রৌদ্রজ্জ্বল, তাপমাত্রা ২৩.৯ °C
 
৮ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বৃহস্পতিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

ব্যবসায়ীদের গাড়ি রিকুইজিশন বন্ধে বিশেষ স্টিকার

প্রকাশিত : ১১ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ তৈরি পোশাকের বিদেশী ক্রেতা ও ব্র্যান্ড প্রতিনিধিদের গাড়ি পুলিশের রিক্যুজিশন মুক্ত রাখতে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে দেয়া হবে বিশেষ স্টিকার। এছাড়া তাদের চলাফেরার নিরাপত্তার জন্যও পুলিশী পাহারা দেয়া হবে বলে জানা যায় বাণিজ্য মন্ত্রণালয়, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ও তৈরি পোশাক উৎপাদন ও রফতানিকারক সমিতি (বিজিএমইএ) সূত্রে।

তৈরি পোশাক শিল্পের আন্তর্জাতিক ক্রেতা ও ব্র্যান্ড জোট সংগঠন বায়ার্স ফোরামের অনুরোধে এমন সিদ্ধান্ত নেয়া হচ্ছে। এই ফোরামে রয়েছে আন্তর্জাতিক ব্র্যান্ড এইচএন্ডএম, গ্যাপ, টেসকো, কেরিফোর, সিএন্ডএ, ইনডিটেক্স, ওয়ালমার্ট ইত্যাদিসহ বিশ্বের ৬৫ নামীদামী ব্র্যান্ড। উল্লেখ্য, বাংলাদেশের তৈরি পোশাক রফতানির ২৫ বিলিয়ন ডলারের মধ্যে প্রায় ২২ বিলিয়নের ক্রেতা এসব ব্র্যান্ড।

চলতি মাসের ২ তারিখ বাণিজ্যমন্ত্রীর সঙ্গে এক বৈঠকে তৈরি পোশাক শিল্পের আন্তর্জাতিক ক্রেতা ও ব্র্যান্ড জোট সংগঠন বায়ার্স ফোরাম অভিযোগ করে- তাদের ব্যহৃত গাড়ি রাস্তায় আটকিয়ে পুলিশ রিক্যুজিশন করে নেয়। এমন একাধিক অভিযোগের ভিত্তিতে তাৎক্ষণিক তিনি পুলিশের মহা পরিদর্শককে (আইজপি) ফোন করে বিষয়টি জানান। তিনি এ ব্যাপারে ব্যবস্থা নেবেন বলে বাণজ্যমন্ত্রীকে আশ্বস্ত করেন। প্রায় এক সপ্তাহ অতিবাহিত হওয়ার পর বিষয়টি আবারও সামনে আনেন বায়ার্স ফোরামের এক প্রতিনিধি। তিনি বিজিএমইএকে মেইল করে এ ব্যাপারে অগ্রগতি জানতে চান। বিষয়টি বাণিজ্যমন্ত্রীকে আবার জানালে তিনি দ্রুত ব্যবস্থা নেয়ার কথা বলেন। জানতে চাইলে বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমদ জনকণ্ঠকে বলেন, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে এ ব্যাপারে ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।

এদিকে বিজিএমইএ সূত্রে জানা যায়, তারা স্টিকারের পরিবর্তে চিঠি দেয়ার কথা বলছেন। কারণ হিসেবে বিজিএমইএর এক শীর্ষ নেতা বলেন, স্টিকার লাগানো থাকলে অবরোধকারীদের হামলার লক্ষ্যবস্তু হতে পারে বায়ারের গাড়ি। তিনি বলেন, স্টিকারের পরিবর্তে চিঠি ইস্যু করা হলে ভাল হয়। বায়ারদের চাহিদার আলোকে এই চিঠি দেয়া হবে বলে জানান ওই নেতা।

প্রকাশিত : ১১ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

১১/০২/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: