মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১০ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

তিন নারীর হাত কেটে দিল আইএস

প্রকাশিত : ১৮ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

ইরাকের ইসলামিক স্টেট (আইএস) জঙ্গীরা অজ্ঞাত অভিযোগে তিন নারীর হাত কেটে দিয়েছে এবং প্রকাশ্যে কয়েক ব্যক্তিকে মোবাইল ফোন ব্যবহারের জন্য জনসমক্ষে দোররা মেরেছে। ইরাকের দ্বিতীয় বৃহত্তম শহর মসুলে ঘটনাটি ঘটেছে। শহরটিতে জঙ্গীদের শক্তিশালী ঘাঁটি রয়েছে। জঙ্গীরা জানিয়েছে, তারা মোবাইল ফোন ব্যবহার করা নিষিদ্ধ করেছে; যাতে করে আইএসের অবস্থান মার্কিন নেতৃত্বাধীন জোটবাহিনী জানতে না পারে। খবর টাইমস অব ইন্ডিয়া।

ইরাকী নিউজকে এক সূত্র জানিয়েছে, বৃহস্পতিবার বিকেলে আইএস জঙ্গীরা অজ্ঞাত অভিযোগে তিন নারীর হাত কেটে দিয়েছে। একইসঙ্গে অপর পাঁচ ব্যক্তিকে মোবাইল ফোন ব্যবহার করে আত্মীয়স্বজনের সঙ্গে যোগাযোগের জন্য দোররা মারা হয়। গোষ্ঠীটি গত বছর জুনে মসুল দখল করে নেয়। প্রতিবেদনে আরও জানানো হয়, আইএস জঙ্গীরা একটি ডিক্রী জারি করেছে। তাতে বলা হয় যে কেউ মোবাইল ফোন ব্যবহার করে ধরা পড়লে তাকে ৩০ দোররা মারা হবে। যদি এটি সত্য হয়, তবে ইরাকের অন্যান্য এলাকায় আইএসের ঘাঁটির বিধিনিষেধের সঙ্গে এ নিয়ে সংঘাত সৃষ্টি হবে বলে ধারণা করা হয়। ইরাকের কিরকুক প্রদেশের হাউইজায় বন্দী কুর্দী সেনাদের খাঁচার মধ্যে ভরে নিয়ে যাবার সময় লোকজনকে মোবাইলে প্রকাশ্যে ভিডিও ধারণ করতে দেখা যায়। এছাড়া আইএস জঙ্গীদের দণ্ড কার্যকরের ভিডিও চিত্র ধারণ করতেও উপস্থিত লোকজনকে দেখা যায়।

গত বছরের নবেম্বরে মসুলে আইএস জঙ্গীদের অবস্থান সম্পর্কিত তথ্য পাচার হয়ে যেতে পারে এই আশঙ্কায় সব ধরনের ফোনের নেটওয়ার্ক বন্ধ করে দেয়া হয়। আইএস জঙ্গীদের ফোন নেটওয়ার্ক বন্ধ করার ঘোষণা বেতারে দেয়ার পর শহরটির ব্যবসা-বাণিজ্যে অচলাবস্থা সৃষ্টি হয়েছে।

প্রকাশিত : ১৮ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

১৮/০২/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: