কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৪ ডিসেম্বর ২০১৬, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

ভারতে সোয়াইন ফ্লুর কারণ অনুসন্ধানে বিশেষজ্ঞ দল

প্রকাশিত : ২২ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

ভারতে সোয়াইন ফ্লু ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে পড়ার কারণ খুঁজতে বিশেষজ্ঞ দল নিয়োগ করা হয়েছে। চলতি সপ্তাহেই তারা তদন্ত শুরু করেছেন। জানুয়ারি থেকে এ পর্যন্ত দেশটিতে সোয়াইন ফ্লুতে আক্রান্ত হয়েছে কয়েক হাজার এবং মারা গেছে সাতশ’। এক কথায় মহামারীর রূপ নিয়েছে এটি। ভারতজুড়ে কড়া সতর্কতা জারি করা হয়েছে কেন্দ্রীয় সরকারের পক্ষ থেকে। খবর নিউইয়র্ক টাইমসের।

ভাইরাসটিতে সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত পাঁচটি এলাকায় বিশেষজ্ঞ দল পাঠিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী। মৃত্যুর ধরন নিয়ে গবেষণার জন্য রাজ্য সরকারগুলোকে নির্দেশ দিয়েছেন তিনি। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডাব্লিউএইচও) বলেছে, অস্বাভাবিক মাত্রায় মৌসুমি ফ্লু এইচওয়ানএনওয়ান ছড়িয়ে পড়া নিয়ে রিপোর্ট করেছে ভারত। এটি সোয়াইন ফ্লুর ভাই্রাস। এর প্রথম উৎপত্তি হয়েছে ২০০৯ সালে মেক্সিকোতে। এ পর্যন্ত ভারতে ১১ হাজারের বেশি লোকের এই ভাইরাস শনাক্ত করা হয়েছে। তবে এতে কতজন অসুস্থ তা এখনও পরিষ্কার নয়। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী জেপি নাড্ডা বৃহস্পতিবার বলেছেন, এ নিয়ে আমাদের আতঙ্কিত হওয়া যাবে না। তবে একই সঙ্গে আমাদের সতর্ক থাকতে হবে। সোয়াইন ফ্লুর চিকিৎসার সরঞ্জাম নিয়ে প্রায় প্রতিটি হাসপাতালই তৈরি।

ওষুধেরও অভাব নেই। তবে রাজস্থান, গুজরাট, মধ্যপ্রদেশ, মহারাষ্ট্র ও তেলেঙ্গানায় সোয়াইন ফ্লুতে আক্রান্তের সংখ্যা সবচেয়ে বেশি। এদিকে নাগাল্যান্ড ও মিজোরামেও মিলেছে ওই রোগের এইচ১এন১ ভাইরাস। সেখানে দুই নারী আক্রান্ত হয়েছেন এই ভাইরাসে। পাশাপাশি সতর্ক করা হয়েছে অসমেও। জম্মু-কাশ্মীরে সোয়াইন ফ্লুয়ে মৃত্যু হয়েছে দু’জনের। ভাইরাসটি যাতে মহামারি রূপ নিতে না-পারে, সেই জন্য কাশ্মীরে আপাতত সব স্কুল বন্ধ রাখার সুপারিশ করা হয়েছে। পর্যটকদেরও বিশেষভাবে সতর্ক থাকতে বলেছে রাজ্য প্রশাসন। উত্তর প্রদেশের আলিগড় মুসলিম বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্লাস বুধবার পর্যন্ত স্থগিত করা হয়েছে।

প্রকাশিত : ২২ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

২২/০২/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

বিদেশের খবর



ব্রেকিং নিউজ: