মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১০ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

বিমানবন্দরে সোনা চোরাচালান রোধে টাস্কফোর্স

প্রকাশিত : ১৭ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ বিমানবন্দরে স্বর্ণ চোরাচালান রোধে শুল্ক গোয়েন্দা, বিমান কর্তৃপক্ষ ও সরকারের অন্যান্য সংস্থার সমন্বয়ে যৌথ টাস্কফোর্স গঠনের উদ্যোগ নিয়েছে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর)। সোমবার এনবিআর চেয়ারম্যান নজিবুর রহমান সাংবাদিকদের এ কথা জানান। এর আগে এনবিআরের সম্মেলন কক্ষে বিমানের নবনিযুক্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালক কাইল হেইউডের সঙ্গে রুদ্ধদ্বার বৈঠক করেন তিনি। এ সময় উপস্থিত ছিলেন শুল্ক গোয়েন্দা অধিদফতরের মহাপরিচালক ড. মঈনুল খান ছাড়াও এনবিআরের উর্ধতন কর্মকর্তাগণ।

সূত্র জানায়, সৌজন্য সাক্ষাতের উদ্দেশে বিমানের নতুন এমডিকে এনবিআরে ডাকা হয়েছিল। তবে, সেখানে সম্প্রতি ৬২ কেজি স্বর্ণ আটকের ঘটনায় বিমানের সম্পৃক্ততার বিষয়েও জানতে চাওয়া হয়। স্বর্ণ চোরাচালান রোধে সর্বাত্মক সহযোগিতার আশ্বাস দেন বিমানের নতুন এমডি। এছাড়া ভবিষ্যতে এ ধরনের চোরাচালান রোধে কাস্টমস হাউস ও বিমানের করণীয় সম্পর্কে একটি পাওয়ার পয়েন্ট প্রেজেন্টেশন দেয় বিমান কর্তৃপক্ষ।

বৈঠক শেষে এনবিআর চেয়ারম্যান সাংবাদিকদের বলেন, স্বর্ণ চোরাচালান রোধে কঠোর অবস্থানে রয়েছে এনবিআর। এক্ষেত্রে ‘জিরো টলারেন্স’ নীতি অবলম্বন করা হচ্ছে। এ ধরনের ঘটনা অর্থনীতিতে বিরূপ প্রভাব ফেলবে তাই বিমান ও অন্যান্য সংস্থার সমন্বয়ে চোরাচালানবিরোধী যৌথ টাস্কফোর্স গঠনের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।

নজিবুর রহমান বলেন, স্বর্ণ চোরাচালানিদের ধরতে অনানুষ্ঠানিকভাবে যৌথ টাস্কফোর্স গঠনের কাজ চলছে। মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে আলাপ আলোচনা মাধ্যমে টাস্কফোর্সের একটা আনুষ্ঠানিক রূপ দেয়া হবে। ভবিষ্যতে কেউ যাতে এধরনের আইনবিরোধী কাজ করার কোন সুযোগ না পায়।

এরপর বিমানের নবনিযুক্ত এমডি কাইল হেইউড বলেন, ভবিষ্যতে স্বর্ণ চোরাচালান রোধে সব ধরনের সহায়তা দেবে বিমান কর্তৃপক্ষ। এ জন্য তিনিও সংশ্লিষ্ট সবার সহযোগিতা চান।

প্রকাশিত : ১৭ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

১৭/০২/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

প্রথম পাতা



ব্রেকিং নিউজ: