মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১১ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

বাংলাদেশের বিরুদ্ধে খেলার জন্য প্রস্তুত না ॥ ফকনার

প্রকাশিত : ১৭ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ আগামী ২১ ফেব্রুয়ারি ব্রিসবেনে বাংলাদেশের বিরুদ্ধে আয়োজক অস্ট্রেলিয়ার দ্বিতীয় ম্যাচ। তবে সেই ম্যাচে খেলার জন্য পুরোপুরি ফিট নয় অলরাউন্ডার জেমস ফকনার। যদিও তাঁর খেলা নিয়ে আশা করছে অস্ট্রেলিয়া। কিন্তু ফকনার নিজেই জানিয়েছেন কোন সুযোগ নেই। প্রথম ম্যাচেও ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে তিনি খেলেননি। গত দুই সপ্তাহ ধরেই তিনি শরীরের পার্শ¦ীয় ব্যথার কারণে ক্রিকেটের বাইরে। তবে ফিরেছেন নেট অনুশীলনে। ব্যাটিং করলেও বোলিং করতে পারেননি। এ কারণে আর চার দিন পর বাংলাদেশের বিরুদ্ধে ম্যাচেও ফেরা একেবারেই অনিশ্চিত ফকনারের।

ফকনার ইনজুরিতে থাকার কারণে একজন ক্রিকেটারের কিন্তু বেশ সুবিধাই হয়েছে। অফফর্মে থাকা অলরাউন্ডার শেন ওয়াটসন একাদশেই সুযোগ পাচ্ছেন। ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে উদ্বোধনী ম্যাচেই তিনি শূন্য রান করে সাজঘরে ফিরে গেছেন। সে কারণে ফকনার ফেরামাত্রই একাদশ থেকে ওয়াটসনের ছিটকে পড়াটা প্রায় নিশ্চিত। সাম্প্রতিক সময়ে ওয়ানডের অন্যতম সেরা ‘ফিনিশার’ খ্যাতি পাওয়া ফকনার জানিয়েছেন পেস বোলিং অলরাউন্ডার হলেও তিনি এবার প্রস্তুত হচ্ছেন ব্যাটসম্যান হিসেবে। এ বিষয়ে তিনি বলেন, ‘নির্বাচকরা যদি এখনও আমাকে দলে চান সেক্ষেত্রে আমি শুধু ব্যাটসম্যান হিসেবে খেলতে রাজি আছি। যখনই আমি পুরোপুরি ফিট হব তখনই ফিরে যতকিছু করা সম্ভব সব করব। কিন্তু এই মুহূর্তে এ সব আলোচনার বিষয় নয়। আমি আসলে ফিট নই। সে কারণে আমার নিশ্চিত করতে হবে যে আমি পূর্ণোদ্যমে আছি।’

ফকনার মনে করেন বিশ্বকাপ স্কোয়াডে তিনি ছাড়াও অপর দুই অলরাউন্ডার মিচেল মার্শ ও ওয়াটসন একই সঙ্গে একাদশে খেলতে পারেন। সেটা বরং অস্ট্রেলিয়ার জন্য বেশ কার্যকরই হবে বলে দাবি তাঁর। ফকনার বলেন, ‘বাংলাদেশের বিরুদ্ধে আমার ফেরার কোন সুযোগ নেই। জানি না কখন এটা সম্ভব হবে। তবে সম্ভবত বেশ আগেভাগেই ফিরতে পারব। ব্যাটিংয়ের সময় যখনই আমি নামছি প্রতিবারই আগের চেয়ে ভাল বোধ করছি। সর্বশেষ নেট সেশনে আমি অত্যন্ত স্বাভাবিক ছিলাম। আর আমরা তিনজন আগেই একই সঙ্গে অস্ট্রেলিয়ার হয়ে খেলেছি। সবচেয়ে সুন্দর বিষয় হচ্ছে অস্ট্রেলিয়ার একাদশটা এখন সত্যিই খুব শক্তিশালী। এ কারণে জায়গা পাওয়াটা অনেক কঠিন। এটা পুরো দলের জন্য এবং অস্ট্রেলিয়ার জন্য অনেক বড় বিষয়। আমার মনে হয় না মিচেল এবং আমার মধ্যে একই জায়গা নিয়ে কোন লড়াই আছে। আমরা ভিন্নমাত্রার খেলোয়াড়। মিচেল সব সময়ই খুব ভাল একজন ব্যাটসম্যান এবং ওভারগুলোও ভাল করে থাকেন। আমি জানি তিনি বোলিং ভাল করার জন্য কঠোর পরিশ্রম করেন। আমি সব সময়ই মনে করি আমরা দু’জনই একাদশে খেলতে পারি একটা ম্যাচে। তেমন কয়েকটা ম্যাচ আমরা একসঙ্গে খুব ভালও খেলেছি।’

প্রকাশিত : ১৭ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

১৭/০২/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: