মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
৯ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শুক্রবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

পেট্রোলবোমায় সারাদশেে দগ্ধ আরও ৯

প্রকাশিত : ১৩ ফেব্রুয়ারী ২০১৫, ০২:০১ এ. এম.
  • তিন শিবিরকে গণপিটুনি

স্টাফ রিপোর্টার ॥ অবরোধের মধ্যে হরতালের মতো কর্মসূচীতেও সারাদেশে স্বাভাবিক অবস্থা ফিরে এসেছে। তবে চোরাগোপ্তা হামলার ভয়ে মানুষ খানিকটা আতঙ্কিত। আবার গণপিটুনির ভয়ে আতঙ্কিত বোমাবাজরাও। এদিকে ঢাকা, সাভার, নংসিংদী, সিলেট ও খুলনায় পৃথক পেট্রোলবোমা হামলায় মোট ৯ জন দগ্ধ হয়।

বৃহস্পতিবারও সিলেটের মেয়রের বাসায় বোমা হামলা করে পালানোর সময় শিবিরের তিন বোমাবাজ গণপিটুনির শিকার হয়েছে। একই দিন রাতে ঢাকার ধানম-ির স্টার কাবাবের সামনে ককটেল নিক্ষেপের ঘটনা ঘটে। এতে আহত হয় তিনজন। এদের মধ্যে একজনের অবস্থা ছিল গুরুতর। ওই দিন বনশ্রীতে পেট্রোলবোমায় বাসের হেলপার গুরুতর আহত হয়। শাহবাগ শিশু পার্কের সামনে ৬টি ককটেল ও দুটি পেট্রোলবোমাসহ চারজনকে আটক করে মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ।

সাভারে বাসে পেট্রোলবোমায় তিনজন দগ্ধ হয়। নরসিংদীর ভাটপাড়ায় পণ্যবাহী ট্রাকে পেট্রোলবোমা ছোড়ে দুর্বৃত্তরা। এ ঘটনায় চালকসহ তিনজন দগ্ধ হয়। খুলনার ফুলতলায় যাত্রীবেশী একদল দুর্বৃত্ত পেট্রোল ঢেলে বাসে আগুন দেয়। এতে বাসচালক টুকু শিকদার গুরুতর আহত হয়। ভৈরবে পার্কিং করা বাসে বোমা নিক্ষেপ করে পালিয়ে যাওয়ার সময় দুর্বৃত্তদের আটক করে পুলিশে দেয় জনতা।

অবরোধ-হরতালে সারাদেশের সঙ্গে ঢাকার দূরপাল্লার বাস, ট্রেন ও লঞ্চ চলাচল ছিল একেবারেই স্বাভাবিক। তীব্র যানজটে নাকাল রাজধানীবাসী। এদিকে দেশব্যাপী চলমান যৌথবাহিনীর অভিযানে স্কুল শিশুদের ব্যবহার করে অস্ত্র আনা-নেয়ার সময় নারায়ণগঞ্জ ও ঢাকা থেকে ৫ শিশু ও এক তরুণ, নারায়ণগঞ্জে এক মহিলা পুলিশ কর্মকর্তার হাতে ছাত্রদলের দুই বোমাবাজসহ দুই শতাধিক গ্রেফতার হয়েছে। গ্রেফতারকৃতদের মধ্যে নাশকতাকারী ও পেশাদার সন্ত্রাসী ছাড়াও তাদের মদদ, নির্দেশ, অর্থ ও আশ্রয়-প্রশ্রয়দাতা বিএনপি-জামায়াত-শিবিরের নেতাকর্মী রয়েছে। অভিযানে উদ্ধার হয়েছে অস্ত্র, পেট্রোলবোমা ও ককটেল।

ঢাকার চিত্র ॥ বৃহস্পতিবার অবরোধ-হরতালে রাজধানীতে ছিল তীব্র যানজট। মহাখালী, সায়েদাবাদ ও গাবতলী বাস টার্মিনাল থেকে স্বাভাবিক দিনের মতো দূরপাল্লার বাস ছেড়ে গেছে। কমলাপুর রেলস্টেশন থেকে ট্রেন আর সদরঘাট লঞ্চ টার্মিনাল থেকে ছেড়ে গেছে প্রচুর লঞ্চ। মানুষের মধ্যে অবরোধ-হরতালের কোন প্রতিক্রিয়া লক্ষ্য করা যায়নি। পুরান ঢাকার সিএমএম আদালতের সামনে বৃহস্পতিবার সকাল ৯টার দিকে দুটি ককটেলের বিস্ফোরণ ঘটায় হরতাল সমর্থকরা। তবে কোন হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। জনতা ধাওয়া করলে পালিয়ে যায় বোমাবাজরা। একই দিন রাতে ঢাকা ধানম-ির স্টার কাবাবের সামনে ককটেল নিক্ষেপের ঘটনা ঘটে। এতে আহত হয় তিনজন। এদের মধ্যে একজনের অবস্থা ছিল গুরুতর। ওই দিন বনশ্রীতে পেট্রোলবোমায় বাসের হেলপার গুরুতর আহত হয়। সাভারেও বাসে আগুনের ঘটনা ঘটে। এতে দুজন দগ্ধ হয়। ঢাবির রোকেয়া হলের সামনে ককটেল বিস্ফোরণে সাফি আলম (৩৫) নামে এক রিক্সাচালক গুরুতর আহত হয়। শাহবাগ শিশু পার্কের সামনে ৬টি ককটেল ও দুটি পেট্রোলবোমাসহ ৬ জনকে আটক করে মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ।

সাভার ॥ বৃহস্পতিবার রাতে বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোটের হরতাল চলাকালীন সাভারে ফরিদপুরগামী ‘জাকের’ পরিবহনের একটি নাইটকোচে পেট্রোলবোমা নিক্ষেপ করেছে দুর্বৃত্তরা। এ ঘটনায় তিনজন বাসযাত্রী আগুনে দগ্ধ ও আহত হয়েছে অন্তত ১০ জন। তাঁরা সবাই ফরিদপুর যাচ্ছিলেন।

সাভার ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের ইনচার্জ আবু জাফর জানান, রাত ৯টার দিকে ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের সাভারের উলাইলের ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের কাছে মধুমতি টাইলসের সামনে একটি বাসে আগুন জ্বলতে দেখে তারা দ্রুত সেখানে পৌঁছে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনেন। এ ঘটনায় আগুনে দগ্ধ তিনজন যাত্রী হাসমত আলী, জয়নাল মিয়া ও অজ্ঞাত একজনকে এনাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। বাকি ১০ যাত্রী জানালা দিয়ে লাফ দিয়ে নিচে পড়ে আহত হন। তাদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়। বাসটিতে ৩০-৩২ জন যাত্রী ছিলেন।

আগুনে দগ্ধ যাত্রী হাসমত জানান, পেট্রোলবোমা নিক্ষেপের পর মুহূর্তের মধ্যে বাসটিতে আগুন জ্বলে ওঠে এবং চালক বাসটি থামিয়ে দেন। যে যেভাবে পেরেছে বাস থেকে নেমে পড়েছে।

সাভার মডেল থানা পুলিশ ঘটনার পর পরই ঘটনাস্থলে যায় এবং জড়িতদের শনাক্ত করার চেষ্টা করছে বলে জানান থানার ডিউটি অফিসার।

নারায়ণগঞ্জ ॥ বুধবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে জেলার ফতুল্লা থানার লামাপাড়ার লিংক রোডে পেট্রোলবোমার ব্যাগ ফেলে মোটরসাইকেলে পালানোর সময় এক নারী পুলিশ কর্মকর্তা দুই বোমাবাজকে ধরে ফেলেন।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) ফরিদা খানম ওই এলাকায় দায়িত্ব পালন করছিলেন। এ সময় দুই বোমাবাজ মোটরসাইকেলযোগে দ্রুত সেখান দিয়ে যাচ্ছিল। পুলিশ সদস্যরা মোটরসাইকেলটিকে থামার জন্য সঙ্কেত দেয়। এ সময় মোটরসাইকেলের তিন আরোহীর মধ্যে পেছনে থাকা দুইজন দুটি ব্যাগ পুলিশের দিকে ছুড়ে মারে। ওই মহিলা পুলিশ কর্মকর্তা দুই বোমাবাজকে জাপটে ধরেন। মোটরসাইকেলের চালক পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়। পরে ব্যাগ থেকে দুটি পেট্রোলবোমা উদ্ধার হয়। গ্রেফতারকৃত বোমাবাজরা হলোÑ জেলা শহরের উত্তর মাসদাইর এলাকার হাজী আনোয়ার হোসেনের ছেলে রফিকুল ইসলাম (৩৮) ও একই এলাকার সবদার আলীর ছেলে গাজী (৩২)। তারা ছাত্রদলকর্মী।

এদিকে বুধবার বিকেলে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ফতুল্লা লঞ্চঘাটে ১০-১১ বছর বয়সী দুই শিশুর স্কুলব্যাগ থেকে একটি পিস্তল ও দুই রাউন্ড তাজা বুলেট উদ্ধার হয়। ওই ঘটনায় দুই শিশুসহ তিনজন গ্রেফতার হয়। গ্রেফতারকৃতদের তথ্য অনুযায়ী বৃহস্পতিবার বাড্ডার একটি বাড়ি থেকে গ্রেফতার হয় বশির, জিসান ও মাসুদ নামে তিন শিশু। তাদের কাছ থেকে উদ্ধার হয় তিনটি পিস্তল, পাঁচটি ম্যাগাজিন ও চার রাউন্ড তাজা বুলেট। গ্রেফতারকৃতদের ফতুল্লা থানায় দায়েরকৃত মামলা ছাড়াও বাড্ডা থানায় দায়েরকৃত অস্ত্র মামলায় গ্রেফতার দেখানো হয়েছে বলে জনকণ্ঠকে বলেন বাড্ডা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এমএ জলিল।

সিলেট ॥ মহানগরীর সাবেক মেয়র ও আওয়ামী লীগ সভাপতি বদর উদ্দিন আহমদ কামরানের বাসা লক্ষ্য করে বুধবার রাত ১০টার দিকে ককটেল হামলা করেছে অবরোধকারীরা। তবে কোন হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। পালানোর সময় জনতা তিন বোমাবাজকে ধরে গণপিটুনি দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করে। গ্রেফতারকৃতরা জামায়াত-শিবিরের রাজনীতির সঙ্গে জড়িত। তারা শিবিরের প্রশিক্ষিত বোমাবাজ, বোমা প্রস্তুত, মজুদ ও সরবরাহকারী। এছাড়া নগরীর বন্দরবাজারের করিম উল্লাহ মার্কেটের সামনে পুলিশের প্রিজনভ্যানে বোমা হামলা করে অবরোধকারীরা।

নরসিংদী ॥ পণ্যবাহী ট্রাকে পেট্রোলবোমা নিক্ষেপ করেছে দুর্বৃত্তরা। এতে চালকসহ তিনজন দগ্ধ হয়েছেন। বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৮টায় নরসিংদী-গাজীপুর সড়কের নরসিংদী সদর উপজেলার ভাটপাড়ায় এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায়, ঘোড়াশাল প্রাণ কোম্পানির পণ্যবাহী একটি ট্রাক নরসিংদীর পাঁচদোনায় যাওয়ার পথে ভাটপাড়া এলাকায় পৌঁছলে কয়েকজন দুর্বৃত্ত পেট্রোলবোমা ছুড়ে মারে। এতে চাঁদপুরের আলিমপাড়ার ওয়াসিম আহমেদের ছেলে ট্রাকচালক জাহিদ মিয়া (৫০), হেলপার চট্টগ্রামের ডাবলমুরিং এলাকার সেলিম মিয়া (৪০) ও মৌলভীবাজারের আলফু মিয়ার ছেলে প্রাণ কোম্পানির নিরাপত্তাকর্মী জুয়েল মিয়া (৩০) মারাত্মক দগ্ধ হন।

স্থানীয় লোকজন আহতদের উদ্ধার করে নরসিংদী জেলা হাসপাতালে ভর্তি করে। খবর পেয়ে দমকল বাহিনীর কর্মীরা ঘটনাস্থলে গিয়ে ৪০ মিনিট চেষ্টা চালিয়ে ট্রাকটির আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।

ভৈরব ॥ বৃহস্পতিবার রাতে ভৈরব স্টেডিয়াম এলাকায় পার্কিং করা একটি যাত্রীবাহী বাসে দুর্বৃত্তরা পেট্রোলবোমা নিক্ষেপ করে পালিয়ে যায়। এ সময় এলাকাবাসী দেখে ফেলে হামলাকারীদের ধাওয়া করে গণধোলাই দেয়। পুলিশ এসে তাদের থানা হেফাজতে নিয়ে যায়। হামলাকারীদের পেট্রোলবোমায় বাসটি পুড়ে যায়। আটককৃতরা হলোÑ সজল (২০) ও মনির (২১)। তাদের বাড়ি কুলিয়ারচর উপজেলার ছয়সূতি এলাকায়।

খুলনা ॥ ফুলতলায় যাত্রীবেশী দুর্বৃত্তরা পেট্রোল ঢেলে এটি বাসে আগুন দেয়। বৃহস্পতিবার রাত পৌনে ৮টার দিকে দামোদর প্রাইমারী স্কুলের কাছে এ ঘটনা ঘটে। এ সময় বাসচালক টুকু শিকদার (৩৫) আহত হন বলে জানা গেছে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, নগর পরিবহনের একটি বাস খুলনা থেকে ফুলতলায় যাওয়ার পথে বৃহস্পতিবার রাত পৌনে ৮টার দিকে দামোদর প্রাইমারী স্কুলের কাছে যাত্রী নামাচ্ছিল। এ সময় বাসে অবস্থানকারী যাত্রীবেশী তিন দুর্বৃত্ত চালকের নিকট থেকে বাসের চাবি কেড়ে নেয়। তারা ভয় দেখিয়ে যাত্রীদের বাস থেকে নামিয়ে দেয়। এরপর একটি ককটেল বিস্ফোরণ ঘটায় এবং বাসে পেট্রোল ঢেলে আগুন ধরিয়ে দিয়ে পালিয়ে যায়। খবর পেয়ে দমকল বাহিনীর সদস্যরা এসে আগুন নেভায়। পুলিশ ও বিজিবির সদস্যরাও ঘটনাস্থলে আসে। কিন্তু কাউকেই আটক করতে পারেনি। এ ঘটনার সময় বাসটির চালক টুকু শিকদার সামান্য আহত হন।

কক্সবাজার ॥ বুধবার রাত ৯টার দিকে জেলার পটিয়ার বড়উঠান দৌলতপুর এলাকায় একটি সিএনজিতে পেট্রোলবোমা মারে অবরোধকারীরা। এতে চালক আমজাদ হোসেন (২৬), যাত্রী ইদ্রিস (২০), সাজ্জাদুল আলম (২৪), আবদুর রহিম (২৩) ও আবুল কালাম (২২) দগ্ধ হন। আহতদের মধ্যে ইদ্রিস ও সাজ্জাদকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আহতদের বাড়ি কক্সবাজারের পেকুয়া উপজেলার বিভিন্ন গ্রামে।

ময়মনসিংহ ॥ বুধবার রাত দেড়টার দিকে শহরতলীর খাগডহর বাইপাস মোড়ে যানবাহনে বোমা হামলা করে দুই নাশকতাকারী। এ সময় জনতা, শ্রমিক ও পুলিশ বোমাবাজদের ধাওয়া করে। একপর্যায়ে বোমাবাজদের সঙ্গে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। পরে পুলিশ বাধ্য হয়ে দুই বোমাবাজকে গুলি চালিয়ে আহত করে গ্রেফতার করে। গ্রেফতারকৃত মেহেদী ও শরীফ মোল্লা বিএনপির কর্মী। তাদের কাছ থেকে ককটেল ও পেট্রোলবোমা উদ্ধার হয়। আহতদের ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

দিনাজপুর ॥ দিনাজপুর-গোবিন্দগঞ্জ মহাসড়কের ঘোড়াঘাট উপজেলার হরিপাড়া নামক স্থানে বৃহস্পতিবার সকালে হরতালকারীরা মালবোঝাই দুটি ট্রাক ভাংচুর করে।

এদিকে দেশব্যাপী যৌথবাহিনীর সাঁড়াশি অভিযানে রাজধানীর মহাখালী ওয়ারলেস গেট এলাকা থেকে তিন শিবিরকর্মীসহ ২৫ জন, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে তিনটি ককটেল ও একটি পেট্রোলবোমা, শাহজাহানপুরের খিলগাঁও রেলগেট থেকে ৫টি পেট্রোলবোমা, চট্টগ্রাম থেকে বাকলিয়া থানা যুবদলের আহ্বায়ক জসিমসহ ১০ জন, নারায়ণগঞ্জ থেকে জেলা ছাত্রদলের আহ্বায়ক মাসুকুল ইসলাম রাজীবসহ ১২ জন, ঢাকার সাভারের আশুলিয়া থেকে অর্ধডজন মামলার পলাতক আসামি জামায়াতের সেক্রেটারি বশির আহমেদ, নাটোর থেকে ছাত্রদল ও শিবিরের ৬ বোমাবাজ, সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলার বহুলী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ফিরোজ আলমের বাড়িতে নাশকতার উদ্দেশ্যে বোমা পেতে রাখার সঙ্গে জড়িত অভিযোগে পৌর জামায়াতের আমির শহিদুল ইসলামসহ চারজন, বরিশালের উজিরপুর উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের আহ্বায়ক মনিরুজ্জামান লিখনসহ তিনজন, দিনাজপুর থেকে ৭ জন ও মাগুরা থেকে ককটেলসহ দুই বিএনপিকর্মীসহ সারাদেশ থেকে দুই শতাধিক গ্রেফতার হয়েছে। গ্রেফতারকৃতদের মধ্যে নাশকতাকারী ছাড়াও তাদের মদদ, আশ্রয়-প্রশ্রয় ও অর্থদাতা বিএনপি-জামায়াত-শিবির নেতাকর্মী রয়েছে।

প্রকাশিত : ১৩ ফেব্রুয়ারী ২০১৫, ০২:০১ এ. এম.

১৩/০২/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: