কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৫ ডিসেম্বর ২০১৬, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, সোমবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

খুব কাছে গিয়েও পারল না মামুনুলরা

প্রকাশিত : ৯ ফেব্রুয়ারী ২০১৫
খুব কাছে গিয়েও  পারল না  মামুনুলরা

রুমেল খান ॥ ৫ এবং ২৬ বছরের অপ্রাপ্তি হলো না ঘোচানো। ২০১০ সালে সাউথ এশিয়ান গেমস ফুটবলে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল স্বাগতিক বাংলাদেশ অনুর্ধ-২৩ জাতীয় ফুটবল দল। তবে সেটা কোন ফিফা স্বীকৃত আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্ট ছিল না। ১৯৮৯ সালে ঢাকায় অনুষ্ঠিত ‘প্রেসিডেন্টস গোল্ডকাপ’-এর ফাইনালে দক্ষিণ কোরিয়ার ইউনিভার্সিটি দলকে টাইব্রেকারে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল বাংলাদেশ লাল দল। সেটা ছিল ফিফা স্বীকৃত আন্তর্জাতিক ফুটবল টুর্নামেন্ট। ১৯৯৫ সালে মিয়ানমারের চারজাতি আমন্ত্রণমূলক ট্রফি, ১৯৯৯ সালে সাউথ এশিয়ান গেমস, ২০০৩ সালে সাফ গেমস শিরোপা জিতলেও এগুলোও ফিফা স্বীকৃত কোন আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্ট ছিল না। এবারের বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ আসরটি ফিফা স্বীকৃত আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্ট হওয়াতে দীর্ঘদিন পর আরেকটি আন্তর্জাতিক ফুটবল টুর্নামেন্টে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার সুযোগ ছিল বাংলাদেশের সামনে। কিন্তু সেই সুযোগও কাজে লাগাতে পারল না লাল-সবুজ জার্সিধারীরা। রবিবারের ফাইনালে মালয়েশিয়া অনুর্ধ-২৩ দলের কাছে ৩-২ গোলে হেরে রানার্সআপ হয়ে ঘটেছে স্বপ্নের সলীল সমাধি।

রেফারির শেষ বাঁশি বাজতেই বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামে দেখা গেল শোকের মাতম। মাটিতে শুয়ে পড়েছেন বাংলা-মালয় দুই দলের খেলোয়াড়রাই। বাংলাদেশের খেলোয়াড়রা শোকে, আর মালয়েশিয়ানরা আনন্দে-আবেগে। কান্নয় বুক ভাসাচ্ছেন মামুনুল, শহীদুল, এমিলিরা। ম্যাচ শেষে দলের ডাচ্ কোচ লোডভিড ডি ক্রুইফ বলেন, ‘পুরো ৯০ মিনিট দুর্দান্ত খেলেও শেষ মুহূর্তের গোলে এভাবে হার মেনে নেয়া যায় না। এটা অনেক কষ্টের। কেবল ফুটবলারদের জন্য নয়, বাংলাদেশের মানুষের জন্যও এটা বড় কষ্টের। ৩-০ গোলে হারলে এতটা কষ্ট পেতাম না। ’

ক্রুইফ আরও বলেন, ‘আমার কোচিং ক্যারিয়ারে এটা ট্র্যাজিক ম্যাচ। আসলে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার জন্য আমরা ছেলেরা দুর্দান্ত খেলেছে। কিন্তু ভাগ্য আমাদের সহায় ছিল না।’ ম্যাচ শুরুর আগে জানা যায় ইনজুরির কারণে খেলতে পারবেন না মিডফিল্ডার হেমন্ত ভিনসেন্ট বিশ্বাস। ম্যাচের ৫ মিনিটেই চোটের কারণে মাঠ ছাড়েন উইঙ্গার জাহিদ হোসেন। এই দুই কৃতী খেলোয়াড়ের অভাবটাও মাঠে অনুভব করেছেন তিনি, ‘এমন গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে দু’জন সেরা খেলোয়াড়কে ছাড়া মাঠে না পাওয়া একজন কোচের জন্য নয়, পুরো দলের জন্যই ভয়ানক। তারপরও এ দুই তারকাকে ছাড়া ছেলেরা দুর্দান্ত লড়াই করেছে। প্রথমার্ধে আমরা খারাপ খেলেছি। দ্রুতই দুই গোল হজম করেছি। তবে বিরতির পর দারুণভাবে ঘুরে দাঁড়াই। এবং অল্পসময়ের মধ্যে দুটি গোল পরিশোধ করি আমরা।’

রেফারিং নিয়ে ক্রুইফ বলেন, ‘প্রথমার্ধে রেফারির ওপর আমার খেলোয়াড়রা রাগান্বিত ছিল। তাদের মনোবলও ভেঙ্গে যায়। তবে বিরতির সময় খেলোয়াড়দের বুঝিয়েছে রেফারির দিকে মন দেয়ার প্রয়োজন নেই। নিজেদের খেলাটা খেল। আমার খেলোয়াড়রা সেই কাজটাই করেছে। আমরা গোলও পরিশোধ করেছি। কিন্তু শেষ মুহূর্তের গোলটাই আমাদের হতাশায় ডুবিয়েছে।’

টুর্নামেন্টের সেরা ট্রফি জেতলেও দল চ্যাম্পিয়ন না হওয়ায় হতাশ দলের মিডফিল্ডার জামাল ভূইয়া, ‘এটা আমার ব্যক্তিগত অর্জন। কিন্তু তা পেলেও আমি খুশি হতে পারিনি। মনটা আমার খুব খারাপ। বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়ন হলে টুর্নামেন্টে সেরা হওয়ার পুরস্কারটা আমার জন্য বিশেষ কিছু হতো। এখন আসলে এটা নিয়ে কোন আগ্রহই নেই আমার।’ মাত্র চব্বিশ ঘণ্টার ব্যবধানে ফাইনাল খেলতে নামে বাংলাদেশ। বিশ্রামের সুযোগও পায়নি স্বাগতিকরা। ম্যাচের হারার জন্য এটাও অন্যতম কারণ বলে জানিয়েছেন কোচ ক্রুইফ এবং জামাল ভূঁইয়া।

সর্বশেষ ২০০৫ সালে পাকিস্তানে অনুষ্ঠিত সাফ চ্যাম্পিয়শিপের ফাইনালে খেলেছিল বাংলাদেশ জাতীয় দল। সেবার ফাইনালে ভারতের কাছে হেরেছিল বাংলাদেশ। ২০১০ সালে ঢাকায় অনুষ্ঠিত সার্বিয়ান কোচ জোরান জর্জেভিচের অধীনে এসএ গেমসের ফাইনালে আফগানিস্তানকে হারিয়ে স্বর্ণপদক জিতলেও সেটা ছিল বাংলাদেশের অনুর্ধ-২৩ দল। যে কোন পর্যায়ে বাংলাশের সর্বশেষ শিরোপা অর্জন ২০০৩ সাউথ এশিয়ান ফুটবল ফেডারেশন গোল্ডকাপে। সেবার অস্ট্রিয়ান কোচ জর্জ কোটানের অধীনে বাংলাদেশ ফাইনালে মালদ্বীপকে টাইব্রেকারে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল।

প্রকাশিত : ৯ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

০৯/০২/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

প্রথম পাতা



ব্রেকিং নিউজ: