মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১১ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

বিশ্বকাপের জন্য প্রস্তুত জনসন

প্রকাশিত : ৩ ফেব্রুয়ারী ২০১৫
বিশ্বকাপের জন্য প্রস্তুত জনসন

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ অস্ট্রেলিয়ার অন্যতম বোলিং স্তম্ভ মিচেল জনসন। তবে সদ্যসমাপ্ত কার্লটন মিড ত্রিদেশীয় ওয়ানডে সিরিজে সব ম্যাচ না খেলিয়ে বিশ্রাম দেয়া হয়েছিল তাঁকে। নতুন বলে আক্রমণের ক্ষেত্রে তাঁর অনুপস্থিতিটা বুঝতে পারেনি অসিরা। কারণ রীতিমতো ঝড় তুলেছেন আরেক পেসার মিচেল স্টার্ক। আসন্ন বিশ্বকাপে তবে অস্ট্রেলিয়ার বোলিং বিভাগে এক নম্বর বোলারের দায়িত্ব নেবেন কোন্ মিচেল? অভিজ্ঞ জনসনের অবশ্য এটা নিয়ে তেমন মাথাব্যথা নেই। দলের প্রয়োজনে যে কোন সময় তিনি বল হাতে প্রতিপক্ষ শিবিরে হামলে পড়তে রাজি আছেন। যদিও দলের পক্ষে বোলিং উদ্বোধন করতে পারাটাইকেই অনেক পছন্দ করেন, তবু যোগ্য কাউকে ছাড় দিতে কোন কার্পণ্য করতে চাননা বলে জানিয়েছেন এ পেসার।

সিডনি টেস্ট এবং ত্রিদেশীয় সিরিজের অধিকাংশ ম্যাচে না খেলে দীর্ঘ বিশ্রাম নিয়েছেন জনসন। ভারতের বিরুদ্ধে টেস্ট সিরিজে তিনি ছিলেন ভীতিকর আতঙ্কের নাম। তবে ত্রিদেশীয় সিরিজে তাঁর অনুপস্থিতিতে স্টার্কের সঙ্গে তরুণ জোশ হ্যাজেলউড দারুণ কার্যকর ভূমিকা রেখেছিলেন। যেদিন ফিরেছেন তখন তৃতীয় বোলার হিসেবেই জনসনকে ব্যবহার করেছে অসিরা। ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে ১৪ ফেব্রুয়ারি মেলবোর্নে বিশ্বকাপের উদ্বোধনী ম্যাচেও জনসনকে হয়ত তৃতীয় বোলার হিসেবেই দায়িত্ব নিতে দেখা যাবে। আর সে কারণেই তাঁকে পরীক্ষা করা হয়েছে এভাবে। কারণ ছোট ছোট স্পেলে এ অভিজ্ঞ পেসারকে ম্যাচের বিভিন্ন সময়ে কাজে লাগানোর পরিকল্পনা অস্ট্রেলিয়ার। এ বিষয়ে জনসন বলেন, ‘আমাদের দু’জন বাঁহাতি পেসার আছে। এখন চিন্তা করতে হবে দলের জন্য কোনটা বেশি উপকারী হবে। আমাকে যদি প্রথম পরিবর্তিত বোলার (ইনিংসের দুই নম্বর) হিসেবে ব্যবহার করা হয় সেক্ষেত্রে খুশিই হব। আমি সবসময়ই বলে এসেছি দলের পক্ষে বোলিং উদ্বোধন করতে অনেক ভালবাসি। তবে প্রতি ম্যাচের অবস্থা অনুসারে দলীয় আলোচনায় এটা নির্ধারণ করা হবে। আমি এ বিষয়ে কোচ ড্যারেন লেহম্যান, জর্জ বেইলি (ক্লার্কের অনুপস্থিতিতে অধিনায়ক) ও বোলিং বিভাগের সঙ্গে আলোচনা করেছি। আমি নিজে আত্মবিশ্বাসী যে বোলিংয়ের উদ্বোধন থেকে শুরু করে দ্বিতীয়, তৃতীয় অবস্থানে, পাওয়ারপ্লে কিংবা সøগ ওভারগুলোয় আমি বোলিং করতে পারব ভালভাবেই। সে কারণে সত্যি বলতে কি আমি ম্যাচের যে কোন সময় বোলিং করতে পারলেই সমান খুশি থাকব।’

অস্ট্রেলিয়ার সহকারী কোচ সাবেক পেসার ক্রেইগ ম্যাকডারমট মনে করেন জনসন এবং স্টার্কের সমন্বয়েই দলের বোলিং আক্রমণের উদ্বোধনটা করা ভাল হবে। এক্ষেত্রে তিনি উদ্বোধনী বোলার হিসেবে স্টার্ক এবং তারপর জনসনকে ব্যবহার করাটা কার্যকর হবে বলে বিশ্বাস করেন। কিছুদিন বিশ্রামের পর জনসনের মধ্যেই কিছুটা অস্বস্তি রয়েছে। তিনি নিজেও স্বীকার করলেন সেটা, আমি কিছুটা জড়তার মধ্যে আছি।

অবস্থান শক্ত হচ্ছে ফিগোর

ফিফা নির্বাচন

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ আসন্ন বিশ্ব ফুটবল নিয়ন্ত্রক সংস্থার (ফিফা) সভাপতি নির্বাচনে সেপ ব্লাটারের প্রতিদ্বন্দ্বী হওয়া ঘোষণা আগেই দিয়েছেন। এবার পর্তুগালের সাবেক ফরোয়ার্ড লুইস ফিগো জানালেন অন্তত ৬ দেশের ফুটবল এ্যাসোসিয়েশন তার পক্ষে ফিফায় চিঠি প্রদান করতে যাচ্ছে। ফিফা প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের জন্য উপযুক্ত হতে অন্তত পাঁচটি এ্যাসোসিয়েশনের সমর্থন প্রয়োজন। না হলে নির্বাচন করা বৈধতা পায় না কেউ। এখন আগামী ১০ দিনের মধ্যেই নিশ্চিত হবে আগামী নির্বাচনে ব্লাটারের প্রতিপক্ষ হিসেবে দাঁড়াতে পারছেন কিনা ফিগো। তবে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম টুইটারে ফিগোর এমন দাবির পর সেটাও প্রায় নিশ্চিত হয়ে গেছে। আগামী ২৯ মে ফিফা প্রেসিডেন্ট নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। ইতোমধ্যেই ফিফার আগামী প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ব্লাটারের প্রতিপক্ষ হিসেবে দাঁড়িয়েছেন এশিয়ান ফুটবল কনফেডারেশনের সহসভাপতি প্রিন্স আলী বিন আল হুসেইন, ডাচ্ ফুটবল প্রধান মাইকেল ভ্যান প্রাগ, ফিফার সাবেক নির্বাহী কর্মকর্তা জেরেমি শ্যাম্পেন এবং সাবেক ফরাসী উইঙ্গার ডেভিড গিনোলা। ফিগোও ওই কাতারের একজন হতে চলেছেন।

প্রকাশিত : ৩ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

০৩/০২/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: