মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
৯ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শুক্রবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

আজ উন্মাদনার পাক-ভারত লড়াই

প্রকাশিত : ১৫ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ বিশ্বজুড়ে অগণিত ক্রিকেটপ্রেমীর চোখ আজ আটকে থাকবে এ্যাডিলেড ওভালে। যেখানে ১১তম বিশ্বকাপ মিশনে নিজেদের প্রথম দ্বৈরথেই মুখোমুখি চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ভারত ও পাকিস্তান। ৪৪ দিন, ৪৯টি ম্যাচে শ্রেষ্ঠত্বের লড়াইয়ে ১৪টি দল, অথচ এই একটি ম্যাচের জন্য কী রুদ্ধশ্বাস অপেক্ষা ...! গ্যালারি ও দূরদর্শনের পর্দা মিলে ১.৩ মিলিয়ন বা ১শ’ ৩০ কোটি মানুষ প্রত্যক্ষ করবে উন্মাদনার পাক-ভারত লড়াই। বিশ্বকাপ ক্রিকেটের ইতিহাসে যা হবে নতুন ইতিহাস।

উড়ন্ত সূচনা করেছে দুই স্বাগতিক অসি ও কিউইরা। রবিবার প্রথম দিনের প্রথম ম্যাচে শ্রীলঙ্কাকে উড়িয়ে দিয়েছে সহআয়োজক নিউজিল্যান্ড। ক্রাইস্টচার্চে লঙ্কানদের ৯৮ রানের বিশাল ব্যবধানে হারায় ব্রেন্ডন ম্যাককুলামের দল। মেলবোর্নে ইংলিশদের নিয়ে ছেলেখেলায় মেতে ওঠে অসিরা। উড়ন্ত শুরুর পথে শিরোপার দাবিদার অস্ট্রেলিয়া তুলে নেয় ১১১ রানের বিশাল জয়। একপেশে ম্যাচে আকর্ষণ ছড়ান দু’দলের দুই তারকা। ব্যাট হাতে এবারের আসরের প্রথম সেঞ্চুরি হাঁকান অসি ওপেনার এ্যারন ফিঞ্চ। আর হারা ম্যাচে বল হাতে হ্যাটট্রিক করেন প্রতিপক্ষ ইংলিশ পেসার স্টিভেন ফিন!

অস্ট্রেলিয়া চারবারের চ্যাম্পিয়ন, দুইবারে ফাইনালিস্ট, র‌্যাঙ্কিংয়ের এক নম্বর দল, ঘরের মাটিতে এবার হট-ফেবারিট তারা। প্রথম ম্যাচেই তার স্বাক্ষর রাখল জর্জ বেইলির দল। অন্যদিকে নিউজিল্যান্ডের গল্পটা দারুণ। বিশ্বকাপের মতো বড় আসরে ‘ব্ল্যাক ক্যাপসদের’ দৌড় হয় কোয়ার্টার, নয় তো সেমি পর্যন্ত। অতীতে বার বার এমনটাই দেখা গেছে। শিরোপার দৌড়ে এবারের মতো ফেবারিট তারা কখনই ছিল না! গত কিছুদিন ব্রেন্ডন ম্যাককুলাম, কোরি এ্যান্ডরসন, কেন উইলিয়ামসন, টিম সাউদিরা মিলে স্বপ্নের ক্রিকেট খেলছে। সাবেক কিউই অধিনায়ক স্টিফেন ফ্লেমিং যেমন এখনই অস্ট্রেলিয়া-নিউজিল্যান্ড ফাইনাল দেখছেন। গ্রেট থেকে শুরু করে সাধারণ বিশ্লেষক সবাই এবার অস্ট্রেলিয়া-দক্ষিণ আফ্রিকার পরই নিউজিল্যান্ডকে ফেবারিটের তালিকায় রাখছে।

শিরোপা কোন দলের হাতে উঠবে? উত্তরটা এখনও দূরের পথ। তবে সকাল যেমন দিনের পূর্বাভাস দেয়, প্রথম ম্যাচে শক্তিধর লঙ্কানদের উড়িয়ে দিয়ে দারুণ কিছুর ইঙ্গিতই দিয়ে রাখল নিউজিল্যান্ড। সবাই দেখেছেন, এক তরফা দুটি ম্যাচ নিয়ে খুব বেশি বলার নেই। কোন সেঞ্চুরি না থাকার পরও নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৬ উইকেটে কিউদের ৩৩১ রানের পাহাড়ে তুলে নেন এ্যান্ডারসন (৪৬ বলে ৭৫), ম্যাককুলাম (৪৯ বলে ৬৫) ও উইলিয়ামসন (৬৫ বলে ৫৭)। এরপর সমন্বিত প্রয়াসে এশিয়া কাপ ও টি২০’র চ্যাম্পিয়ন লঙ্কানদের ২৩৩ রানে গুড়িয়ে দেয়া। ২টি করে উইকেট নেন টিম সাউদি, ট্রেন্ট বোল্ট, এ্যাডাম মিলনে, ড্যানিয়েল ভেট্টোরি ও ম্যাচের নায়ক কোরি এ্যান্ডরসন।

মেলবোর্নে ইংলিশদের পাত্তাই দেয়নি অসিরা। এবারের বিশ্বকাপের প্রথম সেঞ্চুরি তুলে নেন এ্যারন ফিঞ্চ। ড্যাশিং ওপেনারের ১২৮ বলে ১৩৫, গ্লেন ম্যাক্সওয়েলের ৪০ বলে ৬৬ ও অধিনায়ক জর্জ বেইলির ৬৯ বলে ৫৫ রানের ওপর ভর করে ৯ উইকেটে ৩৪২ রানের বিশাল স্কোর গড়ে অস্ট্রেলিয়া। হারা ম্যাচে সান্ত¡না বিশ্বকাপের সপ্তম বোলার হিসেবে হ্যাটট্রিক করেন ফিন। জীবনের প্রথম বিশ্বকাপে ইনিংসের শেষ ওভারের (৫০তম) শেষ তিন বলে হ্যাডিন, ম্যাক্সওয়েল ও জনসনকে ফিরিয়ে দেন তিনি! জবাবে মিচেল স্টার্কের বোলিং তোপে (৫/৩৩) ২৩১ রানে গুটিয়ে যায় ইংল্যান্ড। অস্ট্রেরিয়ার ১১১ রানের দারুণ জয়ে নায়ক সেঞ্চুরিয়ান ফিঞ্চই।

ফেরা যাক আজকের ভারত-পাকিস্তান উন্মাদনার ম্যাচে। দু’দল মোট ১২৬ ওয়ানডেতে মুখোমুখি হয়েছেÑ যেখানে ভারতের ৫০টির বিপরীতে পাকিদের জয় ৭২ ম্যাচে, সাফল্য ৫৯.০১ ভাগ। তার মানে ওয়ানডেতে মহেন্দ্র সিং ধোনিদের তুলনায় এগিয়ে মিসবাহ-উল হকের দল। এই তথ্যে পাকিস্তানী ভক্তদের উল্লসিত হওয়ার কিছু নেইÑ ১৯৯২ থেকে এ পর্যন্ত বিশ্বকাপে পাঁচবার মুখোমুখি হয়ে শত্রু দেশের বিপক্ষে জয় নেই পাকিদের! ১৯৯২-এ ৪৩ রানে হারলেও শেষ পর্যন্ত ট্রফি জয় করে ইতিহাস গড়েছিল ইমরান খানের পাকিস্তান। ১৯৯৬Ñএ ৩৯ রানে, ১৯৯৯ সালে ৪৭ রানে, ২০০৩ বিশ্বকাপে ৬ উইকেটের পর গতবার (২০১১) সেমিফাইনালে ভারতের কাছে ২৯ রানে হারে শহীদ আফ্রিদির পাকিস্তান।

প্রকাশিত : ১৫ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

১৫/০২/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

প্রথম পাতা



ব্রেকিং নিউজ: