কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৪ ডিসেম্বর ২০১৬, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

নেপিয়ারে সমতা চায় পাকিরা

প্রকাশিত : ৩ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ বিশ্বকাপের আগে দু’দলের শেষ আন্তর্জাতিক সিরিজ। দুই ওয়ানডের ছোট সিরিজ হলেও নিউজিল্যান্ড-পাকিস্তান লড়াই ঘিরে আগ্রহের কমতি নেই। কিন্তু প্রথম ম্যাচে নাস্তানাবুদ হয় পাকিরা। ওয়েলিংটনের দুর্বার কিউইদের কাছে ৭ উইকেটের বড় ব্যবধানে হারে অতিথিরা। নেপিয়ারে আজ জয় চান মিসবাহ উল হক। বিশ্বকাপের মিশনে ঝাঁপিয়ে পড়ার আগে নিজেদের শেষ আন্তর্জাতিক ম্যাচে সাফল্যের পাশাপাশি সমতায় সিরিজ শেষ করতে মরিয়া পাকিস্তান অধিনায়ক। ‘বিশ্বকাপের আগে নিজেদের শেষ আন্তর্জাতিক ম্যাচে জয় চাই। এজন্য সবাইকে সেরাটা দিতে হবে। বিশেষ করে টপ-অর্ডার ব্যাটসম্যানদের আরও দায়িত্ব নিয়ে খেলতে হবে। জয় দিয়ে সিরিজ ড্র করতে আশাবাদী আমি।’ বলেন মিসবাহ।

এক বাক্যেই চাওয়াটা পরিষ্কার করে দিয়েছেন পাক অধিনায়ক। প্রথম ম্যাচে হারের কারণ ব্যাটিং ব্যর্থতা। ওয়েলিংটনে ৪৫.৩ ওভারে ২১০ রানে গুটিয়ে যায় মিসবাহ-উল হকের দল। অস্ট্রেলিয়া-নিউজিল্যান্ডের কন্ডিশনে উপমহাদেশীয় ব্যাটসম্যানদের করুণ চিত্রটা ফুটে ওঠে। মিসবাহ-আফ্রিদি ছাড়া কেউই স্বাগতিক বোলারদের স্বচ্ছন্দে মোকাবেলা করতে পারেননি। ফর্মে থাকা অধিনায়ক ৮৭ বলে ৪ চার ও ২ ছক্কায় ৫৮ রান করে ইলিয়টের বলে টম লাথামের হাতে ক্যাচ দিয়ে সাজঘরে ফেরেন। এর পরও পাকিস্তানের স্কোর দু’শ’ পেরোয় আফ্রিদির সৌজন্যে। ৮ নম্বরে নেমে মাত্র ২৯ বলে ৯ চার ও ৩ ছক্কায় ৬৭ রান করে কোরি এ্যান্ডারসনের শিকারে পরিণত হন তুখোড় অলরাউন্ডার। বিশ্বকাপেই দ্রুততম ওয়ানডে সেঞ্চুরির রেকর্ড পুনরুদ্ধারের ঘোষণা দেয়া ‘বুম বুম’ ব্যাট হাতে ঝড় তুলে সেই ইঙ্গিতই দিয়ে চলেছেন!

তবে অধিনায়কের চাওয়া পূরণ করতে প্রতিটি বিভাগেই জ্বলে উঠতে হবে। কারণ ব্যাটে-বলে দারুণ ছন্দে স্বাগতিক কিউইরা। বিশ্বকাপ সামনে রেখে অবিশ্বাস্য ক্রিকেট খেলছে সহ-আয়োজক নিউজিল্যান্ড। ব্যাট হাতে ফর্মের তুঙ্গে গ্র্যান্ট ইলিয়ট, লুক রনকি, রস টেইলর, ব্যর্থ সময় কাটিয়ে ওঠার ইঙ্গিত দিয়েছেন মার্টিন গাপটিল। আগের ম্যাচে ৩৯ রান করেছেন তিনি। অরাউন্ড নৈপুণ্যে যথারীতি ছন্দে কোরি এ্যান্ডারসন। ম্যাচে বিশেষ দৃষ্টি থাকবে কেন উইলিয়ামসনের দিকে। স্বাগতিকদের বিশ্বকাপের অন্যতম ভরসা এই ব্যাটসম্যান ফিটনেস সমস্যার জন্য আগের ম্যাচে খেলতে পারেননি। সিরিজ খোয়ানোর ভয় নেই ২৩ রান করা টম লাথাম হয়ত আজ আরও একটি সুযোগ পাবেন। ২০১৪ সালে ম্যাককুলামের টেস্ট গড় ৬৬ আর ওয়ানডেতে ২৭, সুতরাং বিশ্বকাপের আগে নিজেকে ফিরে পেতে আজ মরিয়া হয়ে থাকবেন স্বাগতিক অধিনায়কও। ব্যক্তিগত বিচারে গেলে অবশ্য প্রতিপক্ষ সেনাপতি মিসবাহ ব্যাট হাতে রয়েছেন দুর্দান্ত ফর্মে। প্রস্তুতিসহ শেষ চার ইনিংসে রানÑ ৪৭, ১০৭, ৮৮*, ৫৮!

প্রকাশিত : ৩ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

০৩/০২/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: