আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে তথ্য দিতে নির্দেশ জারি করা হয়েছে। অনেক বাসাবাড়ি ও অফিস-আদালতে থাকা সিসি ক্যামেরা আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর তরফ থেকে লাগানো হয়েছে।

প্রকাশিত : ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

২৫/০২/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

প্রথম পাতা



ব্রেকিং নিউজ: