আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৭ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বুধবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

টেক ফিচার

প্রকাশিত : ১৪ ফেব্রুয়ারী ২০১৫
  • সাইনআউটের পরও ডেটা নেবে ফেসবুক

আইটি ডট কম ডেস্ক ॥ লগ আউট করার পরও ইন্টারনেটে ব্যবহারকারীর সব কর্মকা- সম্পর্কে ডেটা সংগ্রহ করবে ফেসবুক। শীর্ষ সোশাল মিডিয়াটির নতুন এই প্রাইভেসি পলিসিতে ব্যবহারকারীরা ‘সাইন আপ’ করছেন স্বয়ংক্রিয়ভাবে।

এক প্রতিবেদনে ব্রিটিশ দৈনিক ইন্ডিপেন্ডেট জানিয়েছে, ব্যবহারকারীর প্রোফাইল থেকে ডেটা সংগ্রহের পাশাপাশি এখন সাইট থেকে লগ-আউটের পরও ইন্টারনেটে অন্যান্য সব কর্মকা-ের ডেটা সংগ্রহ করবে ফেসবুক। কেবল ব্যবহারকারীর ইন্টারনেট ব্রাউজিং ডেটা সংগ্রহ করেই থামছে না ফেসবুক, ইনস্টাগ্রামের মতো অন্যান্য সেবা/অ্যাপগুলোর সঙ্গে ব্যবহারকারীদের ব্যক্তিগত ডেটাগুলো আদান-প্রদানও করবে সাইটটি। এক্ষেত্রে একমাত্র ব্যতিক্রম হবে হোয়াটসঅ্যাপ।

চলতি বছরের ৩০ জানুয়ারি থেকে কার্যকর হওয়া ওই প্রাইভেসি পলিসির ব্যাপারে ফেইসবুক ঘোষণা দিয়েছিল ২০১৪ সালের নবেম্বরে। নতুন প্রাইভেসি পলিসি সম্পর্কে ব্যবহারকারীদের নোটিফিকেশন আর ই-মেইল দিয়ে জানানো হয়েছে বলে দাবি ফেসবুকের। আসন্ন পরিবর্তন সম্পর্কে ব্যবহারকারীদের আলোচনার সুযোগ দিতে সাত দিনের ‘কমেন্ট পিরিয়ড’ আয়োজন করার কথাও জানিয়েছে সাইটটি। ব্যবহারকারীদের এই ব্রাউজিং ডেটা বিজ্ঞাপন দেয়ার কাজে ব্যবহার করা হবে বলে জানিয়েছে ফেসবুক। বিজ্ঞাপনগুলো ব্যক্তিকেন্দ্রিক করতে এবং বিরক্তিকর বিজ্ঞাপন এড়াতে এই ডেটা কাজে আসবে বলে দাবি সাইটটির। ফেইসবুকের আয়ের মূল উৎসই বিজ্ঞাপন। সর্বশেষ প্রান্তিকে ফেসবুকের যে বিপুল পরিমাণ মুনাফা হয়েছে তার সিংহভাগ এসেছে বিজ্ঞাপন থেকে। নতুন প্রাইভেসি পলিসি নিয়ে আপত্তি থাকলে ব্যবহারকারীরা প্রাইভেসি সেটিংসে কিছু পরিবর্তন এনে অনেক কিছুই এড়িয়ে যেতে পারবেন। চাইলে এই শেয়ারের বিষয়টি সম্পর্কে দ্বিমত পোষণ করে অপশনটি অফ করে দিতেও পারেন। তবে এটি সাধারণ নিয়মানুসারে অন থাকে।

অবজেক্ট ওরিয়েন্টেড প্রোগ্রামিং পিএইচপি

বর্তমান সময়ে পিএইচপি ডেভেলপারদের জন্য এবং পিএইচপিভিত্তিক ফ্রেমওয়ার্ক ও সিএমএসগুলো শেখার জন্য অবজেক্ট ওরিয়েন্টেড পিএইচপি অত্যাবশ্যক। সহজ ভাষায় অবজেক্ট ওরিয়েন্টেডদের কনসেপ্ট বুঝার জন্য, বুকবিডি সিরিজের সম্পাদনায় অবজেক্ট ওরিয়েন্টেড প্রোগ্রামিং বইটি বাজারে পাওয়া যাচ্ছে। ফ্রি অংশ ডাউনলোড করতে পারেন িি.িনড়ড়শনফ.রহভড় থেকে। বইটির সঙ্গে একটি ফ্রি সিডি রয়েছে। বইটি পড়তে পূর্বের কোন অবজেক্ট ওরিয়েন্টের জ্ঞান প্রয়োজন নেই। এই বইয়ে পিএইচপিতে অবজেক্ট ওরিয়েন্টেডের প্রয়োগ, মাইএসকিউলভিত্তিক ওয়েব অ্যাপ্লিকেশন তৈরি করা দেখানো হয়েছে। এছাড়াও বিশদভাবে আলোচনা করা হয়েছে কনস্ট্রাকটর, ইনহেরিটেন্স, পলিমরফিজম, এনক্যাপসুলেশন, অ্যাবস্ট্রাক এবং ইন্টারফেইস ইত্যাদি বিষয়গুলো। বইটি জব ওরিয়েন্টেড এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের সিলেবাস অনুযায়ী প্রণীত। প্রকাশনায় : জ্ঞানকোষ প্রকাশনী, মূল্য : ৩৭০ টাকা। বিজ্ঞপ্তি।

নতুন ডিজাইনে আসছে গুগল গ্লাস

আইটি ডট কম ডেস্ক ॥আলোচিত ‘গুগল গ্লাস’ প্রকল্প নিয়ে আবারও মাঠে নামছে ওয়েবজায়ান্ট গুগল। তবে এবার পুরো ডিভাইস ডিজাইন করা হবে নতুন করে। প্রকল্পের নেতৃত্ব দেবেন টনি ফ্যাডেল। মার্কিন টেক জায়ান্ট এ্যাপলের সাবেক সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট ও আইপড বিভাগের প্রধান টনি ফ্যাডেলের নেতৃত্বে ‘গুগল গ্লাস’ একেবারে নতুন করে ডিজাইন করা হচ্ছে বলে জানিয়েছে মার্কিন দৈনিক নিউইয়র্ক টাইমস। গুগল গ্লাসের প্রথম সংস্করণটির বিক্রি ও নির্মাণ বন্ধ করে দেয়া হয়েছে জানুয়ারি মাসে। এবার পুরো নির্মাণকাজ সম্পূর্ণ হওয়ার পরই বাজারজাত করা হবে ওই স্মার্টগ্লাস। ২০১১ সালে উন্মোচন করা হলেও ‘গুগল গ্লাস’ প্রযুক্তি জগতে আলোড়ন সৃষ্টি করে ২০১২ সালের মাঝামাঝি সময়ে। ডেভেলপার্স কনফারেন্সে স্মার্টগ্লাসটির সম্ভাব্য কার্যক্ষমতার প্রদর্শনী করে ডেভেলপার আর প্রযুক্তিভক্ত উভয় পক্ষের কাছ থেকেই ইতিবাচক সাড়া পেয়েছিল গুগল। ডিভাইসটির দুর্বল পারফর্মেন্স আর সম্ভাব্য নেতিবাচক প্রভাব নিয়ে ব্যাপক সমালোচনার মুখে মূল নির্মাতাদের অনেকেই প্রকল্পটি ত্যাগ করেন বলে জানিয়েছে নিউইয়র্ক টাইমস। তবে টনি ফ্যাডেল প্রকল্পটির হাল ধরায় আবারও আলোচনায় ফিরেছে ডিভাইসটি। প্রযুক্তিপণ্যের বাজারে ‘ফাদার অফ আইপড’ নামেই বেশি পরিচিত তিনি। এ্যাপল ছাড়ার পর থার্মোস্ট্যাট নির্মাতা প্রতিষ্ঠান নেস্ট ল্যাবস প্রতিষ্ঠা করেন ফ্যাডেল। গুগল ২০১৪ সালের জানুয়ারি মাসে নেস্ট ল্যাবস কিনে নেয়ার ফলে গুগলে যোগ দেন তিনি।

ফ্রি অফার নিয়ে এলো

ই-কমার্স সাইট

সুমন সাহা ॥ ই-কমার্স এই বিড়ম্বনা কিছুটা হলেও দূর করতে পেরেছে বলে মনে করি। মানুষ এখন ঘরে বসেই তার নিত্য ব্যবহার্য জিনিসপত্র সংগ্রহ বা ক্রয় করতে পারছে। বিক্রয় করতে পারছে। এজন্য ইতিমধ্যে আমাদের দেশে জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে বিভিন্ন ই-শপগুলো। এদের সঙ্গে যুক্ত হলো নতুন একটি প্রতিষ্ঠান িি.ভৎববঢ়ধনবহ.পড়স। মানে ফ্রি শপ। ইতিহাসের সবচেয়ে বড় ঋৎবব-এর গল্প এখন শুরু করছি। ফ্রি যত ছোটই একটা শব্দ হোক না কেন, এই ছোট শব্দটি মানুষকে যে কোন মুহুর্তেই আনন্দে ডুবিয়ে দিতে পারে। যার অভিজ্ঞতা আমার আপনার সবারই আছে। কিন্তু এই দুর্মূল্যের বাজারে আসল ফ্রি-এর বড়ই অভাব। তবে আমি এখন আপনাদের আসল ফ্রি-এর রাজ্য থেকে ঘুরিয়ে আনব। একদল তরুণ মিলে এই ওয়েবসাইটটার কাজ শুরু করেছেন। বাংলাদেশে তো এই প্রথমই এরকম কোন ই-কমার্স সাইট এলো, বিশ্বের এই প্রথম এরকম কোন ই-শপ হলো। চারদিকে শুধু ফ্রি আর ফ্রি। একটা কিনলে একটা ফ্রি, জোড়া শালিক, ধামাকা-৩০০ এবং একদম ফ্রি-এর মতো নানা রকমের ফ্রি-এর মাদুর বিছিয়ে আছে যেন এই সাইটটিতে। এ সাইটটিতে গিয়ে রাজার স্টাইলে বেছে নিতে পারবেন আপনার পছন্দের নিত্য নৈমিত্তিক সব জিনিস, আর হ্যাঁ অবশ্যই একদম ফ্রিতেই।

রুয়েটে অনুষ্ঠিত হলো ‘রোবো ফ্ল্যাশ মব’

জুনায়েদ আহমেদ, রুয়েট ॥ রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের সংগঠন রোবটিক সোসাইটি অব রুয়েটের উদ্যোগে ৮ ফেব্রুয়ারি ক্যাম্পাসে প্রথমবারের মতো রোবো ফ্ল্যাশ মবের আয়োজন করা হয়। এই রোবো ফ্ল্যাশ মব এ মূলত রোবটিক সোসাইটি অব রুয়েটের শিক্ষার্থীরা তাদের তৈরি বিভিন্ন লাইন ফলোয়ার রোবটের প্রদর্শনী করে এবং সেগুলো একটি ট্র্যাকে চালিয়ে দেখায়। ক্যাম্পাসে ক্লাস চলা অবস্থায় হঠাৎই শিক্ষার্থীরা তাদের রোবটগুলো ট্র্যাকে নিয়ে আসে এবং একে একে সেগুলো চালাতে থাকে। এতগুলো রোবটের পদচারণা দেখতে সে স্থানে সাধারণ ছাত্ররা ভিড় জমায়। মূলত ক্যাম্পাসে নবাগত ১৪ ব্যাচের ছাত্রছাত্রীদের কাছে প্রযুক্তির বার্তা পৌঁছে দেয়া এবং প্রযুক্তির প্রতি আগ্রহ ও ভালবাসা সৃষ্টির লক্ষ্যে এই উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়। রোবটিক সোসাইটি অব রুয়েটÑ সংগঠনটি প্রতিষ্ঠার সূচনালগ্ন থেকেই বাংলাদেশে রোবটিক চর্চার অবদান রেখে চলেছে। এই ব্যাপারে সংগঠনটির প্রতিষ্ঠাকালীন সভাপতি এবং যন্ত্রকৌশল বিভাগের প্রফেসর ড. মোঃ রোকনুজ্জামান বলেন, ‘একটা দেশের সার্বিক উন্নয়ন নির্ভর করে প্রযুক্তিগত দিক দিয়ে দেশটি কত উন্নত, আর সেটি নিশ্চিত করার প্রধান দায়িত্ব সেই দেশের ছাত্রসমাজের। মূলত সেই চিন্তাধারাকে সামনে রেখেই রোবটিক সোসাইটি অব রুয়েট কাজ করে যাচ্ছে, এবং সেই ধারাবাহিকতায় আজকের এই আয়োজন।অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন যন্ত্রকৌশল বিভাগের বিভাগীয় প্রধান প্রফেসর ড. মোঃ এমদাদুল হক, তড়িৎ কৌশল বিভাগের প্রফেসর ড. মোঃ আবদুল গফফার খান এবং রোবটিক সোসাইটি অব রুয়েটের সহ-সভাপতি প্রভাষক অমিত রয়।

বেশি সংখ্যক রোবট

থাকবে চীনে

২০১৭ সালের মধ্যে শিল্প কারখানায় ব্যবহৃত সবচেয়ে বেশি সংখ্যক রোবটের মালিক হবে চীন। ইন্টারন্যাশনাল ফেডারেশন অব রোবটিক্স (আইএফআর) জানিয়েছে, চীনের গাড়ি ও ইলেট্রনিক্স পণ্য নির্মাণ কারখানাগুলোতে রোবটের ব্যবহার যে হারে বাড়ছে, তাতে ২০১৭ সালের মধ্যে বিশ্বের অন্য যে কোন দেশের তুলনায় বেশি সংখ্যক রোবট থাকবে চীনে।

বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, সারা বিশ্বে প্রায় হাজার কোটি ডলারের রোবটিক্স বাজারে তুলনামূলকভাবে পিছিয়ে আছে চীন। প্রতি ১০ হাজার কর্মীর বিপরীতে গড়ে ৩০টি রোবট কাজ করছে চীনের শিল্প কারখানাগুলোতে।

সাম্প্রতিক বছরগুলোতে নতুন কারখানা তৈরির জন্য চীনকে বেছে নিয়েছে একাধিক আন্তর্জাতিক অটোমোবাইল নির্মাতা প্রতিষ্ঠান। পাশাপাশি চীনের কারখানায় ইলেকট্রনিক্স পণ্যের উৎপাদন হারও বেড়েছে।

‘প্রতিষ্ঠানগুলো উৎপাদন ক্ষমতা ও পণ্যের মান বাড়ানোর জন্য রোবটিক্সে বিনিয়োগ করতে বাধ্য হচ্ছে।’Ñ মন্তব্য করেছেন আইএফআর সাধারণ সম্পাদক গুদরুন লিতজেনবেয়ার্গার।

এখন চীনের অটোমোবাইল শিল্পে রোবটের ব্যবহার দ্রুত বাড়ছে। আগামী কয়েক বছরের মধ্যে ইলেকট্রনিক্স পণ্যের কারখানাগুলোতেও রোবট কর্মীর ব্যবহার খুব দ্রুত বৃদ্ধি পাবে বলে মন্তব্য করেছেন তিনি। তথ্যসূত্র: রয়টার্স

প্রকাশিত : ১৪ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

১৪/০২/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: