মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১০ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

টাঙ্গাইলে কিষান-কিষানীরা বোরো চাষে ব্যস্ত

প্রকাশিত : ৭ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

নিজস্ব সংবাদদাতা, টাঙ্গাইল, ৬ ফেব্রুয়ারি ॥ টাঙ্গাইলে পুরোদমে শুরু হয়েছে বোরো ধানের চারা রোপণ। বোরো চাষে কৃষকদের সঙ্গে সঙ্গে কিষানীরাও একযোগে কাজ করছেন। জেলার প্রায় সর্বত্র কৃষক-কিষানীরা বোরো চাষে ব্যস্ত সময় পার করছেন। পেছন ফিরে তাকানোর এতটুকু ফুসরত নেই তাদের। কালিহাতী উপজেলার এলেঙ্গায় কৃষকদের সঙ্গে কিষানীদেরও বীজতলা থেকে বোরো ধানের চারা তুলতে দেখা যায়।

টাঙ্গাইল কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতর সূত্রে জানা যায়, গত ২২ ডিসেম্বর থেকে বোরো ধানের চারা রোপণ শুরু হয়েছে। এ পর্যন্ত পুরো জেলায় মাত্র সাত ভাগ চারা রোপণ শেষ হয়েছে। রোপণ কাজ চলবে ফেব্রুয়ারি মাসের শেষ সপ্তাহ নাগাদ। এ বছর টাঙ্গাইলে বোরো আবাদের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে এক লাখ ৭০ হাজার ৮২ হেক্টর জমিতে। এর মধ্যে হাইব্রিড দুই হাজার ৩১৩ হেক্টর, উফশী এক লাখ ৬৭ হাজার ১৬ হেক্টর এবং স্থানীয় ৭৫৩ হেক্টর। পাশাপাশি উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে মোট ছয় লাখ ৫৮ হাজার ৮১১ মেট্রিক টন (চাল)। টাঙ্গাইল সদর উপজেলার ঘারিন্দা ইউনিয়নের পারকুশিয়া চকে কৃষক ইমান আলী জানান, সবকিছুই ঠিকঠাক আছে। আপাতত কোন সমস্যা নাই। তবে শুধু রাতে নয়, দিনের বেলায়ও সেচমেশিন চালাতে দিতে হবে। তাছাড়া সুষ্ঠুভাবে কাজ শেষ করা যাবে না। টাঙ্গাইল কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতর সূত্র জানায়, গত ১৫ জানুয়ারি পর্যন্ত মাঠে চালু হওয়া গভীর নলকূপের সংখ্যা ৪৬৭, অগভীর নলকূপ পাঁচ হাজার ৮৮৯ এবং লো-লিফট পাম্প ৫৮টি। টাঙ্গাইল কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের উপ-পরিচালক আবুল হাশিম বলেন, বোরো আবাদের জন্য আবহাওয়া বেশ অনুকূল। সার-বীজেরও কোন ঘাটতি নেই। সুতরাং গত বছরের ন্যায় এবারও আবাদ এবং উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

প্রকাশিত : ৭ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

০৭/০২/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: