মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১০ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

শাহজালালে লাগেজ হারানো কাম্য নয়

প্রকাশিত : ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০১৫
  • সংসদে মেনন

সংসদ রিপোর্টার ॥ ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর দিয়ে প্রতিদিন প্রায় ১৫ থেকে ২০ হাজার যাত্রী চলাচল করে। এসব যাত্রীরা ২৫ থেকে ২০ হাজার ল্যাগেজ ব্যাগ বহন করে। এই বিশাল কর্মকা-ের মধ্যে দু’একটি ল্যাগেজ হারানোর মতো বিচ্ছিন্ন ঘটনা ঘটে থাকতে পারে, যা কাম্য নয়।

সোমবার জাতীয় সংসদে টেবিলে উত্থাপিত প্রশ্নোত্তর পর্বে সরকারী দলের মহিবুর রহমান মানিকের এক প্রশ্নের জবাবে বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটনমন্ত্রী রাশেন খান মেনন এ কথা বলেন। তিনি এ বিষয়ে ইতোমধ্যে সংশ্লিষ্ট নিরাপত্তা সংস্থা কর্তৃক আরও কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণ করা হচ্ছে।

মন্ত্রী জানান, বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ এ জাতীয় অনাকাক্সিক্ষত ঘটনা শূন্যের কোটায় নিয়ে আসার জন্য বিভিন্ন ব্যবস্থা নিয়েছে। বিমানবন্দরের যাত্রীদের মালামালের নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্য কর্মরত বিমান, পুলিশ/এপিবিএন, আনসার, সিএএবি-এর নিরাপত্তা কর্মীসহ সকল সংস্থার সমন্বয়ে নিয়মিত মাসিক সভা করা হয়। পাশাপাশি যাত্রীদের অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্তপূর্বক প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হয়ে থাকে।

সরকার দলীয় সদস্য ইসরাফিল আলমের প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী জানান, শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে একটি পাঁচ তারকা ও একটি তিন তারকা হোটেল এবং গলফ ফোর্স ও কান্ট্রি ক্লাব নির্মাণের উদ্দেশ্যে ২০০০ সালের ৫ মার্চ আইপিসিও ইন্টারন্যাশনাল লিমিটেড, সিঙ্গাপুর এবং সিএএবির মধ্যে হেডস অব এগ্রিমেন্ট (এইচওএ) স্বাক্ষরিত হয়েছে। বর্তমানে হোটেল দুটির নির্মাণ কাজ আইপিসিও লি. সিঙ্গাপুর ও আইপিসিও রিসোর্ট লিমিটেড বাংলাদেশের তত্ত্বাবধানে চলমান। আশা করা যায়, ২০১৬ সাল নাগাদ এ কাজ শেষ হবে।

বিমান পরিচালনা পর্ষদের পরিচালক হতে কোন অর্থ বিনিয়োগ করতে হয় কি না, সরকারী দলের মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরীর প্রশ্নের জবাবে বিমানমন্ত্রী জানান, সরকার কর্তৃক মনোনীত বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের সচিব, বিভিন্ন সরকারী সংস্থার সদস্য, আইনজীবী ও দেশের সম্মানিত ব্যক্তিবর্গকে নিয়ে বিমানে পরিচালনা বোর্ড গঠিত হয়। বর্তমান পরিচালক হতে হলে কোন অর্থ বিনিয়োগ করতে হয় না। যেহেতু বিমান শতভাগ সরকারী মালিকানাধীন প্রতিষ্ঠান। সেহেতু বিমান পরিচালনা পর্ষদের সদস্য হতে হলে নির্দিষ্ট পরিমাণ অর্থ বিনিয়োগের বাধ্যবাদকতা আরোপের কোন অবকাশ এ পর্যায়ে নেই।

স্বতন্ত্র সংসদ সদস্য তাহজীব আলম সিদ্দিকীর প্রশ্নের জবাবে রাশেদ খান মেনন জানান, চলতি অর্থবছরের প্রথম ৬ মাসে আয়-ব্যয়ের হিসাব এখনও নিরীক্ষিত হয়নি। তবে আপাতত হিসাব অনুযায়ী বিমান প্রথম ছয় মাসে ২৪৫ কোটি টাকা মুনাফা অর্জন করতে সক্ষম হয়েছে বলে প্রতীয়মান হয়।

প্রকাশিত : ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

২৪/০২/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: