কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৪ ডিসেম্বর ২০১৬, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

আইজিসিসিতে মেহরীনের গানে মুগ্ধ শ্রোতা

প্রকাশিত : ১৬ ফেব্রুয়ারী ২০১৫
আইজিসিসিতে মেহরীনের  গানে মুগ্ধ শ্রোতা

সংস্কৃতি ডেস্ক ॥ রাজধানীর ইন্দিরা গান্ধী সাংস্কৃতিক কেন্দ্রে (আইজিসিসি) বিশ্ব ভালবাসা দিবসের সন্ধ্যায় অনুষ্ঠিত হলো ‘মেহরীন এ্যান্ড আনাড়িস’ ব্যান্ডের সঙ্গীত সন্ধ্যা। দেড় ঘণ্টাব্যাপী অনুষ্ঠানে শিল্পী মেহরী বাংলা, হিন্দী, ইংরেজী মিলে মোট ১৫টি জনপ্রিয় গান পরিবেশন করে উপস্থিত দর্শক শ্রোতাদের মাতিয়ে তোলেন। অনুষ্ঠানে শিল্পীকে বিভিন্ন বাদ্যযন্ত্রে সহযোগিতা করেন কিবোর্ডে সাফায়েত ইসলাম, ড্রামসে রুমি রহমান, বেজ গিটারে আসিফ আব্দুল্লাহ তাপস এবং গিটারে ছিলেন রাজীব রহমান।

সন্ধ্যায় অনুষ্ঠানের শুরুতে শিল্পী পরিবেশন করেন শাহ আব্দুল করিমের ‘বসন্ত বাতাসে সইগো’ শিরোনামের জনপ্রিয় গান। এরপর একে একে পরিবেশন করেন ‘আনাড়ি’, ‘একি আলোয়’, ‘হ্যাভেন...’ ‘রিমঝিম’, ‘আজ এক নতুন দিন’, ‘মনেরি সাজানো’, ‘ঢাকা’, ‘লাভ উইল..’, ‘তুমি আছো বলে’, ‘কাজল’, ‘ওমেন ইন লাভ’, ‘মাস্ত কালেন্ডার’ এবং ‘রাজ কুমার’ শিরোনামের গানগুলো। উপস্থিত দর্শক শ্রোতার মুগ্ধ হয়ে উপভোগ করেন মেহরীনের অনবদ্য পরিবেশনা।

প্রসঙ্গত, শিল্পী মেহরীন ১৯৯৪ সালে ‘মেহরীন এ্যান্ড আনাড়িস’ ব্যান্ড দল গড়ে তোলেন। মেহরীন সঙ্গীত পরিবারের সন্তান। ঢাকায় জন্ম নেয়া এই শিল্পী একাধারে ধ্রুপদি সঙ্গীত, স্থানীয় বাংলা পপ গান বিশেষ করে বাংলা জাজ, বাংলা সাম্বা প্রভৃতি গানে পারদর্শী। তিনি ৭ বছর বয়স থেকে ওস্তাদ মিথুন দের কাছে ধ্রুপদি সঙ্গীতে তালিম নেন। মেহরীনের প্রথম এ্যালবাম ‘আনাড়ি’ প্রকাশ হয় ২০০০ সালে। এ এ্যালবামের মাধ্যমে বাংলা গানের জগতে পপ গানের ধারা চালু হয়। ২০০৮ সালে মেহরীন কলকাতার ব্যান্ড হান্ট রিয়েলিটি শোর মাধ্যমে ‘দি ব্যান্ড ওয়াগন’ শীর্ষক ডিসটিঙ্কশন লাভ করেন। তিনি নিয়মিতভাবে বাংলাদেশের বিভিন্ন স্যাটেলাইট চ্যানেল ছাড়াও আন্তর্জাতিক টিভি চ্যানেলে পারফর্ম করেন। এর মধ্যে ইএসপিএন, ইটিভি বাংলা, জিবাংলা, তারা মিউজিক এবং সাউথ এশিয়ান চ্যানেল অন্যতম। এছাড়াও তিনি রেডিও কলকাতা, বিবিসি বাংলা বেতারে গান গেয়ে থাকেন। এ পর্যন্ত যে সব এ্যালবাম প্রকাশ হয়েছে সে গুলো হলো, ২০০২ সালে ‘দেখা হবে’, ২০০৪ সালে ‘মনে পড়ে তোমায়’, ২০০৫ সালে ‘ভালবাসার গান’, ২০০৬ সালে ‘ডন্ট ফরগেট মি’, ২০০৮ সালে ‘তুমি আছো বলে’ প্রভৃতি। সঙ্গীতে বিশেষ অবদানের স্বীকৃতি হিসেবে মেহরীন বেশ কয়েকটি পুরস্কার পেয়েছেন। এর মধ্যে ২০১০ সালে পাওয়া সিটিসেল চ্যানেল আই এ্যাওয়ার্ড, বাচসাস এ্যাওয়ার্ড এবং ক্র্যাব এ্যাওয়ার্ড অন্যতম।

প্রকাশিত : ১৬ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

১৬/০২/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: