আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৭ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বুধবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

নভোথিয়েটার দুর্নীতি মামলায় অব্যহতি পেলেন শেখ হাসিনা

প্রকাশিত : ৪ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

স্টাফ রিপোর্টার ॥ তদন্তে অভিযোগের সত্যতা না পাওয়ায় নভোথিয়েটার দুর্নীতির ৩ মামলা থেকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাসহ সব আসামিকে অব্যাহতি দিয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। ২০০২ সালে বিএনপি-জামায়াত সরকারের আমলে দায়ের করা এ মামলার সময়ে শেখ হাসিনা ছিলেন বিরোধী দলের নেতা। বহুল আলোচিত-সমালোচিত এ মামলাটির কার্যক্রম ১৩ বছর ধরে দুদকের অনিষ্পন্ন শাখায় পড়েছিল। মামলা দায়েরের প্রায় ১৩ বছর পর তদন্তে প্রমাণিত না হওয়ায় সব আসামিকে অব্যাহতির সুপারিশ করা প্রতিবেদনটি কমিশন অনুমোদন প্রদান করেছে বলে দুদক সূত্র নিশ্চিত করেছে।

দুদক সূত্র জানায়, সম্প্রতি দুদকের উপ-পরিচালক মঞ্জুর মোরশেদ চূড়ান্ত এ প্রতিবেদনটি নিম্ন আদালতের জেনারেল রেকর্ডিং শাখায় দাখিল করেছেন। মঙ্গলবার নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক দুদকের একজন উর্ধতন কর্মকর্তা বলেন, ২০০২ সালে রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত হয়ে দুর্নীতি দমন ব্যুরো মামলাটি দায়ের করেছিল। যেসব অভিযোগ এনে মামলা দায়ের করা হয়েছে, তার এর কোন সত্যতা তদন্তে পাওয়া যায়নি। এজন্য চূড়ান্ত প্রতিবেদনটি কমিশন নিয়ম অনুযায়ী আদালতে পাঠিয়েছে।

সূত্র আরও জানায়, ২০০২ সালের ২৭ মার্চ বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারের আমলে সে সময়কার বিরোধী দলের নেতা শেখ হাসিনাসহ সংশ্লিষ্ট একনেক সদস্যদের বিরুদ্ধে তেজগাঁও থানায় ৩টি মামলা করে বিলুপ্ত দুর্নীতি দমন ব্যুরো। ব্যুরোর পরিদর্শক মোহাম্মদ ইব্রাহিম বাদী হয়ে একটি এবং এন্টিকরাপশন অফিসার (এসিও) খান মোঃ মিজানুল ইসলাম বাদী হয়ে দু’টি মামলা করেন। ৩টি মামলায়ই তখনকার বিরোধী দলের নেতা ও বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে প্রধান এবং অভিন্ন আসামি করা হয়। মামলাগুলোতে যথাক্রমে ৭ জন, ৮ জন এবং ১২ জনকে আসামি করা হয়। আসামিদের মধ্যে সাবেক অর্থমন্ত্রী শাহ এএমএস কিবরিয়া এবং শিক্ষামন্ত্রী এএইচএসকে সাদেক মারা গেছেন। অন্যদের মধ্যে তোফায়েল আহমেদ, মতিয়া চৌধুরী, ড. মহীউদ্দীন খান আলমগীর অভিযোগের দায় হতে উচ্চ আদালত থেকে অব্যাহতি পেয়েছেন বলে সূত্র জানায়।

প্রকাশিত : ৪ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

০৪/০২/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

শেষের পাতা



ব্রেকিং নিউজ: