কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৪ ডিসেম্বর ২০১৬, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

পরিস্থিতির উন্নতি হচ্ছে ॥ প্রতিরোধে জনসম্পৃক্ততা বাড়ছে

প্রকাশিত : ১৫ ফেব্রুয়ারী ২০১৫
  • সাহসী ২৫ পুলিশ সদস্যকে পুরস্কৃত করলেন আইজিপি

স্টাফ রিপোর্টার ॥ বিএনপির ডাকা দেশব্যাপী চলমান অবরোধ-হরতালে নাশকতা অনেকটাই নিয়ন্ত্রণে চলে এসেছে। দেশের সার্বিক পরিস্থিতি এখন অনেক ভাল। দিন দিন পরিস্থিতির উন্নয়ন ঘটছে। নাশকতাকারীদের গ্রেফতারে দেশব্যাপী বিশেষ সাঁড়াশি অভিযান চলছে। অভিযানের পাশাপাশি নাশকতাকারীরা জনতা ও পুলিশের কাছে হাতেনাতেও ধরা পড়ছে। ধরা পড়া নাশকতাকারীদের অধিকাংশই বিএনপি-জামায়াত, শিবির, যুবদল, ছাত্রদল নেতাকর্মী ও ভাড়াটে সন্ত্রাসী। গ্রেফতারকৃতরা জবাববন্দিতে নাশকতার নির্দেশদাতাদের নাম প্রকাশ করছে। প্রকাশিত নামের তালিকা তৈরি করে গ্রেফতার অভিযান চলছে। ঢালাওভাবে বা বিনাদোষে কাউকে আটক বা গ্রেফতার করা হচ্ছে না। নাশকতা রোধে পুলিশের পাশাপাশি দিন দিন জনগণের সম্পৃক্ততা বাড়ছে।

শনিবার পুলিশ সদর দফতরে চলমান অবরোধ-হরতালে নাশকতারীদের হাতেনাতে গ্রেফতারকারী সাহসী পুলিশ সদস্যদের মধ্যে ২৫ জনকে পুরস্কৃত করে পুলিশ মহাপরিদর্শক একেএম শহীদুল হক এসব কথা বলেন। তিনি আরও বলেন, বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে ২৫ জনকে পুরস্কার হিসেবে মোট সাড়ে ৫ লাখ টাকা দেয়া হয়েছে। পুরস্কারপ্রাপ্তদের মধ্যে ঢাকা ও নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশের এক মহিলা সদস্যসহ ২৫ জন রয়েছেন। পর্যায়ক্রমে নাশকতাকারীদের হাতেনাতে গ্রেফতারকারী অন্যান্য পুলিশ সদস্যদেরও পুরস্কৃত করা হবে।

তিনি আরও বলেন, নাশকতা প্রতিরোধে পুলিশকে আরও উৎসাহ যোগাতেই এমন আয়োজন। পুলিশ মহাপরিদর্শক গত ১১ ফেব্রুয়ারি রাতে নারায়ণগঞ্জ জেলার ফতুল্লা থানাধীন লামাপাড়ার লিংকরোডে পুলিশকে লক্ষ্য করে পেট্রোলবোমা ছুড়ে মেরে মোটরসাইকেলে করে পালানোর সময় সাহসিকতার সঙ্গে ছাত্রদলের দুই বোমাবাজ রফিকুল ইসলাম ও গাজীকে দৌড়ে ধরে ফেলায় সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) ফরিদা খানম টগরের বিশেষ প্রশংসার করেন।

পুলিশ মহাপরিদর্শক বলেন, বিএনপির ডাকা দেশব্যাপী টানা অবরোধ-হরতালের চল্লিশ দিন পার হচ্ছে। অবরোধ যানবাহন ভাংচুর, অগ্নিসংযোগ, চোরাগোপ্তা হামলার ঘটনা ঘটেছে। এতে পুলিশসহ নানা শ্রেণী-পেশার বহু মানুষ হতাহত হয়েছেন। হতাহতদের সরকারের তরফ থেকে নানাভাবে সহায়তা করা হচ্ছে। পুলিশ সদস্য শামীম মিয়ার মৃত্যু হয়েছে। তাকে আর্থিক সহায়তা দিতে প্রধানমন্ত্রীর দফতরে একটি দরখাস্ত জমা দেয়া হয়েছে। পুলিশের তরফ থেকেও শামীমকে সহায়তা করা হবে। পাশাপাশি অন্যান্য সুযোগ-সুবিধা পাবে নিহতের পরিবার।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ঢালাওভাব বা বিনাদোষে কাউকে আটক বা গ্রেফতার করা হচ্ছে না। তারপরও কোন পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে গ্রেফতার বাণিজ্যের অভিযোগ উঠলে বিষয়টি গুরুত্বের সঙ্গে তদন্ত করা হবে। নাশকতায় জড়িতদের অধিকাংশই গ্রেফতার হয়েছে। চোরাগোপ্তা হামলাকারীদের বিষয়ে গোয়েন্দা তথ্য সংগ্রহ চলছে। তাদের গ্রেফতার করা সম্ভব হলে নাশকতা একেবারেই কমে যাবে। তাদের গ্রেফতারে নানামুখী তৎপরতা ও কৌশলী অভিযান চলছে।

সাংবাদিকদের অপর এক প্রশ্নের জবাবে পুলিশ মহাপরিদর্শক বলেন, বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার কাছে খাবার পাঠানোর ওপর কোন কড়াকড়ি আরোপ করা হয়নি। নিয়মিত বিএনপি চেয়ারপার্সনের কার্যালয়ে খাবার যাচ্ছে। তিনি নিয়মিত খাওয়া-দাওয়া করছেন। বিএনপি চেয়ারপার্সন দিব্যি সুস্থ এবং স্বাভাবিক রয়েছেন। সংবাদ সম্মেলনে ডিএমপি কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়াসহ উর্ধতন পুলিশ ও গোয়েন্দা কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

প্রকাশিত : ১৫ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

১৫/০২/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

প্রথম পাতা



ব্রেকিং নিউজ: