রৌদ্রজ্জ্বল, তাপমাত্রা ২৩.৯ °C
 
৮ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বৃহস্পতিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

বাণিজ্যমেলার স্টল ও প্যাভিলিয়নে মূল্য ছাড়ের ছড়াছড়ি

প্রকাশিত : ৮ ফেব্রুয়ারী ২০১৫
  • পাঁচ পণ্যের চাহিদা বেশি

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ ক’দিন পরই শেষ হচ্ছে বর্ধিত সময়ের ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্যমেলা। শেষ মুহূর্তের কেনাকাটা সারতে হরতাল-অবরোধ উপেক্ষা করেই মেলায় আসছেন ক্রেতা-দর্শনার্থীরা। বিশেষ অফার কিংবা ছাড়ে পণ্য কিনতে ক্রেতারা ভিড় করছেন মেলার স্টল ও প্যাভিলিয়নগুলোতে। ‘হরতাল উপলক্ষে ছাড়’, জাতীয় অফার কিংবা আখেরি অফারের নামে পণ্যভেদে বিশেষ এই অফার দিচ্ছেন ব্যবসায়ীরা। এবারের মেলায় পাঁচটি পণ্যের চাহিদা সবচেয়ে বেশি দেখা গেছে। এর মধ্যে রয়েছে প্লাস্টিক, গৃহস্থালি, ইলেকট্রনিক্স, প্রসাধনী ও খাদ্যসামগ্রী। এসব পণ্যের প্রধান ক্রেতা নারী ও তরুণীরা। কেনাকাটায় এগিয়ে আছেন পুরুষ ও শিশু-কিশোররাও। বিক্রেতারা বলছেন, বিশেষ অফার ও পণ্য ফ্রি থাকায় শেষ সময়ে বিক্রি অনেকাংশেই বেড়েছে। বিশেষ করে প্লাস্টিক, গৃহস্থালি ও ইলেকট্রনিক্স পণ্যের আধিক্য সবচেয়ে বেশি বলে জানান তারা।

প্লাস্টিক পণ্য ॥ বাণিজ্যমেলায় প্লাস্টিকের বাহারি পণ্যের বেচাকেনা বেশ ভাল। অন্য দোকানগুলোর তুলনায় প্লাস্টিক পণ্যের দোকানে সারাদিনই বেশ ভিড়। এবারের বাণিজ্যমেলায় প্লাস্টিকের বাটি, মগ, জগ, চেয়ার, টেবিল, র‌্যাক, টুলসবই পাওয়া যাচ্ছে। প্লাস্টিকের সোফাসেট, ওয়ার্ডরোব কিংবা খাট সবই পাওয়া যাচ্ছে মেলায়। এছাড়া শিশুদের খেলনা অহরহই পাওয়া যাচ্ছে। প্যাভিলিয়নের ম্যানেজার আনোয়ার হোসেন বলেন, গ্যাসের চুলা, ওভেন, প্রেসারকুকার, হটপটসহ ৯০৮টি গৃহস্থালির পণ্য বিক্রি করছেন। সেখানে ৩০০ টাকার পণ্যে এক প্যাকেট নুডলস ফ্রি দেয়া হচ্ছে। বেঙ্গল প্যাভিলিয়নের সেলস প্রমোটর সাকিব আহমেদ বলেন, গ্যাসের চুলা, র‌্যাক, বালতি থেকে শুরু করে তাদের প্রায় ৬০০ গৃহস্থালি পণ্য মেলায় প্রদর্শন করা হচ্ছে। এসব পণ্যে ৫ শতাংশ ছাড় দেয়া হচ্ছে।

গৃহস্থালি ও আসবাবপত্র সামগ্রী ॥ মেলায় গৃহস্থালি পণ্যের বিক্রি সবচেয়ে বেশি। হরতাল-অবরোধের মধ্যে মেলায় আসা অধিকাংশ ক্রেতাই কিছু না কিছু গৃহস্থালি পণ্য কিনছেন। ক্রেতা আকর্ষণে দেয়া হচ্ছে বিশেষ ছাড়। যত টাকার পণ্যই কেনা হোক না কেন তাতে অন্তত ৫ থেকে ৪২ শতাংশ ছাড় পাওয়া দিচ্ছেন ব্যবসায়ীরা। সঙ্গে থাকছে গিফটের ব্যবস্থাও। ছাড় দেয়ার ক্ষেত্রে মেলায় গৃহস্থালি সামগ্রীর বিভিন্ন স্টলের সঙ্গে পাল্লা দিচ্ছে নামীদামী বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের প্যাভিলিয়নও। ওয়ালটন বাজারে এনেছে ৩৪টি বিভিন্ন ধরনের হোম ও কিচেন এ্যাপ্লায়েন্স। মেলায় নতুন ‘এয়ার ফ্লাইয়ার’ প্রযুক্তির কুকার সবচেয়ে বেশি বিক্রি হয়েছে। মেলায় আকর্ষণীয় মূল্য ছাড়ে ব্লেন্ডার, হেয়ার স্ট্রেটনার, রাইস কুকারসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় গৃহস্থালি পণ্য বিক্রি করেছে ওয়ালনট। মিয়াকো কোম্পানির ১৮ হাজার ৫০০ টাকার বৈদ্যুতিক চুলার সঙ্গে ১০টি পণ্য ফ্রি দেয়া হচ্ছে। যার বাজারমূল্য ১৩ হাজার টাকা। ফরেন মার্ট স্টলও একইভাবে নানা ছাড় দিয়ে ক্রেতা আকৃষ্ট করে বিভিন্ন পণ্য বিক্রি করছে।

ইলেকট্রনিক্স ও অটোমোবাইলস পণ্য ॥ মেলায় অন্যসব পণ্যের তুলনায় ইলেকট্রনিক পণ্যের চাহিদা কম নয়। ইলেকট্রনিক্স পণ্যের সঙ্গে এবার অটোমোবাইলস ও হোম এ্যাপ্লায়েন্স পণ্যের বিক্রি বেড়েছে। ছুটির দিনগুলোতে বিভিন্ন নামীদামী ব্রান্ডের মধ্যে ওয়ালটন, রানার, যমুনা, শার্প, সিমেন্স, সিঙ্গার, গোদরেজ, র‌্যাংগস, এলজি, সনির প্যাভিলিয়নে ক্রেতাদের ভিড় ছিল লক্ষণীয়।

প্রসাধনী ও খাদ্যসামগ্রী ॥ মেলায় নারী ও তরুণীদের সবচেয়ে বেশি ভিড় দেখা গেছে নানা ধরনের গহনা ও প্রসাধনীর স্টলে। শনিবার মেলায় ব্রেসলেট, চুড়ি, রিং, দুল, লকেট, পায়েল, পাঞ্জা, টিকলি, টায়রা প্রভৃতি গহনা কিনতে লক্ষণীয় ভিড় দেখা যায়।

প্রকাশিত : ৮ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

০৮/০২/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: