আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৬ ডিসেম্বর ২০১৬, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, মঙ্গলবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

টাকা না পেয়ে উখিয়ার ছাত্রকে মালয়েশিয়ায় পিটিয়ে হত্যা

প্রকাশিত : ১৬ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

স্টাফ রিপোর্টার, কক্সবাজার ॥ মুক্তিপণের টাকা যথাসময়ে না পেয়ে উখিয়া সোনারপাড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের ৭ম শ্রেণীর ছাত্র মোঃ নুরুল ইসলামকে (১৪) মালয়েশিয়ার বন্দিশালায় পিটিয়ে খুন করা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। ঐ শিশু মোহাম্মদ শফির বিলের দিনমজুর এখলাছ মিয়ার পুত্র। গত বছরের ২২ ডিসেম্বর দালাল শফিকুর রহমানসহ সংঘবদ্ধ মানব পাচারকারী দলের সদস্যরা স্কুলছাত্র নুরুল ইসলামকে ফুসলিয়ে সাগর পথে মালয়েশিয়ায় পাচার করে দেয়। গরিব পিতা এখলাছ মিয়া সহায় সম্পত্তি বিক্রি করে পাচারকারীদের হাতে ১ লাখ ৭০ হাজার টাকা প্রদান করে। বাকি ৩০ হাজার টাকা যথাসময়ে দিতে না পারায় তাকে মালয়েশিয়ায় পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে বলে ঐ ছাত্রের বড় ভাই আব্দুর রহিম শনিবার রাতে উখিয়া থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে। এদিকে মোহাম্মদ শফির বিল গ্রামের শফিকুর রহমান, তার ছেলে মালয়েশিয়া প্রবাসী মোঃ শাহ আলম, আব্দুল হক ও তার স্ত্রী খালেদা বেগম দীর্ঘদিন ধরে বিভিন্ন গ্রাম থেকে স্কুল, কলেজ ও মাদ্রাসা পড়ুয়া ছাত্রদের ফুঁসলিয়ে নতুবা অপহরণ করে সাগর পথে মালয়েশিয়ায় পাচার করে আসছে বলে অভিযোগ রয়েছে। মোহাম্মদ শফির বিল এলাকার ছৈয়দ আলম প্রকাশ হাফেজ, চেপটখালীর ফয়েজুর রহমান সিকদার, আবুল কালাম, জালিয়া পালংয়ের লাল বেলাল, কালা বেলাল ও সোনাইছড়ির আবু ছিদ্দিক এ কাজে সহায়তা করে থাকে বলে অভিযোগ রয়েছে।

ছাত্রী ৬ দিনেও উদ্ধার হয়নি

বসতগৃহের দরজা ভেঙ্গে কমান্ডো স্টাইলে অপহরণ করে নিয়ে যাওয়া কলেজ ছাত্রীকে ৬ দিনেও উদ্ধার এবং দুর্বৃত্তদের কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ। মঙ্গলবার রাতে উখিয়ার দুবাই প্রবাসী নাজির হোসেনের এলএলবি পড়ুয়া কন্যাকে তুলে নিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা। তাদের বাধা দিতে গেলে অপহৃত ছাত্রীর মা ফরিদা ইয়াছমিনকেও মারধর করেছে সন্ত্রাসীরা। উখিয়া থানায় দায়েরকৃত মামলায় অপহৃতার মা ফরিদা ইয়াছমিন যেসব সন্ত্রাসীকে চিনতে পেরেছেন, তাদের নাম এজাহারে উল্লেখ করেছেন বলে জানা গেছে।

প্রকাশিত : ১৬ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

১৬/০২/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

দেশের খবর



ব্রেকিং নিউজ: