মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১০ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

সাইবার অপরাধ

প্রকাশিত : ১৮ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

সাম্প্রতিক বিশ্বে এক শ’রও বেশি বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠানে সাইবার অপরাধের মাধ্যমে ১ বিলিয়ন ডলার লুটপাটের ঘটনা ঘটে। এ ধরনের সাইবার ডাকাতির ঘটনা এই প্রথম। কম্পিউটার নিরাপত্তা প্রতিষ্ঠান ক্যাসপারস্কি ল্যাবের ধারণা আনুমানিক ১ বিলিয়ন ডলার এ সাইবার অপরাধের মাধ্যমে চুরি হয়। ২০১৩ সাল হতে এ ধরনের সাইবার হামলার প্রচলন শুরু হয়ে আসছে। এবং তা এখনও বিরাজমান। এ ধরনের সাইবার অপরাধের। রাশিয়া, চীন ও ইউক্রেনের সংঘবদ্ধ একটি চক্র। ক্যাসপারস্কি বর্তমানে ইন্টারপোল ও ইউরোপোলের সঙ্গে যৌথভাবে এ নিয়ে তদন্ত চালিয়ে যাচ্ছে। এ চক্রটি ভাইরাসের মাধ্যমে আর্থিক প্রতিষ্ঠানের কম্পিউটার নেটওয়ার্ক নষ্ট করার পাশাপাশি ভিডিও নজরদারির ফুটেজও ধ্বংস করেছে। কিছু ক্ষেত্রে অপরাধীরা ব্যাংকের হিসাব হতে নিজেদের এ্যাকাউন্টে টাকা ট্রান্সফার করছে। অথবা একটি নির্দিষ্ট দিনের নির্ধারিত ক্ষণে ক্যাশ বুথের টাকা উত্তোলন করছে। অন্যদিকে ইউরোপোল সাইবার ক্রাইমের প্রধান জানান, এক শ‘রও কম সাইবার অপরাধী বর্তমানে বিশ্বজুড়ে সাইবার অপরাধের সঙ্গে জড়িত। বিবিসি টেক রেডিও শোর একটি অনুষ্ঠানে তিনি এ মতামত ব্যক্ত করেন। ট্রোয়েলস ওয়েরটিং জানান, আমরা জানি এ অপরাধীরা কারা। আমরা যদি এ অপরাধী শনাক্ত এবং গ্রেফতারের প্রক্রিয়া শুরু করি তবে অন্যরাও ভবিষ্যতে নিরুৎসাহিত হবে। সাইবার অপরাধকে ভবিষ্যত দুনিয়ার অন্যতম যুদ্ধ হিসেবে অভিহিত করেন ইউরোপোল প্রধান ট্রোয়েলস ওয়েরটিং। তবে এই অপরাধের সমস্যা হলো এ ধরনের অপরাধ কোন সীমান্ত মানছে না, এ অপরাধীরা ব্যাপক তথ্য ভা-ারে সমৃদ্ধ এবং এই সব অপরাধ সংঘটনে তাদের কোন বাধা অতিক্রম করতে হয় না। এবং অপরাধ সংঘটনে তাদের কোন দেশে প্রবেশের প্রয়োজনও নেই। তারা দূরবর্তী স্থান হতেই এসব অপরাধ করে যাচ্ছে। তাই তাদের গ্রেফতার করা কষ্টসাধ্য, তবে শনাক্ত করা কঠিন নয়। তবে ভয়ঙ্কর বিষয় হলো এই সব অপরাধীর বেশিরভাগ রাশিয়ান। এবং ইউরোপের সঙ্গে যেহেতু রাশিয়ান সরকারের সম্পর্ক ভাল নয় তাই এ বিষয়ে তাদের সহযোগিতা আশা করা বৃথা।

চলমান ডেস্ক

প্রকাশিত : ১৮ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

১৮/০২/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: