রৌদ্রজ্জ্বল, তাপমাত্রা ২৩.৯ °C
 
৮ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বৃহস্পতিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

ব্যারিস্টার ফখরুলের বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার শুনানি ৫ এপ্রিল

প্রকাশিত : ১৯ ফেব্রুয়ারী ২০১৫
  • যুদ্ধাপরাধী বিচার

স্টাফ রিপোর্টার ॥ স্কাইপি সংলাপে বিচারপতিদের সম্পর্কিত তথ্য জানতে চাওয়ায় মানবতাবিরোধী অপরাধের অভিযোগে মৃত্যুদ-প্রাপ্ত আসামি সালাহউদ্দিন কাদের (সাকা) চৌধুরীর আইনজীবী ব্যারিস্টার ফখরুল ইসলামের বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার বিষয়ে শুনানি এবং আদেশের জন্য ৫ এপ্রিল দিন ধার্য করা হয়েছে। অন্যদিকে হবিগঞ্জের দুই সহোদর মহিদুর রহমান ওরফে বড় মিয়া ও মজিবুর রহমান ওরফে আঙ্গুর মিয়ার বিরুদ্ধে অগ্রগতি প্রতিবেদন দেয়ার জন্য ১১ মার্চ দিন নির্ধারণ করা হয়েছে। বুধবার আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল-১ ও ২ আদেশগুলো প্রদান করেছে।

আসামিপক্ষের আইনজীবীর আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে স্কাইপি সংলাপে বিচারপতিদের সম্পর্কিত তথ্য জানতে চাওয়ায় ফখরুল ইসলামের বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার বিষয়ে শুনানি এবং আদেশের দিন আবারও পিছিয়েছে। পরবর্তী দিন নির্ধারণ করা হযেছে ৫ এপ্রিল। চেয়ারম্যান বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিমের নেতৃত্বে তিন সদস্যবিশিষ্ট আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল-১ এ আদেশ প্রদান করেছে। ট্রাইব্যুনালে অন্য দুই সদস্য ছিলেন বিচারপতি জাহাঙ্গীর হোসেন সেলিম ও বিচারপতি আনোয়ারুল হক। এ সময় প্রসিকিউশন পক্ষে উপস্থিত ছিলেন প্রসিকিউটর জিয়াদ আল মালুম। এ নিয়ে ব্যারিস্টার ফখরুলের আদালত অবমাননার বিষয়ে আদেশের তারিখ বেশ কয়েকবার পেছানো হয়েছে। ব্যারিস্টার

ফখরুলের পক্ষে বৃহস্পতিবার ট্রাইব্যুনালে উপস্থিত ছিলেন হুজ্জাতুল ইসলাম আলফেসানী। এর আগে ৭ মার্চ ব্যারিস্টার ফখরুল ইসলাম ট্রাইব্যুনালের কাছে নিঃশর্ত ক্ষমা প্রার্থনা করলে প্রথমে নির্ধারিত দিনে ৮ এপ্রিল আদেশ দেয়া হবে জানিয়ে দেয় আদালত। ট্রাইব্যুনালের সাবেক চেয়ারম্যান বিচারপতি নিজামুল হক নাসিমের স্কাইপি সংলাপ নিয়ে বিচারিক বিষয়ে হস্তক্ষেপ করার অভিযোগে সালাহউদ্দিন কাদের (সাকা) চৌধুরীর অইনজীবী ব্যারিস্টার ফখরুল ইসলামের বিরুদ্ধে আদালত অবমাননায় শোকজ নোটিস জারি করে ট্রাইব্যুনাল-১।

হবিগঞ্জের দুই সহোদর ॥ একাত্তরে মুক্তিযুদ্ধের সময় মানবতাবিরোধী অপরাধের অভিযোগে গ্রেফতারকৃত হবিগঞ্জের দুই সহোদর মহিদুর রহমান ওরফে বড় মিয়া ও মজিবুর রহমান ওরফে আঙ্গুর মিয়ার বিরুদ্ধে অগ্রগতি প্রতিবেদন দাখিলের জন্য ১১ মার্চ দিন নির্ধারণ করা হয়েছে। চেয়ারম্যান বিচারপতি ওবায়দুল হক শাহীনের নেতৃত্বে তিন সদস্যবিশিষ্ট আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল-২ বুধবার এ আদেশ প্রদান করেছেন। ট্রাইব্যুনালে অন্য দুই সদস্য ছিলেন বিচারপতি মোঃ মুজিবুর রহমান মিয়া ও বিচারপতি মোঃ শাহিনুর ইসলাম। প্রসিকিউশন পক্ষে উপস্থিত ছিলেন প্রসিকিউটর সুলতান মুহাম্মদ সিমন।

প্রকাশিত : ১৯ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

১৯/০২/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

শেষের পাতা



ব্রেকিং নিউজ: