কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৫ ডিসেম্বর ২০১৬, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, সোমবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

খ্যাতিহীন জীবন উপভোগ করছেন সাকিবরা

প্রকাশিত : ৫ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ বাংলাদেশে একসঙ্গে সব ক্রিকেটার কোন মার্কেটে ঘুরতে গেছেন, এমনটি কখনও দেখা গেছে? সাকিব তামিমের মতো দুই একজন তারকা ক্রিকেটাররা কোথাও গেলে, সেখানে দর্শকের ঢল নামবে না এমন হতে পারে? নিঃসন্দেহে পারে না। কিন্তু অস্ট্রেলিয়ায় এমনটি হচ্ছে। সাকিব, তামিম, মুশফিকদের তেমন কেউ চিনেন না অস্ট্রেলিয়ার ব্রিসবেনে। তাই মনের সুখে ঘুরে বেড়াতেও বাধা নেই। নেই ভক্তদের অটোগ্রাফ চাওয়ার মতো পরিস্থিতিও। এমন খ্যাতিহীন জীবন সাকিবরা উপভোগই করছেন। একসঙ্গে সব ক্রিকেটারই যে ঘুরে বেড়াতে পারছেন। অস্ট্রেলিয়ার সংবাদ মাধ্যমগুলো সাকিবদের এ ঘোরা নিয়ে একটি প্রতিবেদনও করেছে। সেখানে বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান বলেছেনও, ‘ব্রিসবেনে ভালই কাটছে। আমাদের কাছে অনেক ভাল লাগছে। বাংলাদেশের দর্শকদের ধৈর্য প্রচুর। আমি তা ভালবাসি। কিন্তু আমরা অস্ট্রেলিয়াতে অনেক ভাল সময় কাটাচ্ছি।’ ব্রিসবেনে গিয়ে তিনদিন প্রস্তুতি নেয়ার পর একদিন বিশ্রাম পেয়ে ক্রিকেটাররা ‘গো-কার্ট’ করতে গিয়েছিলেন। কার রেসিং করেছেন। দল বেঁধে সবাই সেই রেশে অংশ নিয়েছেন। মনের সুখে তিনটি কাটিয়েছেন। তাও আবার একসঙ্গে সব ক্রিকেটার ফুরফুরে মেজাজে দিনটি কাটিয়েছেন। যা বাংলাদেশে কল্পনাই করা যায় না।

অস্ট্রেলিয়া একাদশের বিপক্ষে মাঠে নামার আগে বাংলাদেশ দলের ক্রিকেটাররা শুধু রেশ করতেই যাননি, শপিংমলেও গিয়েছেন। কুইন স্ট্রিট মলে গিয়েছিলেন ক্রিকেটাররা। সেখানে একজনও এমন দেখা যায়নি যে সাকিবদের কাছ থেকে অটোগ্রাফ নিতে এসেছে। আরামেই ঘুরে বেড়িয়েছেন ক্রিকেটাররা। সাধারণত দেশে এমনভাবে কোন ক্রিকেটার ঘুরতে গেলে কী হয়, ভক্তদের অটোগ্রাফের ফাঁদে পড়তে হয়। এখন তো আবার ‘সেলফি’র যুগ চলছে। সেলফি তোলার আবদারও মেটাতে হয়। এরচেয়েও বড় বিষয়, ক্রিকেটাররা মনখুলে কোথাও ঘুরতে পারেন না। বের হতে পারেন না। জীবনটা কাটে খেলার আর বিজ্ঞাপনের গ-িতেই। ব্রিসবেনে গিয়ে ক্রিকেটাররা যেন খ্যাতিহীন হয়ে গেছেন। সেই খ্যাতিহীনতাই বাংলাদেশ ক্রিকেটারদের আনন্দ করতে বাধা দিচ্ছে না। আর তাই ক্রিকেটাররাও এতে মহাখুশিই।

দেশে সাকিব যদি কোথাও ঘুরতে যান, ভক্তরা নিশ্চিতভাবেই তাকে সামনে পেয়ে অটোগ্রাফ-সেলফি তোলার আবদার করতে থাকবে। অনুশীলনে ক্রিকেটাররা নামলে ক্যামেরার অভাব থাকে না। অথচ ব্রিসবেনে যখন ক্রিকেটাররা ঘুরতে বের হচ্ছেন, নেই এমন কোন আলামত। নিজের মতো করে ঘুরতে পারছেন। তবে এ ঘোরার মজা প্রথম প্রস্তুতি ম্যাচে হারায় শেষ হয়ে গেছে বলা চলে। এখন ক্রিকেটারদের আজ দ্বিতীয় প্রস্তুতি ম্যাচে নামতে হবে। যে প্রস্তুতি ম্যাচে না জিতলে ক্রিকেটারদের আত্মবিশ্বাস, মনোবলে নেতিবাচক প্রভাবও পড়তে পারে।

এবার ডিগ্রী হারালেন পিস্টোরিয়াস!

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ প্রথম দুই পা বিহীন এ্যাথলেট হিসেবে ২০১২ সালে লন্ডন অলিম্পিকে অংশগ্রহণ করেই ইতিহাস গড়েছিলেন অস্কার পিস্টোরিয়াস। স্ট্র্যাথক্লাইড বিশ্ববিদ্যালয় সে বছরই তাকে সম্মানসূচক ডক্টরেট ডিগ্রী উপহার দেয়। তবে অনিচ্ছাকৃতভাবে বান্ধবী রিভা স্টিনক্যাম্পকে হত্যার কারণে দোষী সাব্যস্ত হওয়ায় পিস্টোরিয়াসকে দেয়া সেই ডিগ্রী ফিরিয়ে নেয়ার ঘোষণা দিয়েছে স্ট্র্যাথক্লাইড বিশ্ববিদ্যালয়। সোমবার দক্ষিণ আফ্রিকান এই এ্যাথলেটের কাছ থেকে ডিগ্রী ফিরিয়ে নেয়ার ঘোষণা দেয় বিশ্ববিদ্যালয়।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের এক মুখপাত্র বলেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃক অস্কার পিস্টোরিয়াসকে যে সম্মানসূচক ডক্টরেট ডিগ্রী দেয়া হয়েছিল অনিচ্ছাকৃতভাবে হত্যার দায়ে দোষী সাব্যস্ত হওয়ার কারণে আমরা তা ফিরিয়ে নিচ্ছি।’ রিভা স্টিনক্যাম্পের সঙ্গে দক্ষিণ আফ্রিকান এ্যাথলেট অস্কার পিস্টোরিয়াসের দীর্ঘদিনের সম্পর্ক ছিল। কিন্তু ২০১৩ সালে বিশ্ব ভালবাসা দিবসেই তার হাতে খুন হন রিভা স্টিনক্যাম্প। আর তার শাস্তি হিসেবে কারাদ- নাকি অন্য কোন সাজা পাবেন অস্কার পিস্টোরিয়া। এ বিষয়টি নিয়ে শুরু থেকেই ছিল ভক্ত-অনুরাগীদের জানার আগ্রহের কেন্দ্রবিন্দুতে। কিন্তু ‘ভাগ্য’ নিয়ে জল্পনা-কল্পনার শেষে তাকে পাঁচ বছরের কারাদ- দেয় প্রিটোরিয়ার আদালত। গত বছরের ২৪ সেপেটেম্বর এই মামলার শেষ শুনানি ছিল আদালতে। ‘ব্লেড রানার’ খ্যাত পিস্টোরিয়াসের শাস্তি নিয়ে প্রিটোরিয়া-সহ বিশ্বেই ছিল আলোচনার মূল বিষয়। তার বান্ধবী রিভার আইনজীবীরা পিস্টোরিয়াসের দশ বছরের কারাদ-ের দাবি করেছিলেন আদালতে।

দুই বছর আগে ১৪ ফেব্রুয়ারি প্রেমিকা রিভা স্টিনক্যাম্পকে অনিচ্ছাকৃত খুনের অভিযোগে দোষী সাব্যস্ত হয়েছিলেন অস্কার পিস্টোরিয়াস।

প্রকাশিত : ৫ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

০৫/০২/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: