আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৭ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বুধবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

দীর্ঘ ৬৩ বছরেও শহীদদের জীবন বৃত্তান্ত পাঠ্যপুস্তকে অন্তর্ভুক্ত হয়নি

প্রকাশিত : ২০ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

স্টাফ রিপোর্টার, ময়মনসিংহ ॥ মহান ভাষা আন্দোলনের দীর্ঘ ৬৩ বছরেও জাতীয় পাঠ্যপুস্তকে অন্তর্ভুক্ত হয়নি ভাষা শহীদদের আলাদা ও পূর্ণাঙ্গ জীবন বৃত্তান্ত। ফলে স্কুল শিক্ষার্থীসহ বর্তমান নতুন প্রজন্ম জানতে পারছে না কীর্তিমান ভাষা শহীদদের গৌরবজ্বল বীরত্বগাথার ইতিহাস। একই সঙ্গে শিক্ষার্থীদের মধ্যে ভাষা আন্দোলন ও শহীদদের ইতিহাস নিয়ে বিভ্রান্তির সৃষ্টি হচ্ছে। অনেকে ভাষা আন্দোলন আর মুক্তিযুদ্ধকে এক সঙ্গে গুলিয়ে ফেলছে। পাঠ্যপুস্তকে এখনও ভাষা শহীদদের পূর্ণাঙ্গ জীবন বৃত্তান্ত অন্তর্ভুক্ত না হওয়ায় হতাশ শহীদ পরিবারের সদস্যসহ নতুন প্রজন্মের শিক্ষার্থী ও স্থানীয় শিক্ষাবিদরা।

স্থানীয় সূত্র জানায়, বায়ান্নের ভাষা আন্দোলনে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের সামনে বুকের তাজা রক্ত ঢেলে শহীদ হয়েছিলেন ময়মনসিংহের গফরগাঁও উপজেলার পাঁচুয়া গ্রামের কিশোর আব্দুল জব্বার। ভাষা আন্দোলনে শহীদ জব্বারের গৌরবজ্বল স্মৃতিকে ধরে রাখতে গফরগাঁওয়ের পাঁচুয়া গ্রামে প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে জব্বার স্মৃতি পাঠাগার, শহীদ মিনারসহ নানাকিছু। গফরগাঁও উপজেলা সদরেও রয়েছে শহীদ জব্বার চত্বরসহ নানাকিছু। এ নিয়ে গফরগাঁওয়ের মানুষসহ শহীদ পরিবারের সদস্যরা গর্বিত। একইভাবে সালাম, বরকত, রফিক ও শফিকের গ্রামের বাড়িতেও প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে স্মৃতি পাঠাগারসহ নানাকিছু। কিন্তু ভাষা আন্দোলনের দীর্ঘ ৬৩ বছর পরও জাতীয় পাঠ্যপুস্তকে ঠাঁই হয়নি ভাষা শহীদ আব্দুল জব্বারসহ সালাম, বরকত, রফিক ও শফিকের পূর্ণাঙ্গ কোন জীবন বৃত্তান্ত। ফলে নতুন প্রজন্মের ছাত্রছাত্রীরা জানতে পারছে না রাষ্ট্রভাষা বাংলা ভাষা প্রতিষ্ঠা বিপ্লবী ভাষা শহীদদের অবদান ও বীরত্বগাথার ইতিহাস। সময়ের ব্যবধানে হারিয়ে যেতে বসেছে শহীদদের সেই আত্মত্যাগের কাহিনী ও মহান ভাষা আন্দোলনের ধারাবাহিকতার ইতিহাস। এ নিয়ে হতাশ নতুন প্রজন্মের ছাত্রছাত্রীরা। ময়মনসিংহের গফরগাঁও শহীদ আব্দুল জব্বার রেজিস্ট্রার্ড প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা এখনও জানতে পারছে না শহীদ জব্বার কে ছিলেন। কেবল তাই নয় ময়মনসিংহের বিদ্যাময়ী সরকারী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়সহ স্থানীয় অনেক শিক্ষার্থীরাও পাঠ্যপুস্তকে ভাষা শহীদদের জীবন বৃত্তান্ত না থাকায় আক্ষেপ করে জানিয়েছে, বায়ান্নের ভাষা আন্দোলনের সিঁড়ি বেয়ে এসেছিল আমাদের মহান স্বাধীনতা। মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম নায়ক বীরশ্রেষ্ঠদের জীবন বৃত্তান্ত পাঠ্যপুস্তকে গুরুত্বের সঙ্গে জায়গা পেলেও ভাষা আন্দোলনে শহীদদের পূর্ণাঙ্গ জীবন বৃত্তান্ত এখন পর্যন্ত ঠাঁই না মেলায় হতাশ শিক্ষার্থীরা। ভাষা আন্দোলন ও শহীদদের জীবন কাহিনী পাঠ্যপুস্তকে না থাকায় নতুন প্রজন্মের শিক্ষার্থীরা একদিকে ভাষা আন্দোলনের প্রকৃত ইতিহাস জানা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে, অন্যদিকে হারিয়ে যেতে বসেছে কীর্তিমান ভাষা শহীদদের গৌরবজ্বল বীরত্বগাথা।

প্রকাশিত : ২০ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

২০/০২/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

প্রথম পাতা



ব্রেকিং নিউজ: