আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৭ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বুধবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

এক নজরে বিশ্বকাপের রেকর্ডসমূহ

প্রকাশিত : ১১ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

দলীয় রেকর্ডসমূহ

মোট বিশ্বকাপ ॥ ১০টি

সর্বাধিক চ্যাম্পিয়ন ॥ অস্ট্রেলিয়া (৪)- ১৯৮৭, ১৯৯৯, ২০০৩ ও ২০০৭।

অন্যান্য চ্যাম্পিয়ন ॥ ওয়েস্ট ইন্ডিজ (২), ভারত (২), পাকিস্তান (১) ও শ্রীলঙ্কা (১)।

সর্বাধিক রানার্সআপ ॥ ইংল্যান্ড (৩)- ১৯৭৯, ১৯৮৭ ও ১৯৯২।

সর্বাধিক ম্যাচ খেলা দল ॥ অস্ট্রেলিয়া (৭৬ ম্যাচ)।

সর্বাধিক ম্যাচ জয়ী দল ॥ অস্ট্রেলিয়া (৫৫ জয়)।

সবচেয়ে কম ম্যাচ খেলা দল ॥ বারমুডা ও পূর্ব আফ্রিকা (৩টি করে ম্যাচ)।

সবচেয়ে কম জয়ী দল ॥ বারমুডা, পূর্ব আফ্রিকা, নামিবিয়া ও স্কটল্যান্ড।

সর্বোচ্চ দলীয় ইনিংস ॥ ভারত ৪১৩/৫, প্রতিপক্ষ বারমুডা; ২০০৭ বিশ্বকাপ, ১৯ মার্চ, পোর্ট অব স্পেন।

সর্বনিম্ন দলীয় ইনিংস ॥ কানাডা ৩৬ (১৮.৪ ওভার), প্রতিপক্ষ শ্রীলঙ্কা, ২০০৩ বিশ্বকাপ, ১৯ ফেব্রুয়ারি, পার্ল।

এক ম্যাচে সর্বাধিক দলীয় মোট রান ॥ ৬৭৬ (ভারত ও ইংল্যান্ড), ২০১১ বিশ্বকাপ, ২৭ ফেব্রুয়ারি, ব্যাঙ্গালোর।

এক ম্যাচে সর্বনিম্ন দলীয় মোট রান ॥ ৭৩ (কানাডা ও শ্রীলঙ্কা), ২০০৩ বিশ্বকাপ, ১৯ ফেব্রুয়ারি, পার্ল।

সবচেয়ে বড় ব্যবধানে জয় ॥ ২৫৭ রানে ভারত, প্রতিপক্ষ বারমুডা; ২০০৭ বিশ্বকাপ, ১৯ মার্চ, পোর্ট অব স্পেন।

সবচেয়ে কম ব্যবধানে জয় ॥ অস্ট্রেলিয়া ১ রানে ভারতের বিরুদ্ধে ১৯৮৭ বিশ্বকাপ, চেন্নাই, ৯ অক্টোবর এবং ভারতের বিরুদ্ধে অস্ট্রেলিয়া ১ রানে ১৯৯২ বিশ্বকাপ, ১ মার্চ, ব্রিসবেন।

মোট টাই ম্যাচ ॥ ৪টি (১৯৯৯ বিশ্বকাপ, ১৭ জুন; এজবাস্টনে দক্ষিণ আফ্রিকা-অস্ট্রেলিয়া; ২০০৩ বিশ্বকাপ, ৩ মার্চ; ডারবানে দক্ষিণ আফ্রিকা-শ্রীলঙ্কা; ২০০৭ বিশ্বকাপ, ১৫ মার্চ; জ্যামাইকাতে জিম্বাবুইয়ে-আয়ারল্যান্ড এবং ২০১১ বিশ্বকাপ, ২৭ ফেব্রুয়ারি; ব্যাঙ্গালোরে ভারত-ইংল্যান্ড ম্যাচ)।

সর্বাধিক অতিরিক্ত রান ॥ ৫৯; স্কটল্যান্ডের বিরুদ্ধে পাকিস্তান, ১৯৯৯ বিশ্বকাপ, ২০ মে, চেস্টার লি স্ট্রিট।

ব্যক্তিগত ব্যাটিং রেকর্ড ॥

সর্বাধিক রান ॥ শচীন টেন্ডুলকর (ভারত)- ৪৫ ম্যাচে ৫৬.৯৫ গড়ে ২২৭৮ রান।

সর্বাধিক গড় ॥ ল্যান্স ক্লুজনার (দক্ষিণ আফ্রিকা), ১৪ ম্যাচে ১২৪.০০ গড়ে ৩৭২ রান।

সর্বোচ্চ ব্যক্তিগত ইনিংস ॥ গ্যারি কার্স্টেন (দক্ষিণ আফ্রিকা)-১৮৮* প্রতিপক্ষ আরব আমিরাত, ১৯ ফেব্রুয়ারি ১৯৯৬ বিশ্বকাপ, রাওয়ালপিন্ডি।

সর্বোচ্চ স্ট্রাইকরেট ॥ ল্যান্স ক্লুজনার (দক্ষিণ আফ্রিকা), ১৪ ম্যাচে ১২১.১৭ স্ট্রাইকরেটে ৩৭২ রান।

সর্বাধিক সেঞ্চুরি ॥ শচীন টেন্ডুলকর (ভারত)- ৬টি।

সর্বাধিক হাফসেঞ্চুরি ॥ শচীন টেন্ডুলকর (ভারত)- ১৫টি।

সর্বাধিক শুন্য ॥ নাথান এ্যাস্টেল (নিউজিল্যান্ড) ২২ ম্যাচে ৫টি ও ইজাজ আহমেদ (পাকিস্তান) ২৯ ম্যাচে ৫টি।

এক বিশ্বকাপে সর্বাধিক রান ॥ শচীন টেন্ডুলকর (ভারত)- ১১ ম্যাচে ৬১.১৮ গড়ে ৬৭৩ রান, ২০০৩ বিশ্বকাপ।

ব্যক্তিগত বোলিং রেকর্ড ॥

সর্বাধিক উইকেট ॥ গ্লেন ম্যাকগ্রা (অস্ট্রেলিয়া)- ৩৯ ম্যাচে ১৮.১৯ গড়ে ৭১ উইকেট।

ম্যাচে সেরা বোলিং ॥ গ্লেন ম্যাকগ্রা (অস্ট্রেলিয়া) ৭-৪-১৫-৭; প্রতিপক্ষ নামিবিয়া, ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০০৩ বিশ্বকাপ, পচেফস্ট্রম।

সেরা গড় ॥ গ্লেন ম্যাকগ্রা (অস্ট্রেলিয়া)- ৩৯ ম্যাচে ১৮.১৯ গড়।

সেরা ইকোনমি ॥ এন্ডি রবার্টস (ওয়েস্ট ইন্ডিজ)- ১৬ ম্যাচে ওভারপ্রতি ৩.২৪ রান দিয়ে ২৬ উইকেট।

সেরা স্ট্রাইকরেট ॥ জহির খান (ভারত)- ২৩ ম্যাচে ২৭.১ স্ট্রাইকরেটে ৪৪ উইকেট।

এক ম্যাচে সর্বাধিক দেয়া রান ॥ মার্টিন স্নেডেন (নিউজিল্যান্ড)- ১২ ওভারে ১০৫ রান প্রতিপক্ষ ইংল্যান্ড, ৯ জুন ১৯৮৩, দ্য ওভাল এবং অশান্ত ডি মেল (শ্রীলঙ্কা)- ১০ ওভারে ৯৭, প্রতিপক্ষ ওয়েস্ট ইন্ডিজ, ১৩ অক্টোবর ১৯৮৭, করাচি।

এক বিশ্বকাপে সর্বাধিক উইকেট ॥ গ্লেন ম্যাকগ্রা (অস্ট্রেলিয়া)- ১১ ম্যাচে ১৩.৭৩ গড়ে ২৬ উইকেট, ২০০৭ বিশ্বকাপ, ওয়েস্ট ইন্ডিজ।

উইকেট কিপিং রেকর্ড ॥

সর্বাধিক ডিসমিসাল ॥ এডাম গিলক্রিস্ট (অস্ট্রেলিয়া)- ৩১ ম্যাচে ৫২ ডিসমিসাল (৪৫ ক্যাচ, ৭ স্টাম্পিং)।

এক ম্যাচে সর্বাধিক ডিসমিসাল ॥ এডাম গিলক্রিস্ট (অস্ট্রেলিয়া)- ৬টি (৬ ক্যাচ), প্রতিপক্ষ-নামিবিয়া, ২০০৩ বিশ্বকাপ, পচেফস্ট্রম।

এক বিশ্বকাপে সর্বাধিক ডিসমিসাল ॥ এডাম গিলক্রিস্ট (অস্ট্রেলিয়া)- ১০ ম্যাচে ২১ ডিসমিসাল (২১ ক্যাচ); ২০০৩ বিশ্বকাপ।

ফিল্ডিং রেকর্ড ॥

সর্বাধিক ক্যাচ ॥ রিকি পন্টিং (অস্ট্রেলিয়া)- ৪৬ ম্যাচে ২৮ ক্যাচ।

এক ম্যাচে সর্বাধিক ক্যাচ ॥ মোহাম্মদ কাইফ (ভারত)- ৪ ক্যাচ, প্রতিপক্ষ-শ্রীলঙ্কা, ১০ মার্চ ২০০৩, জোহানেসবার্গ।

এক বিশ্বকাপে সর্বাধিক ক্যাচ ॥ রিকি পন্টিং (অস্ট্রেলিয়া)- ১১ ম্যাচে ১১ ক্যাচ, ২০০৩ বিশ্বকাপ।

ব্যক্তিগত রেকর্ড ॥

সর্বাধিক ম্যাচ ॥ রিকি পন্টিং (অস্ট্রেলিয়া)- ৪৬ ম্যাচ।

অধিনায়ক হিসেবে সর্বাধিক ম্যাচ ॥ রিকি পন্টিং (অস্ট্রেলিয়া)- ২৯ ম্যাচ

প্রকাশিত : ১১ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

১১/০২/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: