মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১১ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

‘মিরাক্কেল-৮’ চ্যাম্পিয়ন হলেন কাজু

প্রকাশিত : ১০ ফেব্রুয়ারী ২০১৫
‘মিরাক্কেল-৮’ চ্যাম্পিয়ন হলেন কাজু

সংস্কৃতি ডেস্ক ॥ ওপার বাংলার জনপ্রিয় বাংলা চ্যানেল জিবাংলার অন্যতম প্রধান রিয়েলিটি শো ‘মিরাক্কেল আক্কেল চ্যালেঞ্জার সিজন-৮’ চ্যাম্পিয়ন হলেন পশ্চিমবঙ্গের সোনামুখী বাকুরার ছেলে শিলোঞ্জিত হালদার কাজু। চ্যাম্পিয়ন হিসেবে তিনি তিন লাখ টাকা, একটি ব্র্যান্ড নিউ কার পেয়েছেন। এছাড়া প্রাণের পক্ষ থেকে কমার্শিয়ালি অভিনয় করার সুযোগ পাবেন তিনি। এই প্রতিযোগিতায় দ্বিতীয় হয়েছেন ঢাকার প্রতিযোগী পরশ। তৃতীয় হয়েছেন যৌথভাবে অনিকেত এবং ইমন ও সন্দিপ। তারা দুজনেই পুরস্কার হিসেবে পেয়েছেন এক লাখ টাকা করে। এছাড়া প্রথম, দ্বিতীয়, তৃতীয় তিনজনেই পেয়েছেন জি বাংলার পক্ষ থেকে একলাখ টাকা করে পুরস্কার। পাশাপাশি তারা তিন দিন দুই রাত থাইল্যান্ডে বেড়ানোর সুযোগ পাবেন। অনুষ্ঠানে বিশেষ পুরস্কার দেয়া হয় সবচেয়ে জ্যেষ্ঠ পারফর্মার হালতুর প্রতিযোগী ধর দাকে। তার পরিচালিত সেবামূলক প্রতিষ্ঠানকে ড. দেবব্রত সেনের পক্ষ থেকে এক লাখ টাকার চেক দেয়া হয়। পাশাপাশি বাকি চার প্রতিযোগীকে সম্মাননা পুরস্কার দেয়া হয়। তেমনিভাবে এই প্রতিযোগিতার চার মেন্টরকে ৫০ হাজার করে মোট দুই লাখ টাকা পুরস্কার দেয়া হয় ড. দেবব্রত সেনের পক্ষ থেকে। এই প্রতিযোগিতার তিন বিচারক ছিলেন পরাণ বন্দোপাধ্যায়, রজতাভ দত্ত রনি এবং শ্রীলেখা মিত্র। এছাড়াও ফাইনালে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বলিউডের জনপ্রিয় গায়ক সঙ্গীত পরিচালক হরিহরণ মুখার্জি এবং জিৎ গাঙ্গুলী। তারা দুজনেই দুই পর্বে উপস্থিত থেকে তাদের জনপ্রিয় গানগুলো পরিবেশন করেন। জনপ্রিয় এই অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন শুভঙ্কর চট্টোপাধ্যায়। গত রবিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় শুরু হয় এই জনপ্রিয় অনুষ্ঠানের গ্র্যান্ড ফিনালে। শেষ হয় রাত পৌনে ১২টার দিকে। অনুষ্ঠানের শুরুতেই দর্শকদের চমকে দিয়ে গরুর গাড়ি করে মঞ্চে আসেন পরাণ বন্দোপাধ্যায়, রিকশায় চরে আসেন শ্রীলেখা মিত্র এবং ভ্যানে করে আসেন রজতাভ দত্ত রনি। এছাড়া সাইকেলে চরে মঞ্চে আসেন অনুষ্ঠানের সঞ্চালক মীর এবং ব্যান্ডেজের সদস্যরা। এরপর মীরের প্রাণবন্ত উপস্থাপনায় শুরু হয় গ্র্যান্ড ফিনালের অনুষ্ঠান। এতে একে একে পারফর্ম করেন চিত্তরঞ্জনের অনিকেত, খুলনা বাংলাদেশের রাকিব-রাফি, ঢাকার পরশ, ইমন-সন্দীপ, কাজু এবং সাহেব মাঝি। এর মাঝে পারফর্ম করেন সিজন ৬ চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশের আবু হেনা রনি, একই সিজনের প্রতিযোগী অপুর্ব রায় এবং সিজন ৩ চ্যাম্পিয়ন মৃদুল ভট্টাচার্য। এছাড়াও বিশেষ পারফর্ম করেন চার মেন্টর। তবে এই শোর অন্যতম প্রতিযোগী বাকুরার তন্ময় ব্যানার্জি অসুস্থ হওয়ায় ফাইনালে অংশ নিতে পারেনি। ফাইনালে প্রতিযোগীদের দুইবারের পারফর্মেন্সের উপর ভিত্তি করে সেরাদের নির্বাচন করেন বিচারকরা। এর মাধ্যমে গত বছর আগস্টে শুরু হওয়া সিজন-৮ এর সমাপ্তি হলো। মিরাক্কেল আক্কেল চ্যালেঞ্জার অনুষ্ঠানটি প্রথম শুরু হয় ২০০৬ সালের ১২ জুন। এ পর্যন্ত এই প্রতিযোগিতার ৮টি পর্ব অনুষ্ঠিত হলো।

প্রকাশিত : ১০ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

১০/০২/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: