আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৬ ডিসেম্বর ২০১৬, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, মঙ্গলবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

চিৎকার-এর সঙ্গে আড্ডা ...

প্রকাশিত : ১৭ ফেব্রুয়ারী ২০১৫
  • জুয়েইরিযাহ মউ

সন্ধ্যারাত, টঙ-চা ঘর আর চিৎকার-এর সদস্যরা আড্ডাটা এভাবেই শুরু হলো। তরুণদের ব্যান্ড চিৎকার তারুণ্যেরই কথা বলে, যে তারুণ্য সময়ের দাবি। সম্প্রতি এই ব্যান্ডের প্রথম এ্যালবাম প্রকাশিত হয়েছে ‘চিৎকার’ শিরোনামে। ইদানীং এ নিয়েই বেশ আলোচনায় আছে ‘চিৎকার’ তরুণদের আড্ডাতে। আর নির্দিষ্ট একদল শ্রোতা তো সেই শুরু থেকে ছিলই সবসময়।

কথা তাই জমে উঠল এ নিয়েই, সেই শুরু-টা কি করে? বলছিলেন ব্যান্ডের ভোকাল পদ্মÑ প্রথমে লিখতে লিখতেই সুর নিয়ে খেলা করা শুরু। মন্দিরা হাতে গান বাঁধতে বাঁধতে আমি আর অতনু বন্ধুদের আড্ডা থেকে এক সময় মঞ্চেও উঠলাম। জেলায়-উপজেলায় কিংবা ক্যাম্পাসে ক্যাম্পাসে। শুরুর দিনক্ষণ আজ আর নির্দিষ্ট করে বলা সম্ভবই নয়।

কথাগুলো শুনতে শুনতে মনে পড়ছিল একবার এক বন্ধুর মুখে আমিও শুনেছিলাম বটেÑ পদ্মর পাগল করা মন্দিরা সব ছাপিয়ে শোনা যায়।

হ্যাঁ এভাবেই শুরু হয় ‘চিৎকার’। তারপর অতনুর কাছে গীটার শিখতে এসে রাব্বীও হয়ে গেলেন চিৎকার-এর। শুভ আর ড্রামসের তুহিনকে কোন এক নাটকের কর্মশালায় খুঁজে পাওয়া। ধীরে ধীরে সজিবও এলেন আর থেকে গেলেন ‘চিৎকার’-এর টানে। যদিও নতুন এ্যালবামের সবগুলো গানই পদ্মর লেখা তবে আজকাল চিৎকার-এর অন্য সদস্যরাও লিখছেন। প্রত্যাশা করা যাচ্ছে আগামী এ্যালবামে অন্যদের লেখা গানও শুনতে পাবেন শ্রোতারা।

আড্ডা যখন লিরিক্সে মোড় নিল তখন ‘চিৎকার’-এর বৈশিষ্ট্যও জানতে চেয়েছিলাম। ব্যান্ডের ভাষ্যমতেÑ যখন যে সময় যা লিখিয়ে নিয়েছে তা-ই লিখেছে কিংবা বলেছে চিৎকার। ‘হাট্টিমাট্টিম টিম’-এ যখন বলা হয় ‘ওরা সবাই ভূত ছিল, বোম ফুটাইয়া ফুটছিলো’; তা সিরিজ বোমা হামলার সময়ে লেখা যা আজও দুঃখজনকভাবে সত্য এবং প্রাসঙ্গিক। আর সুরও কথার সঙ্গে তাল রেখেই সৃষ্টি হয়, কিংবা বলা চলে কথা-সুর এক সঙ্গেই জন্মায় কোন আড্ডাতে কিংবা কোথাও একা বসে।

ব্যান্ড কী কিংবা কেনÑ এ ধরনের কথার পিঠে পদ্ম বলেনÑ আজকাল অনেক ব্যান্ডই কোন দর্শনগত জায়গা স্পষ্ট করে তোলে না। ব্যান্ড-এর জন্ম অবশ্যই একটি দর্শনগত জায়গা থেকেই হতে হবে। আমাদের দর্শন ‘ডব ধৎব ফৎবধসবৎ.’।

এখন শুধু গান করেই বেঁচে থাকতে চাইছে ‘চিৎকার’। অন্য কোন পেশাকে গানের পাশে রাখতে নারাজ ‘চিৎকার’-এর সদস্যরা। কনসার্ট, এ্যালবাম আর গান নিয়েই তাদের কাজের পরিধি বিস্তৃত করতে আগ্রহী তারা।

স্বপ্ন দেখা তরুণদের এই পথে হেরে যাওয়া কিংবা জিতে যাওয়ার চেয়েও বড় কথা তাদের এই পথ-চলা ...

প্রকাশিত : ১৭ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

১৭/০২/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: