মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১১ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

বিএনপির আজ বিক্ষোভ

প্রকাশিত : ১৪ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

স্টাফ রিপোর্টার ॥ অবরোধের পাশাপাশি আজ বিক্ষোভ মিছিল করবে বিএনপি। সারাদেশের সকল থানা, উপজেলা, পৌরসভা ও জেলা সদরে এবং সকল মহানগরের প্রতি ওয়ার্ডে বিক্ষোভ মিছিল করবে। তবে সরকার বিএনপির দাবি মেনে না নিলে আগামীকাল রবিবার থেকে আবার হরতালের মতো কর্মসূচী আসতে পারে বলে জানিয়েছে বিএনপি। বিএনপির যুগ্ম-মহাসচিব সালাউদ্দিন আহমেদ বৃহস্প্রতিবার সারাদেশে বিক্ষোভ কর্মসূচী ঘোষণা করেন।

শুক্রবার এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, জনগণ অচিরেই অবৈধ সরকারের বিরুদ্ধে আইন অমান্য ও অসহযোগ আন্দোলন শুরু করতে বাধ্য হবে। অবৈধ, অনির্বাচিত, দখলবাজ আওয়ামী সরকার রাষ্ট্রশক্তির চূড়ান্ত অপব্যবহারের মাধ্যমে বাংলাদেশ নামের এই জনপদকে অবরুদ্ধ করে রেখেছে। অবৈধ সরকারের এহেন শ্বেতসন্ত্রাসের বিরুদ্ধে প্রতিবাদমুখর জনগণ অচিরেই আইন অমান্য ও অসহযোগ আন্দোলন শুরু করতে বাধ্য হবে।

অজ্ঞাত স্থান থেকে পাঠানো এক বার্তায় তিনি বলেন, আওয়ামী নেতা-মন্ত্রীরা প্রকাশ্য জনসমাবেশে আন্দোলনকারীদের এনকাউন্টার এবং ক্রসফায়ারে হত্যা করার প্রকাশ্য ঘোষণা দিয়ে যাচ্ছেন। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর বড় কর্তারাও প্রকাশ্যে সভা-সমিতি করে ক্রসফায়ারে হত্যার কৃতিত্ব দাবি করে বেড়াচ্ছেন। এসমস্ত বিকৃত মস্তিষ্কের নেতা-মন্ত্রী ও পুলিশ কর্মকর্তাদের ভবিষ্যৎ পরিণতি গণকারফিউ এবং গণপিটুনিতে নির্ধারিত হওয়ারসমূহ সম্ভাবনাকে উড়িয়ে দেয়া যায় না। এ ধরনের মানবাধিকার লঙ্ঘনের প্রকাশ্য দাম্ভিক ঘোষণা আগামীতে জাতীয় ও আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালতে বিচারের আওতায় আনা হবে উল্লেখ করেন।

এদিকে ঢাকা মহানগরের প্রতিটি থানায় ও ওয়ার্ডে শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভ কর্মসূচী পালনের জন্য নেতাকর্মীদের আহ্বান জানিয়েছেন বিএনপির ঢাকা মহানগরের আহ্বায়ক মির্জা আব্বাস ও সদস্য সচিব হাবিবুন্নবী খান সোহেল। শুক্রবার অজ্ঞাত স্থান থেকে পাঠানো এক বিবৃতিতে তারা নেতকর্মীদের প্রতি এ আহ্বান জানান। বলেন, গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের আন্দোলন এখন চূড়ান্ত পর্যায়ে উপনীত হয়েছে। এ অবস্থায় ২০-দলের নেতাকর্মীদের সর্বোচ্চ ত্যাগের মানসিকতা নিয়ে শেষ ধাপের আন্দোলনে আত্মনিয়োগ করতে হবে। সঙ্কট নিরসন করতে চাইলে খালেদা জিয়ার সঙ্গে সংলাপ করতে হবে বলেও সরকারী দলের প্রতি হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন।

আবারও গুলশান কার্যালয়ে খাবার প্রবেশে বাধা ॥ বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার কার্যালয়ে অবস্থানরত কর্মকর্তাদের জন্য পাঠনো খাবার কার্যালয়ে ঢুকতে দেয়নি বলে অভিযোগ করেছে বিএনপি। কার্যালয়ের ভেতরের অবস্থানরত বিএনপি চেয়ারপার্সনের প্রেস উইংয়ের কর্মকর্তা শামসুদ্দিন দিদার জনকণ্ঠকে বলেন, শুক্রবার দুপুর ১.৩০টার দিকে একটি ভ্যানে করে খাবার ও পানি নিয়ে যাওয়া হয় গুলশান কার্যালয়ের সামনে। কিন্তু পুলিশ এ সময় খাবার ঢুকতে না দিয়ে দাঁড় করিয়ে রাখে। এরপর তিনজন সাব ইন্সপেক্টরের নেতৃত্বে পুলিশের একটি দল ভ্যানচালকসহ খাবার গুলশান থানায় নিয়ে যায়। তিনি বলেন, বুধবার থেকে কার্যালয়ের লোকজন অভুক্ত অবস্থায় রয়েছে। বুধবার রাতের পর থেকে কোন খাবার কার্যালয়ে প্রবেশ করতে দেয়নি পুলিশ। তিনি বলেন, গুলশান কার্যালয়ে অবস্থানরত কেউ তো কারারুদ্ধ নয়। তাহলে পুলিশ খাবার নিয়ে যায় কোন অধিকারে। এ প্রশ্নে কোন উত্তর পুলিশ দেয়নি। তিনি বলেন, এভাবে খাবার নিয়ে পুলিশ তাদের রিজিক কেড়ে নিয়েছে।

প্রকাশিত : ১৪ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

১৪/০২/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

শেষের পাতা



ব্রেকিং নিউজ: