আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৬ ডিসেম্বর ২০১৬, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, মঙ্গলবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

দৃষ্টিতে দুই তারকা আফ্রিদি-কোহলি

প্রকাশিত : ১৫ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ ‘স্নায়ুযুদ্ধ হলেও খেলাটা শেষ পর্যন্ত ক্রিকেটই। ফল পেতে তাই মাঠে খেলোয়াড়দের সেরাটা দিতে হবে। প্রত্যেককে পারফর্ম করতে হবে নিজের জায়গা থেকে।’- বিশ্বকাপে উন্মাদনার ম্যাচ নিয়ে পাকিস্তান অধিনায়ক মিসবাহ-উল হক। নিজের জায়গা থেকে দৃশ্যপট বদলে দেয়ার মতো একাধিক পারফর্মার আছে দুই দলেই। অস্ট্রেলিয়ার গতিময় উইকেটে বল হাতে ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করতে দীর্ঘদেহী পাকিস্তানী পেসার মোহাম্মদ ইরফান, ব্যাট হাতে দুর্দান্ত ফর্মে থাকা মিসবাহ। ভারতের হয়ে ঠাণ্ডা মাথার খুনী ‘ক্যাপ্টেন কুল’ মহেন্দ্র সিং ধোনি, তরুণ তুর্কী অলরাউন্ডার স্টুয়ার্ট বিনি। তবু বিশেষ দৃষ্টি থাকবে শহীদ আফ্রিদি ও বিরাট কোহলির ওপর। দুই তারকা নিজেদের দিনে কি করতে পারেন, সেটি নতুন করে বলার অপেক্ষা রাখে না। আফ্রিদি ‘বুম বুম’, বল হাতে ঘূর্ণিবলের মায়াবী ঘাতক, ওয়ানডে ইতিহাসেরই অন্যতমসেরা অলরাউন্ডার তিনি। টুর্নামেন্ট শুরুর আগে ঘোষণা দিয়েছেন পয়ত্রিশ ছোঁয়া (৩৪ বছর ৩৫১ দিন) পাক ক্রিকেটারের এটিই হবে শেষ বিশ্বকাপ। গত দশ আসরে পাঁচবার মুখোমুখি হয়ে শত্রুদেশ ভারতের কাছে হারতে হয়েছে প্রতিবার। বিদায়ের আগে ইতিহাসটাকে বদলে দিতে চাইবেন আধুনিক পাকিস্তানের সর্বশেষ স্বীকৃত তারকা। সামর্থ্য তার ভালমতোই রয়েছে। খুব বেশি পেছনে যেতে হবে না। গত এশিয়া কাপে মুখোমুখি সর্বশেষ ম্যাচে ব্যাট হাতে জ্বলে উঠেছিলেন আফ্রিদি। ঢাকায় ভারতের বিপক্ষে সেদিন ২৪৯ রানের জয়ের লক্ষ্যে ২ বল বাকি থাকতে ১ উইকেটের নাটকীয় জয় পেয়েছিল পাকিস্তান। সাত নম্বরে নেমে ১৮ বলে ২ চার ও ৩ ছক্কায় অপরাজিত ৩৪ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলে জিতিয়েছিলেন এই আফ্রিদি। ৩৯১ ওয়ানডে, ১৯৯৬ থেকে ১৯ বছরের ক্যারিয়ারে অসংখ্যবারই এমন কা- করেছেন আফ্রিদি। তার চেয়েও গুরুত্বপূর্ণ সম্প্রতি ব্যাট হাতে দারুণ ছন্দে রয়েছেন তিনি।

বিরাট কোহলিকে বলা হয় আগামীর শচীন। দেড় শ’ কোটি ভারতবাসী তার মাঝে বিদায়ী ক্রিকেট দেবতার ছায়া দেখেন। মাত্র ২৬ বছর বয়সে দেড় শ’ ওয়ানডের ক্যারিয়ারে দলকে অনেক সাফল্য এনে দিয়ে ভারতীয় ক্রিকেটপ্রেমীর মনে জায়গা করে নিয়েছেন ক্রেজি কোহলি। ব্যাটা হাতে সামর্থ্য প্রমাণের কিছু নেই। তবে অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে এবার শিরোপা ধরে রাখার পথে কঠিন চ্যালেঞ্জের মুখে ছন্দহীন ভারত, সেই কঠিন চ্যালেঞ্জটাকেই নিজের কাঁধে নিতে হবে তাকে। ৫২ গড়ে রান ৬,২৩২ সেঞ্চুরি ২৫টিÑ অনেকেই বলছেন ভবিষ্যতে শচীনের মতো ব্যাটিংয়ের অনেক রেকর্ড ভেঙ্গে দেবেন কোহলি। নিজের দিনে যে কোন প্রতিপক্ষের বোলিং তছনছ করে দেয়ার সামর্থ্য রয়েছে তার। ভক্তরা অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে টেস্ট সিরিজের কথা নিশ্চই ভুলে যাননি। সিডনি হয়ে এ্যাডিলেড কি কা-টাই না করেছেন। আট ইনিংসে কোহলির স্কোর দেখুন- ৪৬, ১৪৭, ৫৪, ১৬৯, ১, ১৯, ১৪১ ও ১১৫! কোহলি কি পারেন তা নিয়ে প্রশ্ন নেই। কিন্তু ভারত শঙ্কায় ওয়ানডেতে তার ফর্মহীনতা নিয়ে। টেস্টে আগুন জ্বলা পারফর্মেন্সের পর স্বল্পদৈর্ঘের ম্যাচে হঠাৎ করেই যেন চুপসে গেছেন। কার্লটন মিড ত্রিদেশীয় হয়ে প্রস্তুতি ম্যাচ- শেষ ছয় ওয়ানডে ইনিংসে সর্বোচ্চ ইনিংস ১৮! বাকি পাঁচ ম্যাচে ৯, ৪, ৩*, ৮ ও ৫!! জ্বলে ওঠার মোক্ষম সুযোগ আজই। অফ-ফর্ম কাটিয়ে যদি ঠিকই ঝলসে ওঠেন, তবে কপাল পুড়বে পাকিদের। নিজের দিনে কোহলিকে থামায় সাধ্য কার!

প্রকাশিত : ১৫ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

১৫/০২/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: