আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৭ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বুধবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

ইংল্যান্ডের স্বস্তির জয়

প্রকাশিত : ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

মোঃ মামুন রশীদ ॥ অবশেষে স্বস্তির জয়ের ঠিকানা পেল ইংল্যান্ড। বিশ্বকাপে সোমবার ক্রাইস্টচার্চে নিজেদের তৃতীয় ম্যাচে পার্শ্ববর্তী দেশ স্কটল্যান্ডকে ১১৯ রানে উড়িয়ে দিয়ে নিজেদের ফিরে পেল তারা। প্রথম দুই ম্যাচেই এবার বিশ্বকাপের অন্যতম দুই হটফেবারিট ও আয়োজক অস্ট্রেলিয়া এবং নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে মুখোমুখি হতে হয়েছিল তাদের। অস্ট্রেলিয়ার কাছে উদ্বোধনী ম্যাচে ১১১ রানের লজ্জাজনক পরাজয় এবং দ্বিতীয় ম্যাচে নিউজিল্যান্ডের কাছে ৮ উইকেটে বিধ্বস্ত হওয়া ইংলিশদের জন্য এ জয়টা অতীব জরুরী ছিল কোয়ার্টার ফাইনালে উঠার স্বপ্ন বাঁচিয়ে রাখতে হলে।

তবে শুধু ইংল্যান্ড, নিউজিল্যান্ড কিংবা ভারত-পাকিস্তান নয়, এবার বিশ্বকাপে বেশ আলোচনায় আছে বাংলাদেশ দল। প্রথম ম্যাচে আফগানিস্তানকে ১০৫ রানে বিধ্বস্ত করার পর সোমবার অনুশীলন করেনি তারা। তবু আলোচনায় আছে বাংলাদেশ। কারণ শৃঙ্খলা ভঙ্গের কারণে পেসার আল আমিন হোসেনকে দেশে পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে এবং পরিবর্তে জায়গা করে নিয়েছেন ২০১১ বিশ্বকাপ খেলা পেসার শফিউল ইসলাম। স্ট্যান্ডবাই হিসেবে থাকা ২৫ বছর বয়সী শফিউল ঘটাতে চান ২০১১ বিশ্বকাপের পুনরাবৃত্তি। সেবার আয়ারল্যান্ডের বিরুদ্ধে ক্যারিয়ার সেরা ২১ রানে ৪ উইকেট নিয়ে এবং ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে ২৪ রানের অপরাজিত ইনিংস উপহার দিয়ে জয় ছিনিয়ে এনেছিলেন। এবারও তেমন কিছু করতে চান সোমবার রাতে অস্ট্রেলিয়ার উদ্দেশে দেশত্যাগ করা শফিউল।

মঈন আলি একাই যেন হারিয়ে দিলেন স্কটল্যান্ডকে। নানাবিধ সমস্যা কাটিয়ে ওঠার ম্যাচ ছিল ইংলিশদের জন্য। ক্রাইস্টচার্চের হ্যাগলি ওভালে টস হেরে গিয়েছিল অবশ্য তারা। তবে তৃতীয় ম্যাচে এসে যেন ওপেনাররা নিজেদের মেলে ধরতে পারলেন। উদ্বোধনী জুটিতে যে ১৭২ রানের জুটি এলো তাতেই বড় সংগ্রহের ভিত পেয়ে গেল ইংলিশরা। অলরাউন্ডার মঈন মাত্র ১০৭ বলে ১২ চার ৫ ছক্কায় ১২৮ রানের দারুণ এক ইনিংস খেলেন। ২৭ বছর পর নিউজিল্যান্ডের মাটিতে কোন ইংলিশ ব্যাটসম্যান সেঞ্চুরি হাঁকালেন। আরেক ওপেনার ইয়ান বেল কিছুটা ধীরগতির ব্যাটিং করে ৮৫ বলে ২ চারে করেন ৫৪। পরের দিকের ব্যাটসম্যানরা অবশ্য যথারীতি ব্যর্থ ছিলেন। তবে অধিনায়ক ইয়ন মরগান রানে ফিরেছেন। তিনি ৪২ বলে ৪ চার ও ২ ছক্কায় ৪৬ রান করেন। নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৮ উইকেটে ৩০৩ রানের চ্যালেঞ্জিং স্কোর গড়ে ইংল্যান্ড। ৬৮ রানে ৪ উইকেট নিয়ে সেরা বোলার তারকা পেসার জস ডেভি। জবাবে ৪২.২ ওভারে ১৮৪ রানে অলআউট হয় স্কটল্যান্ড। ব্যাট হাতে দুর্দান্ত সেঞ্চুরির পর বল হাতে ২ উইকেট নেন মঈন। বিশ্বকাপে কোন ইংলিশ ক্রিকেটারের এমন অলরাউন্ড নৈপুণ্য এই প্রথম! ভাল শুরু করে শেষটায় হতাশ করেছেন তাঁরা। সর্বোচ্চ ৭১ রান আসে ওপেনার কাইল কোয়েটজারের ব্যাট থেকে। ৮৪ বলে ১১ চারের সাহায্যে এ রান করেন তিনি। স্কটিশরাই প্রথম দল যারা কমপক্ষে দুই বিশ্বকাপে ১০ ম্যাচ খেলে এখনও জয়ের দেখা পায়নি!

এ দিন ম্যাচ কিংবা অনুশীলন না থাকলেও গণমাধ্যমের আলোচনায় ছিল বাংলাদেশ। প্রথম ম্যাচে আফগানদের হারানোর পর দ্বিতীয় ম্যাচে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে পরিত্যক্ত হওয়ার সুবাদে ১ পয়েন্ট নিয়ে বেশ সুবিধাজনক অবস্থায় আছে বাংলাদেশ। তবে খারাপ খবর হলো শৃঙ্খলাভঙ্গের শাস্তি স্বরূপ কোন ম্যাচ না খেলেই তরুণ পেসার আল আমিনকে সোমবার দেশে ফেরত পাঠানো হয়েছে। ফলে স্ট্যান্ডবাই থাকা শফিউলের কপাল খুলেছে। তিনি সোমবার রাতেই অস্ট্রেলিয়া রওনা হয়েছেন আইসিসির অনুমতি মেলার পর। যাওয়ার আগে ২০১১ বিশ্বকাপে ইংল্যান্ডকে হারানোর পেছনে যে ভূমিকা রেখেছিলেন সেটার পুনরাবৃত্তি ঘটানোর প্রত্যয় জানিয়েছেন তিনি। শফিউল বলেন, ‘আমি কিছুটা হতাশ ছিলাম বিশ্বকাপ স্কোয়াড থেকে বাদ পড়ায়। এখন আমি দলের সঙ্গে যোগ দিচ্ছি। আমি হঠাৎ এ ডাক পেয়ে খুব অবাক হয়েছি। আমি সর্বশেষ বিশ্বকাপে যে নৈপুণ্য দেখিয়েছিলাম সেটার পুনরাবৃত্তি ঘটাতে চাই। এখন আমার দায়িত্ব একাদশে সুযোগ পেলে নিজের সর্বোচ্চ দিয়ে ভাল করা।’ গত বিশ্বকাপে ৬ ম্যাচে ৬ উইকেট নেয়া শফিউল ৫২ ওয়ানডে খেলে শিকার করেছেন ৫৮ উইকেট।

প্রকাশিত : ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

২৪/০২/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

প্রথম পাতা



ব্রেকিং নিউজ: