মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১১ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

নেত্রকোনায় ৬০ জনকে আসামি করে মামলা

প্রকাশিত : ১৩ ফেব্রুয়ারী ২০১৫
  • ট্রাকে পেট্রোলবোমা নিক্ষেপ

নিজস্ব সংবাদদাতা, দুর্গাপুর, নেত্রকোনা, ১২ ফেব্রুয়ারি ॥ দুর্গাপুরে কেন্দ্রীয় বিএনপির কার্যনির্বাহী পরিষদের সদস্য ব্যারিস্টার কায়সার কামালকে প্রধান আসামি এবং উপজেলা বিএনপির সভাপতি জহিরুল আলম ভুইয়া, সাধারণ সম্পাদক আব্দুল আওয়াল, সাংগঠনিক সম্পাদক ও উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ আনোয়ার হোসেন আসাদ, বিরিশিরি ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি মোঃ তারা মিয়াসহ ৪০ জনের নাম উল্লেখ এবং অজ্ঞাত ৫০-৬০ জনকে আসামি করে দুর্গাপুর থানায় বুধবার রাতে বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

হরতাল-অবরোধে মাগুরায় বিপাকে পাঁচ হাজার হকার

নিজস্ব সংবাদদাতা, মাগুরা, ১২ ফেব্রুয়ারি ॥ মাগুরায় হরতাল-অবরোধের কারণে হকারদের বেচাকেনা অস্বাভাবিক কমে যাওয়ায় জেলার প্রায় ৫ হাজার হকার বিপাকে পড়েছে। ফলে হকাররা পরিবার-পরিজন নিয়ে মানবেতর জীবনযাপন করছে। জানা গেছে, টানা হরতাল-অবরোধের কারণে ব্যবসা-বাণিজ্যে মন্দাভাব বিরাজ করছে। জেলার প্রায় ৫ হাজার হকার প্রতিদিন ফেরি করে বিভিন্ন ধরনের পণ্য বিক্রি করে জীবিকা নির্বাহ করত। হরতাল-অবরোধে তাদের বিক্রিতে নেমেছে ধস। পূর্বে একজন হকার দৈনিক ৮শ’ টাকার পণ্য বিক্রি করলে তার ২শ’ থেকে আড়াই শ’ টাকা লাভ থাকত, তা দিয়ে কোন রকমে তার সংসার চললেও বর্তমানে সারাদিন ঘুরে এক শ’ টাকা বিক্রি হচ্ছে না। ফেরি করে মাছ বিক্রেতা মোকছেদ জানান, পূর্বে তার দৈনিক দেড় থেকে দুই হাজার টাকা বিক্রি হলেও বর্তমানে বিক্রি হচ্ছে তিন শ’ টাকা, যা দিয়ে তার সংসার চলে না। পুঁজি ভেঙ্গে খেতে হচ্ছে। ফলে তারা চরম বিপাকে পড়েছেন।

টঙ্গীবাড়ি-বেতকা ঢাকা রুটে ৭ ঘণ্টা বাস বন্ধ

চাঁদাবাজি

স্টাফ রিপোর্টার, মুন্সীগঞ্জ ॥ টঙ্গীবাড়ি-বেতকা-ঢাকা রুটে বৃহস্পতিবার বিকাল ৫টা পর্যন্ত সাত ঘণ্টা বাস সার্ভিস বন্ধ ছিল। এতে যাত্রীদের অবর্ণনীয় দুর্ভোগ পোহাতে হয়। চাঁদাবাজির প্রতিবাদে এই রুটের বাস মালিক ও শ্রমিকরা এই ধর্মঘট করে। পরে স্থানীয় প্রশাসনের হস্তক্ষেপে বিকালে আবার বাস চলাচল শুরু হয়। বাস মালিকরা অভিযোগ করেন, নানা কারণে বাসের ব্যবসা এখন মন্দা। তারপরও প্রতিদিন প্রতিটি বাসকে ১২শ’ করে টাকা চাঁদা দিতে হচ্ছে ৮টি পয়েন্টে। এই রুটের গুলিস্তান, নয়াবাজার, নিমতলা, সিরাজদিখান, মালখানগর, বেতকা, টঙ্গীবাড়ি ও কালিবাড়ি পয়েন্টে এই চাঁদা নেয়া হচ্ছে প্রতিনিয়ত। বাস মালিক ও পুলিশ জানায়, নানা অজুহাতে ফিরোজ ও রহিমের নেতৃত্বে এই চাঁদা আদায় করা হচ্ছে।

প্রকাশিত : ১৩ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

১৩/০২/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

দেশের খবর



ব্রেকিং নিউজ: