মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১০ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

সংলাপের সম্ভাবনা নাকচ করলেন নারী সংসদ সদস্যরাও

প্রকাশিত : ১১ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

সংসদ রিপোর্টার ॥ সরকার ও বিরোধী দলের নারী সংসদ সদস্যরাও বিএনপির সঙ্গে সংলাপের সম্ভাবনা নাকচ করে দিয়েছেন। তাঁরা বলেন, বর্তমান অবস্থায় বিএনপির সঙ্গে সংলাপ করলে ভবিষ্যতে জঙ্গী তৎপরতা ও সহিংসতা উৎসাহিত হবে। তাই খুনী, সন্ত্রাসী, নাশকতাকারী ও মানুষ হত্যাকারী বিএনপি নেত্রীর সঙ্গে কোন ধরনের আলোচনা হতে পারে না, হবে না। যে আগুন দিয়ে বিএনপি-জামায়াত মানুষকে পুড়িয়ে মারছে সেই আগুনেই তারা একদিন ভস্মীভূত হয়ে যাবে।

মঙ্গলবার স্পীকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সংসদ অধিবেশনে রাষ্ট্রপতির ভাষণের ওপর সাধারণ আলোচনায় অংশ নিয়ে তাঁরা এসব কথা বলেন। আলোচনায় অংশ নেন সরকারী দলের প্রতিমন্ত্রী মেহের আফরোজ চুমকি, কামরুল আশরাফ খান, সেলিনা আখতার বানু, ফাতেমা জোহরা রানী ও জাতীয় পার্টির শাহনারা বেগম।

নারী ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী মেহের আফরোজ চুমকি বলেন, খালেদা জিয়া জনগণকে নিয়ে আন্দোলন করতে চান না, তিনি জনগণের লাশ চান। লাশ ফেলে তিনি ক্ষমতায় যেতে চান, হাওয়া ভবন খুলতে চান, জঙ্গীবাদ-সন্ত্রাসীদের রাষ্ট্রে পরিণত করতে চান। খালেদা জিয়ার সন্ত্রাস-নাশকতার সঙ্গে আপোস করলে আগামী দিনে দেশের অবস্থা আফগান-তালেবানের মতো হবে। দেশ যেভাবে এগিয়ে যাচ্ছে তাতে খালেদা জিয়া দিশেহারা হয়ে পড়েছেন। বুঝতে পেরেছেন এভাবে দেশ এগিয়ে গেলে আগামীতে দেশের জনগণ তাঁর এবং বিএনপির নামই ভুলে যাবে। এসব খুনীর সঙ্গে যারা সংলাপের কথা বলেন তারা পক্ষান্তরে নাশকতাকারীদের আড়াল করতে চান। মানুষ হত্যাকারী, খুনী-সন্ত্রাসী ও জঙ্গীদের সঙ্গে কোন সংলাপ হতে পারে না, হবে না।

জাতীয় পার্টির শাহনারা বেগম বলেন, কঠোরভাবে এসব সন্ত্রাসী-নাশকতা দমন করতে না পারলে তার দায় সরকারকেই নিতে হবে। আজ দেশে স্বাভাবিক মৃত্যুর গ্যারান্ট্রি নেই। এ দেশ কোন দল বা নেত্রীর সম্পত্তি নেই। কেন তারা এভাবে রাজনীতির নামে মানুষ খুন করবে?

সরকারী দলের সেলিনা আখতার বানু বলেন, দেশের উন্নয়নের অগ্রযাত্রাকে থমকে দিতে জঙ্গী-সন্ত্রাসীদের মাঠে নামিয়ে মানুষ হত্যার নির্দেশ দিচ্ছেন খালেদা জিয়া। জীবন্ত মানুষকে হত্যা করে কোন গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করতে চান? বিবেকহীনতার পরিচয় দিয়ে আজ জঙ্গী নেত্রীতে পরিণত হয়েছেন বিএনপি নেত্রী। যে আগুন দিয়ে বিএনপি-জামায়াত মানুষকে পুড়িয়ে মারছে, সেই আগুনেই একদিন তারা ভস্মীভূত হয়ে যাবে।

সরকারী দলের অপর সংসদ সদস্য ফাতেমা জোহরা রানী বিএনপি-জামায়াত জোটের কঠোর সমালোচনা করে বলেন, বিরোধী দলের নেতার পদটিও হারিয়ে খালেদা জিয়া উন্মাদ হয়ে গেছেন। তাঁর হাত থেকে কেউই রেহাই পাচ্ছে না। শুধু ক্ষমতার লোভে নিষ্ঠুরভাবে মানুষ হত্যার মহোৎসবে নেমেছেন। রাজপথেই দেশের জনগণ তাঁর সন্ত্রাস-জঙ্গীবাদী রাজনীতির কবর রচনা করবে।

প্রকাশিত : ১১ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

১১/০২/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

শেষের পাতা



ব্রেকিং নিউজ: