মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১১ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

ময়মনসিংহ ও কক্সবাজারে বন্দুকযুদ্ধে দুই সন্ত্রাসী নিহত

প্রকাশিত : ২০ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

জনকণ্ঠ ডেস্ক ॥ ময়মনসিংহ জেলার ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলায় বুধবার রাতে পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে নিহত হয়েছে ‘খোকন পুলিশ’ নামে পরিচিত এক সন্ত্রাসী ও মাদক বিক্রেতা। থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাসহ পুলিশের চার সদস্য এ ঘটনায় আহত হন। অন্যদিকে কক্সবাজার জেলার টেকনাফের হ্নীলায় বিজিবির সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে এক ইয়াবা ব্যবসায়ী নিহত হয়েছে। আহত হয়েছেন দুই বিজিবি সদস্য। খবর স্টাফ রিপোর্টাদের।

ময়মনসিংহ জেলার ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলার সোহাগী বাজারে বুধবার রাতে পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে পুলিশের তালিকাভুক্ত সন্ত্রাসী ও মাদক বিক্রেতা রফিকুল ইসলাম খোকন ওরফে ‘খোকন পুলিশ’ (৩৫)। এ সময় ককটেল হামলায় ঈশ্বরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আক্তারুজ্জামান ও এসআই মাসুদ রানাসহ পুলিশের চার সদস্য আহত হয়েছেন। তাদের মধ্যে ৩ জনকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। পুলিশ বন্দুকযুদ্ধের পর খোকনের কাছ থেকে একটি বিদেশী পিস্তল, ২ রাউন্ড গুলি ও ৪টি কককেটল উদ্ধার করে। পুলিশ জানায়, ঈশ্বরগঞ্জ থানার এক নম্বর তালিকাভুক্ত সন্ত্রাসী, অস্ত্র ও মাদক বিক্রেতা খোকনের নামে থানায় ৬টি মামলা রয়েছে। খোকনের মৃত্যুর খবরে এলাকাবাসী স্বস্তি প্রকাশ করেছে। পুলিশ খোকনের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য বৃহস্পতিবার দুপুরে ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ মর্গে পাঠায়। পুলিশ কনস্টেবল খোকন ৯০-এর দশকে চট্টগ্রামে চাকরি করার সময় মাদকসহ হাতেনাতে ধরা পড়ে চাকরি হারান। এরপর তিনি চট্টগ্রাম ও ঈশ্বরগঞ্জসহ ময়মনসিংহে মাদক ও অস্ত্র বিক্রি শুরু করেন। গড়ে তোলেন ‘খোকন বাহিনী’। মাদক চোরকারবারীদের কাছে পরিচিতি পান খোকন পুলিশ নামে।

কক্সবাজার ॥ জেলার টেকনাফের হ্নীলায় বিজিবির সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে এক ইয়াবা ব্যবসায়ী নিহত হয়েছে। বিজিবি জওয়ানরা একটি বন্দুক ও বিপুল পরিমাণ ইয়াবা উদ্ধার করে। বুধবার রাতে এইচকে আনোয়ারের প্রজেক্ট সংলগ্ন নাফ নদীর কিনারায় এ ঘটনা ঘটে। ৬ জন চোরাচালানী বিজিবির টহলদলের প্রতি লক্ষ্য করে ২ রাউন্ড গুলি ছোড়ে সামনের দিকে এগুতে থাকলে বিজিবিও আত্মরক্ষার্থে ৩ রাউন্ড গুলি বর্ষণ করে। পরে কয়েকজন পালিয়ে গেলেও ঘটনাস্থল থেকে গুলিবিদ্ধ আহত হোছন আহমদকে ১ কোটি ২০ লাখ টাকা মূল্যের ৪০ হাজার পিস ইয়াবা, ২টি কার্তুজ ও ২টি কিরিচ উদ্ধার করে টেকনাফ হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানে তার মৃত্যু ঘটে। নিহত ব্যক্তি উত্তর আলীখালী গ্রামের মৃত মোজার মিয়ার পুত্র।

প্রকাশিত : ২০ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

২০/০২/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

শেষের পাতা



ব্রেকিং নিউজ: