কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৫ ডিসেম্বর ২০১৬, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, সোমবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

আমাদের সমস্যা আমাদেরই সমাধান করতে হবে ॥ এরশাদ

প্রকাশিত : ৮ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

স্টাফ রিপোর্টার ॥ দেশে চলমান রাজনৈতিক সঙ্কট নিরসন করে শান্তি ও গণতান্ত্রিক পরিবেশ সৃষ্টিতে কূটনীতিকদের সহযোগিতা চাইলেন বিরোধীদলীয় নেতা রওশন এরশাদ এমপি। নিজেদের সমস্যা নিজেরাই সমাধানে কাজ করতে হবে এমন মন্তব্য করেছেন জাপা চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ।

শনিবার রাতে রাজধানীর গুলশানের হোটেল ওয়েস্টিনে বাংলাদেশে নিযুক্ত বিভিন্ন দেশের কূটনীতিকদের সম্মানে আয়োজিত নৈশভোজে রওশন এরশাদ এ সহযোগিতা চান। তিনি বলেন, চলমান নাশকতা প্রতিরোধে শেখ হাসিনা সরকার চেষ্টা চালাচ্ছে। সরকার শান্তি চায়। আমরাও শান্তি চাই। শান্তি ও গণতান্ত্রিক পরিবেশ সৃষ্টিতে আপনাদের সহযোগিতা চাই।

সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে রওশন এরশাদ বলেন, ‘৫ জানুয়ারির নির্বাচন দরকার ছিল। শেখ হাসিনা বিএনপিকে আহ্বান জানিয়েছিলেন নির্বাচনে আসার জন্য। কিন্তু তারা আসেনি। এ নির্বাচনে সব দলের অংশগ্রহণ করা উচিত ছিল। সে সময় তিনি যেভাবে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করেছিলেন এখনও চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন।

তিনি বলেন, আমরা শান্তিপ্রিয় মানুষ। দেশের মানুষ শান্তি চায়। বিএনপি আজ সংসদের বাইরে। তারা সংসদে নেই। তারা বাইরে থেকে জ্বালাও-পোড়াও করছে। এ পরিস্থিতিতে দেশের স্বাধীনতা, শান্তি ও গণতন্ত্রের জন্য আপনাদের সহায়তা চাই। চীন, ভারত, জাপান, রাশিয়া, ওমানসহ ২৮ দেশের কূটনীতিকরা এ নৈশভোজে উপস্থিত ছিলেন। জাতীয় পার্টির নেতাদের মধ্যে ছিলেন- পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ, মহাসচিব জিয়াউদ্দিন বাবলু, পানিসম্পদমন্ত্রী আনিসুল ইসলাম মাহমুদ, বিরোধীদলীয় চীফ হুইপ তাজুল ইসলাম, সাবেক মহাসচিব রুহুল আমিন হাওলাদার, সৈয়দ আবু হোসেন বাবলা, সালমা ইসলাম প্রমুখ। অনুষ্ঠানে দলের অন্য সংসদ সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

এরশাদ বলেন, বিদেশীরা এ সমস্যার সমাধান করতে পারবে না। আমাদের সমস্যা আমাদেরই সমাধান করতে হবে। সঙ্কট নিরসনে দুই নেত্রীকে আলোচনায় বসারও আহ্বান জানান তিনি। বলেন, আমি চিঠি দিয়ে সংলাপে বসার জন্য দুই নেত্রীকে আহ্বান জানিয়েছি। কিন্তু তাঁরা আমার আহ্বানে সাড়া দেননি। তা হয় না। আমাদের সকলের উচিত দেশকে নিয়ে ভাবা।

প্রকাশিত : ৮ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

০৮/০২/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

শেষের পাতা



ব্রেকিং নিউজ: