মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
৯ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শুক্রবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

অবরোধের মধ্যে নাশকতা বিশ্বের ধর্মীয় উগ্রবাদী সন্ত্রাসেরই অংশ

প্রকাশিত : ১৯ ফেব্রুয়ারী ২০১৫
  • মুক্তিযোদ্ধাদের র‌্যালিতে সৈয়দ আশরাফ ॥ আজ শাপলা চত্বর থেকে পতাকা মিছিল

স্টাফ রিপোর্টার ॥ হরতাল ও সহিংসতাবিরোধী কর্মসূচীতে অংশ নিয়ে বক্তারা বলেছেন, বাংলাদেশে অবরোধের মধ্যে নাশকতার যেসব ঘটনা ঘটছে তা বিশ্বের বিভিন্ন দেশে ধর্মীয় উগ্রবাদীদের চলমান সন্ত্রাসী কর্মকা-ের অংশ। এই ধরনের নাশকতার বিরুদ্ধে সবাইকে রুখে দাঁড়াতে হবে। নইলে বিপর্যয়ের মুখে পড়বে মানব সভ্যতা। ২০ দলের চলমান নাশতার প্রতিবাদে রাজধানীর বিভিন্নস্থানে পৃথক পৃথক কর্মসূচীর আয়োজন করা হয়। সামাজিক, সাংস্কৃতিক পেশাজীবী সংগঠনের উদ্যোগে আয়োজিত এসব অনুষ্ঠানে রাজনৈতিক নেতাসহ বিভিন্ন সেক্টরের প্রতিনিধিরা অংশ নেন। এদিকে চলমান সহিংসতার প্রতিবাদে আজ শাপলা চত্বর থেকে খালেদা জিয়ার কার্যালয় অভিমুখে জাতীয় পতাকা হাতে মিছিল করবে মুক্তিযোদ্ধা, শ্রমিক ও পেশাজীবী পরিষদ।

বাংলাদেশে অবরোধের মধ্যে নাশকতার যেসব ঘটনা ঘটছে তা বিশ্বের বিভিন্ন দেশে ধর্মীয় উগ্রবাদীদের চলমান সন্ত্রাসী কর্মকা-ের অংশ বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম। বুধবার রাজধানীর মানিক মিয়া এ্যাভিনিউয়ে এক র‌্যালির উদ্বোধনের সময় তিনি বলেন, বাংলাদেশে যে সন্ত্রাস চলছে তা বিশ্বব্যাপী চলমান সন্ত্রাসের অংশ। সারা বিশ্বের যারা ধর্মীয় সন্ত্রাসী তাদের বিরুদ্ধে আমাদের যুদ্ধ।

স্থানীয় সরকার মন্ত্রী সৈয়দ আশরাফ বলেন, এখন যে রাজনৈতিক পরিস্থিতি চলছে তা উপলব্ধি করতে হবে। ঢাকার মতো প্যারিস, লিবিয়া, মিসর, রাশিয়া ও ডেনমার্কেও রক্ত ঝরছে। বিশ্বের বিভিন্ন দেশে যে তা-ব তারা চালিয়ে যাচ্ছে, বাংলাদেশ তারই একটা অংশ। শুধু বাংলাদেশে নয়, দেশের বাইরেও শত্রু রয়েছে মন্তব্য করে তিনি বলেন, বিভিন্ন দেশের জঙ্গীগোষ্ঠী আইএস, তালেবান, আল কায়েদার মতো বাংলাদেশের আলবদর, রাজাকার ও বিএনপি। খালেদা জিয়ার আন্দোলন নির্বাচন বা তত্ত্বাবধায়ক সরকারের জন্য নয়, বিশ্বব্যাপী সন্ত্রাসের অংশ। তিনি বলেন, আজকের সংগ্রাম বাংলাদেশসহ সারা বিশ্বের মানুষের। সারা পৃথিবীর শান্তি ও গণতন্ত্রকামী মানুষ আজ ঐক্যবদ্ধ সেই শত্রুর বিরুদ্ধে। এই শত্রুকে পরাজিত করতেই হবে।

বিএনপি-জামায়াত জোটের হরতাল-অবরোধের প্রতিবাদে বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কেন্দ্রীয় কমান্ড কাউন্সিল আয়োজিত র‌্যালির উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন সৈয়দ আশরাফ। এ সময় মুক্তিযোদ্ধাদের উদ্দেশে তিনি বলেন, আপনারা একা নন, আপনারা সফল হবেন। সারা পৃথিবীর মানুষ আপনাদের সঙ্গে আছে। আসুন এই সন্ত্রাসী গোষ্ঠীকে পরাজিত করি, না হয় আর মানব সভ্যতা থাকবে না। মুক্তিযোদ্ধাদের সঙ্গে নাশকতাকারীদের বিরুদ্ধে সংগ্রাম গড়ে তোলার প্রত্যয় জানান তিনি।

মানুষের রক্তের সিঁড়ি বেয়ে ক্ষমতায় যেতে পারবেন না Ñশাজাহান খান ॥ সাধারণ মানুষের রক্তের সিঁড়ি বেয়ে খালেদা জিয়া ক্ষমতায় যেতে পারবেন না বলে মন্তব্য করেছেন নৌপরিবহনমন্ত্রী শাজাহান খান। বুধবার জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে বাংলাদেশ আওয়ামী মুক্তিযোদ্ধা প্রজন্মলীগ আয়োজিত ‘১৬ ফেব্রুয়ারি গুলশান-২ গোল চত্বরে বাংলাদেশ আওয়ামী মুক্তিযোদ্ধা প্রজন্মলীগের মিছিলে বিএনপি-জামায়াতের বোমাবর্ষণে সংগঠনের নেতাকর্মীদের আহত হওয়ার প্রতিবাদে’ সমাবেশের প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ মন্তব্য করেন। মন্ত্রী খালেদা জিয়ার উদ্দেশে বলেন, আপনি কি ঘুমিয়ে আছেন নাকি বধির ও অন্ধ হয়ে গেছেন। আমার তো মনে হয় আপনি বধির ও অন্ধ হয়ে গেছেন। তা না হলে বাংলার মানুষের আর্তনাদ আপনার কানে পৌঁছাত।

তিনি বলেন, সন্ত্রাসী কর্মকা- করে মানুষের রক্ত চুষে আপনি কখনও ক্ষমতায় যেতে পারবেন না। বাংলার মানুষ সেটা হতে দেবে না। তাই অতিদ্রুত সন্ত্রাসী কর্মকা- পরিহার করুন। তা না হলে বাংলার মানুষ গণআন্দোলন তৈরি করে আপনাকে রাজনীতি থেকে বিতাড়িত করবে। দেশব্যাপী সহিংসতার প্রতিবাদে আজ ১৯ ফেব্রুয়ারি সকাল ১০টায় সব শ্রেণী পেশার মানুষদের নিয়ে মতিঝিলের শাপলা চত্বরে শ্রমিকদের পক্ষ থেকে জাতীয় পতাকা মিছিল কর্মসূচী পালন করা হবে বলে জানান মন্ত্রী।

বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, কেন্দ্রীয় কমান্ড কাউন্সিল ॥ বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০ দলের হরতাল-অবরোধের প্রতিবাদে রাজধানীতে মিছিল ও সমাবেশ করেছে বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, কেন্দ্রীয় কমান্ড কাউন্সিল। সমাবেশে বক্তারা বলেন, বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়াকে রাজনীতি থেকে বিতাড়িত করে ঘরে ফিরতে হবে। তিনি অন্ধ ও বধির হয়ে গেছেন। বাংলাদেশের কী হচ্ছে, দেখতে ও শুনতে পান না। এ সময় সংলাপের সম্ভাবনা নাকচ করে দিয়ে নৌপরিবহনমন্ত্রী শাজাহান খান বলেন, ‘দানবের সঙ্গে মানবের প্রেম হতে পারে না’। রাজধানীর মানিক মিয়া এ্যাভিনিউয়ে একটি ট্রাকমিছিল-পূর্ব এক সমাবেশে এসব কথা বলেন বক্তারা। প্রধানমন্ত্রীর উদ্দেশে শাজাহান খান বলেন, প্রধানমন্ত্রী দেশের মানুষকে বাঁচান। ২০১৩ সালে ৫৫ জন ও ২০১৪-১৫ সালে ৬০ জন ড্রাইভার-হেলপার হত্যা করা হয়েছে। হরতাল অবরোধ প্রত্যাহার না করলে ‘খালেদা জিয়ার খবর আছে’ বলেও হুঁশিয়ারি দেন তিনি। সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন- বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, কেন্দ্রীয় কমান্ড কাউন্সিলের চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল (অব) হেলাল মোর্শেদ খান।

প্রধান অতিথি ছিলেন স্থানীয় সরকারমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম। আরও বক্তব্য দেন- মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক ও জাসদ নেত্রী শিরীন আখতার।

আন্দোলনে নামবে হিজড়া সম্প্রদায় ॥

দেশে চলমান রাজনৈতিক সংঘাত ও জ্বালাও-পোড়াও না থামালে কঠোর আন্দোলনে নামার ঘোষণা দিয়েছে হিজড়া সম্প্রদায়। বুধবার রাজধানীর বনানী মাঠে বাংলাদেশ হিজড়া কল্যাণ ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে এক সমাবেশে এ ঘোষণা দেয়া হয়। সংগঠনের সভাপতি আবিদা সুলতানা মিতু বলেন, আমরা চাই দেশে সুষ্ঠু ও সুশৃঙ্খল রাজনীতি বজায় থাকুক। যাতে সবাই শান্তিতে বসবাস করতে পারে। আগুনে পুড়ে আর কোন মানুষের প্রাণহানি চাই না। ‘এভাবে সহিংসতা চলতে থাকলে দেশের ১৪ লাখ হিজড়া রাজপথে নেমে আসবে। কঠোর আন্দোলনের মাধ্যমে এসব সহিংসতার উচিত জবাব দেয়া উচিত বলেও মনে করেন তিনি। হিজড়া সম্প্রদায়ের এই নেত্রী জানান, আজ বিএনপি নেত্রী খালেদা জিয়ার কার্যালয় ঘেরাওয়ের কর্মসূচী থাকলেও পুলিশি বাধার কারণে তা হয়নি। কর্মসূচীতে হিজড়া সম্প্রদায়ের নেতা শামসু হিজড়া, পাহাড়ী হিজড়া, মেসবাহ হিজড়া, দিপালী হিজড়া, স্বপ্না হিজড়া, হায়দার হিজড়া নেতৃত্ব দেন।

প্রকাশিত : ১৯ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

১৯/০২/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

প্রথম পাতা



ব্রেকিং নিউজ: