কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৪ ডিসেম্বর ২০১৬, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

অস্ত্রবিরতি লঙ্ঘনের জন্য মস্কোকে দোষারোপ

প্রকাশিত : ১৯ ফেব্রুয়ারী ২০১৫
  • ইউক্রেনের দেবালৎসেভ শহর ঘিরে প্রচণ্ড লড়াই

ইউক্রেন প্রশ্নে মিনস্ক চুক্তি লঙ্ঘনের জন্য যুক্তরাষ্ট্র রাশিয়াকে দোষারোপ করেছে। একই দিকে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদ অস্ত্রবিরতি চুক্তি অনুমোদনের জন্য সর্বসম্মতভাবে ভোট দিয়েছে। মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন বলেছেন, চুক্তি লঙ্ঘন অব্যাহত থাকলে রাশিয়াকে আরও বেশি করে মূল্য দিতে হবে। এদিকে কৌশলগত শহর দেবালৎসেভের চারপাশে জোর লড়াই চলছে আর রুশপন্থী বিদ্রোহীরা বলছে তারা এখন অধিকাংশ এলাকা নিয়ন্ত্রণ করছে। রুশ প্রেসিডেন্ট ভøাদিমির পুতিন ইউক্রেনের সৈন্যদের আত্মসমপর্ণের আহ্বান জানিয়েছেন। খবর বিবিসি, এএফপি ও টেলিগ্রাফের।

গত সপ্তাহে বেলারুশের মিনস্কে সম্মত একটি যুদ্ধবিরতি অনুমোদনের রাশিয়ার খসড়াকৃত প্রস্তাব নিরাপত্তা পরিষদে সর্বসম্মতভাবে গৃতীত হলেও পরিষদে রাষ্ট্রদূতদের মধ্যে ক্রুদ্ধ বাক্যবিনিময় হয়। যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত সামান্থা পাওয়ার বলেন, তিনি এ চুক্তিকে সর্বান্তকরণে স্বাগত জানান। তবে তিনি বলেন, রাশিয়াকে শান্তির প্রতি তাঁর অঙ্গীকার রক্ষা করতে হবে। রাশিয়া অনেক চুক্তিতে স্বাক্ষর করে, তারপর সেগুলোকে দুর্বল করে দিতে তার ক্ষমতানুুুুুুুযায়ী সবকিছু করে। রাশিয়া জাতিসমূহের সার্বভৌমত্বের সপক্ষে কথা বলে আর তারপর এমন আচরণ করে যেন প্রতিবেশী দেশের সীমান্তেরই কোন অস্তিত্ব নেই।

তিনি বলেন, বিচ্ছিন্নতাবাদীদের অস্ত্র দেয়া বন্ধ করুন। সীমান্তের ওপারে আপনাদের সৈন্যদের ছাড়াও শত শত ভারি অস্ত্র পাঠানো বন্ধ করুন। আপনারা যে কাজ করেছেন তা না করার ভান করবেন না। পাওয়ার আরও বলেন, এটি একটি পরিহাস যে রাশিয়া প্রস্তাবটির (অস্ত্রবিরতি) খসড়া করলেও ইউক্রেনে সর্বাত্মক হামলাকে মদদ দিচ্ছে। রুশ রাষ্ট্রদূত ভিতালি চুরকিন তাঁর মন্তব্যকে ‘আক্রমণাত্মক’ বলে বর্ণনা করেন। তিনি বলেন, সঙ্কটের শুরু থেকে রাশিয়া ইউক্রেনের অভ্যন্তরীণ লড়াইয়ে সকল পথের মধ্যে অন্তর্ভুক্তিমূলক স্বচ্ছ সংলাপের মাধ্যমে একটি শান্তিপূর্ণ সমাধানে পৌঁছানোর জন্য সক্রিয়ভাবে আহ্বান জানিয়ে আসছে।

ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট পেত্রো পোরোশেঙ্কোর সঙ্গে আলোচনার পর ভাইস প্রেসিডেন্ট বাইডেন বলেন, তিনি দেবল্তসেভ শহরের অভ্যন্তরে ও চারপাশে রুশবাহিনীর সঙ্গে মিলে বিচ্ছিন্নতাবাদীদের যুদ্ধবিরতি লঙ্ঘনের তীব্র নিন্দা করছেন। তিনি এ প্রসঙ্গে হোয়াইট হাউসের একটি বিবৃতি উদ্ধৃত্ত করে বলেন, রাশিয়া যদি ১২ ফেব্রুয়ারির সবচেয়ে সাম্প্রতিক চুক্তিসহ মিনস্ক চুক্তি লঙ্ঘন অব্যাহত রাখে, তবে রাশিয়াকে আরও মূল্য দিতে হবে। অস্ত্রবিরতি নজরদারি করা আন্তর্জাতিক গবেষকরা দেবল্তসেভ শহরে প্রবেশে সক্ষম হননি। বিদ্রোহী অধিকৃত দোনেৎস্ক ও লুহানস্কের মধ্যে সংযোগকারী কৌশলগত রেলপথের ওপর শহরটি অবস্থিত বলে বিদ্রোহী ও সরকারী উভয় বাহিনীর কাছেই এটি মহার্ঘ বলে বিবেচিত। শহরটিতে বহুসংখ্যক সরকারী সৈন্যের ভাগ্য নিয়েও বিতর্ক সৃষ্টি হয়েছে। বিদ্রোহী সূত্র বলছে। তারা আত্মসমর্পণ করছে কিন্তু ইউক্রেনের সেনাবাহিনী জোর দিয়ে বলেছে, অতর্কিত আক্রমণ পরিচালনার সময় গোলাবারুদ শেষ হয়ে গেলে তাদের বন্দী করা হয়।

প্রকাশিত : ১৯ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

১৯/০২/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: