মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১০ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

কানাডা শোকেস উদ্বোধনকালে বাণিজ্যমন্ত্রী

প্রকাশিত : ১৫ ফেব্রুয়ারী ২০১৫
  • কোন ষড়যন্ত্র উন্নয়ন প্রক্রিয়া রুখতে পারবে না

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ কোন ষড়যন্ত্র বাংলাদেশের উন্নয়ন প্রক্রিয়াকে রুখতে পারবে না বলে জানিয়েছেন বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ।

শনিবার দুপুরে রাজধানীর হোটেল সোনারগাঁওয়ে ‘কানাডা শোকেস-২০১৫’ উদ্বোধনকালে তিনি এ কথা জানান। ঢাকায় কানাডীয় হাইকমিশন এবং বাংলাদেশ-কানাডা চেম্বার অব কমার্স এ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির (ক্যানচেম) যৌথ উদ্যোগে এ প্রদর্শনীর আয়োজন করা হয়।

বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ বলেন, কানাডা ও বাংলাদেশের বাণিজ্য সম্পর্ক চমৎকার। এ সুযোগকে কাজে লাগাতে হবে। বাংলাদেশের প্রায় অধিকাংশ পণ্য কানাডায় শুল্কমুক্ত প্রবেশাধিকার পাচ্ছে। দেশটিতে বাংলাদেশ ১ দশমিক ৯ বিলিয়ন মার্কিন ডলার রফতানি করছে।

১৯৭২ সালের ১৪ ফেব্রুয়ারি বাংলাদেশকে কানাডা স্বীকৃতি দেয় উল্লেখ করে তিনি বলেন, ওই সময় আমরা ছিলাম শূন্য। কিন্তু আজ বাংলাদেশ অর্থনৈতিকভাবে বলীয়ান। এই শক্তি এনে দিয়েছে ব্যবসায়ীরা।

‘তাদের সহযোগিতায় বাংলাদেশ আর নিম্ন আয়ের দেশ থাকবে না। উন্নত দেশে পরিণত হবে। আশা করি ২০২১ সালের মধ্যেই মধ্য আয়ের দেশ হবে বাংলাদেশ’ যোগ করেন মন্ত্রী।

দেশের বর্তমান পরিস্থিতি তুলে ধরে বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, সন্ত্রাসী কর্মকা-ের কারণে ব্যবসায়ী সমাজ এক ধরনের চরম অস্থিরতায় ভুগছেন। সুষ্ঠুভাবে ব্যবসা পরিচালনা করতে পারছেন না তারা। কিন্তু এ ধরনের কোন ষড়যন্ত্র দেশের উন্নয়ন প্রক্রিয়াকে রুখতে পারবে না। দেশ এগিয়ে যাবেই।সেমিনারে ঢাকায় নিযুক্ত কানাডিয়ান হাইকমিশনার বেনোয়া পিয়েরে লারামি বলেন, বাংলাদেশের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নের ভিত্তি স্থাপনে গুড গবর্নেন্স, শান্তি প্রতিষ্ঠা এবং গণতন্ত্রায়ণ প্রয়োজন।

এসব চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করে ২০২১ সালের মধ্যেই বাংলাদেশ নিম্ন থকে মধ্য আয়ের দেশে পরিণত হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি।

মি. লারামি বলেন, সুশাসন, অবকাঠামোগত এবং বিদ্যুত খাতে উন্নয়ন বিনিয়োগকারীদের বেসরকারী খাতে বিনিয়োগে উৎসাহিত করবে। যা তাদের নির্দিষ্ট লক্ষ্যে পৌঁছাতে সাহায্য করবে।

অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে ব্যবসায়ী শীর্ষ সংগঠন দ্য ফেডারেশন অব বাংলাদেশ চেম্বার অব কমার্স এ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির (এফবিসিসিআই) সভাপতি কাজী আকরাম উদ্দিন আহমেদ এবং কানাডা-বাংলাদেশ চেম্বার অব কমার্স এ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির সভাপতি মাসুদ রহমান উপস্থিত ছিলেন।

প্রকাশিত : ১৫ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

১৫/০২/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: