আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৬ ডিসেম্বর ২০১৬, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, মঙ্গলবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

আজ সংবাদ সম্মেলন টাঙ্গাইলবাসী ঢাকা বিভাগে থাকতে চায়, প্রতিদিনই নানা কর্মসূ

প্রকাশিত : ৯ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

স্টাফ রিপোর্টার ॥ টাঙ্গাইলকে ঢাকা বিভাগের সঙ্গে রাখার দাবিতে ঢাকা ও টাঙ্গাইলে দলমত নির্বিশেষে প্রতিদিনই কর্মসূচী পালন করা হচ্ছে। মানববন্ধন কর্মসূচীর মাধ্যমে টাঙ্গাইল জেলা শনিবার ১০ মিনিটের জন্য স্তব্ধ হয়ে গিয়েছিল। মির্জাপুর থেকে ধনবাড়ী পর্যন্ত প্রায় দেড় শ’ কিলোমিটার এলাকাজুড়ে এই মানববন্ধন হয়। এদিকে আজ ঢাকায় টাঙ্গাইল জেলাকে ঢাকা বিভাগের অন্তর্ভুক্ত করে ময়মনসিংহ বিভাগ বাস্তবায়নের দাবিতে জাতীয় প্রেসক্লাবে ঢাকায় অবস্থানকারী টাঙ্গাইল জেলাবাসীদের সংগঠন টাঙ্গাইলবাসী নাগরিক কমিটি সংবাদ সম্মেলন করবে।

টাঙ্গাইলকে ঢাকা বিভাগেই রাখার দাবি বাস্তবায়ন কমিটির সদস্য সচিব ও টাঙ্গাইল প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক এ্যাডভোকেট জাফর আহমেদ জানান, টাঙ্গাইলকে ঢাকা বিভাগের সঙ্গে রাখার আন্দোলনে দলমত নির্বিশেষে সকলেই এক হয়ে বিভিন্ন কর্মসূচী বাস্তবায়ন করছে। ঢাকা বিভাগের সঙ্গে টাঙ্গাইলকে রাখার জন্য গঠিত কমিটির আহ্বায়ক জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ফজলুর রহমান খান ফারুক। একইভাবে বিএনপি জাতীয় পার্টিসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতাকর্মীরা এই কমিটিতে রয়েছেন। ঢাকা বিভাগের সঙ্গে টাঙ্গাইলকে রাখতে আন্দোলনের ধারাবাহিকতায় শনিবার ১০ মিনিটের জন্য স্তব্ধ হয়ে গিয়েছিল পুরো টাঙ্গাইল জেলা। সকাল এগারটা থেকে এগারটা ১০ মিনিট পর্যন্ত সড়ক-মহাসড়ক, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান, অফিস-আদালত, দোকানপাট থেকে শুরু করে যে যেখানে ছিল সেখানেই ১০ মিনিটের জন্য নীরবতা পালন করেছে। মানববন্ধন হয়েছে প্রায় দেড় শ’ কিলোমিটার এলাকাজুড়ে।

এ্যাডভোকেট জাফর আহমেদ বলেন, জেলাব্যাপী এই কর্মসূচীর সঙ্গে একাত্মতা প্রকাশ করে ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের টাঙ্গাইলের মির্জাপুর থেকে বঙ্গবন্ধু সেতু পর্যন্ত ও টাঙ্গাইল-ময়মনসিংহ সড়কের শহর থেকে মধুপুর-ধনবাড়ী পর্যন্ত সড়কের দু’পাশে কয়েক লাখ মানুষ দাঁড়িয়ে এ আন্দোলনের কর্মসূচী সফল করেন।

টাঙ্গাইলকে ঢাকা বিভাগে রাখার দাবি বাস্তবায়ন কমিটির নেতৃবৃন্দ বলেন, বর্তমান সরকারের প্রশাসনিক বিকেন্দ্রীকরণের অংশ হিসেবে ময়মনসিংহকে নতুন বিভাগ হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে। বৃহত্তর ময়মনসিংহের কাছাকাছি জেলার মধ্যে রয়েছে ময়মনসিংহ সদর, জামালপুর, শেরপুর, নেত্রকোনা ও কিশোরগঞ্জ। অন্যদিকে ঢাকা জেলার উত্তর-পশ্চিম সীমানা থেকে থেকে মাত্র ৮ কিলোমিটার দূরত্বের টাঙ্গাইল জেলা ১৯৬৯ সালের ১ ডিসেম্বর পৃথক জেলা ঘোষণার পর থেকেই ঢাকার সঙ্গে ওতপ্রোতভাবে জড়িত। টাঙ্গাইল ঢাকা বিভাগের সঙ্গে থাকলেও ময়মনসিংহের আয়তন ও লোকসংখ্যা ঢাকা বিভাগের থেকে বেশি থাকবে। তাছাড়া কৃষি অঞ্চল উন্নয়ন ও প্রশাসনিক নানা দিকেই ঢাকার সঙ্গে টাঙ্গাইল সংযুক্ত রয়েছে। টাঙ্গাইল জেলার ১২ উপজেলার মধ্যে আটটিই ঢাকার খুব কাছাকাছি। তাই টাঙ্গাইল জেলার ৪২ লাখ মানুষের প্রাণের দাবি ঢাকা বিভাগের সঙ্গে টাঙ্গাইলকে রাখা হোক।

এই দাবিতে ময়মনসিংহ বিভাগ ঘোষণার পর থেকেই টাঙ্গাইল ও ঢাকায় সমান্তরালভাবে টাঙ্গাইলবাসীর বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ ঢাকা বিভাগের সঙ্গে যুক্ত থাকার দাবিতে একাধিক মানববন্ধন, সংবাদ সম্মেলন, বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশসহ বিভিন্ন কর্মসূচী পালন করে আসছে।

অন্যদিকে আজ সোমবার ঢাকায় জাতীয় প্রেসক্লাবে নাগরিক কমিটি আহ্বায়ক অধ্যাপক ডাঃ মির্জা মাজহারুল ইসলাম এবং প্রচার সম্পাদক ও দৈনিক যুগান্তরের ডেপুটি এডিটর রফিকুল ইসলাম রতন জানিয়েছেন টাঙ্গাইলকে ঢাকা বিভাগের সঙ্গে রাখার দাবিতে সংবাদ সম্মেলন করা হবে।

প্রকাশিত : ৯ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

০৯/০২/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

শেষের পাতা



ব্রেকিং নিউজ: