মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১০ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

নেইমারের সঙ্গে চুক্তিতে ঘাপলা, অভিযুক্ত বার্সা!

প্রকাশিত : ৪ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ দুই বছর আগে ব্রাজিলিয়ান সুপার স্টার নেইমারকে দলে ভেড়ায় স্প্যানিশ জায়ান্ট ক্লাব বার্সিলোনা। ব্রাজিলিয়ান ক্লাব সান্তোস থেকে নেইমারকে নিয়ে আসতে ৮৭.২ মিলিয়ন ইউরো খরচা করেছে বার্সা সে সময় এমনটাই জানা গিয়েছিল। তবে মাদ্রিদের কর কর্মকর্তাকে সে সময়কার বার্সা প্রেসিডেন্ট সান্দ্রো রোসেল জানিয়েছিলেন ৫৭ মিলিয়ন ইউরোর কথা। এরপর থেকেই বিষয়টি নিয়ে মাদ্রিদের কর কর্তৃপক্ষ বিষয়টি নিয়ে তদন্ত পরিচালনা করছে। এবার তারা নেইমারকে চুক্তিবদ্ধ করার ক্ষেত্রে কর ফাঁকির জন্য প্রতারণা করা হয়েছে এমন অভিযোগ দায়ের করেছে আদালতে। কর প্রতারণার অভিযোগে এখন বার্সা এবং রোসেলকে আদালতে বিচারের জন্য দাঁড়াতে হবে। এছাড়াও সরকারী আইনজীবীরা বর্তমান বার্সা সভাপতি জোসেপ মারিয়া বার্তোমিউয়ের বিরুদ্ধেও তদন্ত পরিচালনার জন্য আবেদন করেছে। নেইমারকে যত ট্রান্সফার ফি-তে নেয়া হয়েছে সেটার সঠিক কোন তথ্য দেয়নি বার্সিলোনা কর্তৃপক্ষ। সংবাদ মাধ্যমে এসেছে এক রকম আর বার্সা থেকে জানানো হয়েছে অন্য রকম। এ কারণে করের পরিমাণও কমেছে। সে জন্য বার্সার বিরুদ্ধে তদন্ত পরিচালনা করেছে মাদ্রিদের কর কর্তৃপক্ষ। এখন তাদের দাবি আরও অন্তত ২.৮৫ মিলিয়ন ইউরো বাড়তি কর হিসেবে প্রাপ্য রয়েছে বার্সার কাছে। সরকারী আইনজীবী জোসে পেরালস ক্যালেজা এক আইনী নোটিসে দাবি করেছেন রোসেল এবং বার্সা নেইমারের ফি’র বিষয়ে অসংলগ্ন তথ্য প্রদান করেছে। স্প্যানিশ কর কর্মকর্তার কাছে উভয়পক্ষ জানিয়েছে ৫৭ মিলিয়ন ইউরোতে চুক্তির কথা। তবে তদন্তে বেরিয়ে এসেছে সবমিলিয়ে মোট ৮২,৭৪৩,৪৮৫ ইউরো দুটি ভিন্ন চুক্তিতে আদান-প্রদানের ঘটনা ছিল। সেদিক থেকে বার্সার এখনও কর ১২,১৪৮,৬৯৬ মিলিয়ন ইউরো বাকি আছে। সবমিলিয়ে পুরো চুক্তির অর্থের পরিমাণ দাঁড়ায় ৯৪.৮ মিলিয়ন! চুক্তিটি হওয়ার ঠিক এক বছর পরই বার্সার প্রেসিডেন্ট পদ থেকে সরে দাঁড়ান রোসেল। সে সময়ই ক্লাবটির এক কর্মকর্তা নেইমারের চুক্তি নিয়ে অসামঞ্জস্য রয়েছে এমন অভিযোগে করেন আদালতে। কিন্তু তখনও রোসেল দাবি করেন নেইমারকে নিতে বার্সার ৫৭ মিলিয়ন ইউরো খরচা হয়েছে। এর মধ্যে ১৭ মিলিয়ন পেয়েছে তার পুরনো ক্লাব সান্তোস এবং ৪০ মিলিয়ন পেয়েছে নেইমারের বাবার প্রতিষ্ঠান এন এ্যান্ড এন। পরে বার্সা জানায় বিভিন্ন ভাতা হিসেবে আরও ১০ মিলিয়ন ইউরো এবং অন্যান্য নেইমার সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানের চুক্তির জন্য সবমিলিয়ে পুরো চুক্তিতে অর্থ ব্যয় হয়েছে ৮৬.২ মিলিয়ন ইউরো। আর এসব বিষয়গুলো নিয়ে খটকার পরই এখন আদালতের দ্বারস্থ হয়েছে মাদ্রিদের কর কর্তৃপক্ষ। রোসেল আর বার্সাকে এখন আদালতে যেতে হবে বিচার প্রক্রিয়ার জন্য। আর আইনজীবীদের দাবি অনুসারে বর্তমান প্রেসিডেন্ট জোসেপ মারিয়ার বিরুদ্ধেও চলবে তদন্ত।

প্রকাশিত : ৪ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

০৪/০২/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: