কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৫ ডিসেম্বর ২০১৬, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, সোমবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

পথচারীদের জন্য পরামর্শ

প্রকাশিত : ২ ফেব্রুয়ারী ২০১৫
পথচারীদের জন্য পরামর্শ

তীব্র যানজট ও অপ্রতুল যানবাহনের কারণে ঢাকা শহরে হেঁটে যাতায়াত করেন ৩৭ ভাগ মানুষ। হাঁটার নিরাপদ ও স্বাচ্ছন্দময় পরিবেশ না থাকায় দুর্ঘটনায় হতাহতের মধ্যে পথচারীদের সংখ্যাই বেশি। মহানগর ট্রাফিক বিভাগের হিসেবে ২০১০ থেকে ২০১৪ পর্যন্ত পাঁচ বছরে রাস্তায় চলাচল করতে গিয়ে মৃত্যুবরণ করেছেন প্রায় ৯৫০ জন। এবং শুধু ২০১৪ সালে ঢাকা মহানগরে রাস্তা পারাপারের দুর্ঘটনা ঘটেছে প্রায় ১ হাজার ১০২টি। যার মধ্যে মৃত্যুবরণ করেছে ১৩৪ জন। বেশকিছুদিন পূর্বে রাজধানীতে ফুটপাত ও ওভারব্রিজ ব্যবহারের জন্য ট্রাফিক পুলিশের জনসচেতনতামূলক প্রচারণা পদক্ষেপ গ্রহণ করে। আর পরবর্তীতে ফুট ওভারব্রিজ ব্যবহার না করে রাস্তা পারাপারের জন্য বিভিন্ন স্থানে ডিএমপির ভ্রাম্যমাণ আদালত আইনভঙ্গকারী পথচারীদের জেল ও জরিমানা করে। তবে জেল ও জরিমানা এটা কোন স্থায়ী সমাধান নয় বলে মনে করে অনেকেই । এক্ষেত্রে পথচারীদের উপলব্ধি করতে হবে ফুটপাত ও ফুট ওভারব্রিজ ব্যবহারের সুবিধাগুলো। সরকারের যোগাযোগের প্রতিটি উন্নয়ন কার্যক্রম জনসাধারণের সুবিধার জন্য। তারই ধারাবাহিকতায় ফুটপাত ও ফুট ওভারব্রিজ নির্মাণ করেছে সরকার। যদিও আমাদের দেশে পর্যাপ্ত ফুটপাত ও ফুট ওভারব্রিজ নেই। আর যেগুলো আছে তাও পথচারীরা ব্যবহার না করায় সুবিধাভোগী হকারেরা বেদখল করে রেখেছে। অবশ্য পথচারীদের নিরাপত্তা প্রদানের জন্য সরকার ফুটপাত ও ফুট ওভারব্রিজের সকল অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করেছে। যার ফলে এসকল মাধ্যম ব্যবহার করে সহজে ও স্বাচ্ছন্দে পথচারীরা চলাচল করতে পারছে। আর এ ফুটপাত ও ফুট ওভারব্রিজ ব্যবহারে পথচারীরা যেমন সুফল পাবে তেমনিভাবে থাকবে তাদের জীবন ও অর্থের নিরাপত্তা।

ফুটপাত : পথচারীরা রাস্তায় না হেঁটে ফুটপাত ব্যবহার করলে ছিনতাইকারী ও দুর্ঘটনার হাত থেকে রক্ষা পাবে। ফুটপাত ছেড়ে রাস্তায় চলাচল করলে যেকোন সময় ছিনতাইকারীর কবলে পরে নিজের সবকিছু খোয়াতে হতে পারে। কারণ ফুটপাত ছেড়ে রাস্তায় খুব কম মানুষই হেঁটে চলে, এ জন্য ছিনতাইকারীদের ছিনতাই করা খুব সহজ হয়। কিন্তু ফুটপাতে সবসময় অসংখ্য পথচারীরা চলাচল করে। ফলে এত মানুষের ভিড়ে ছিনতাইকারীরা তাদের কাজ করতে পারে না। এজন্য সকলেই নিরাপদে অর্থ ও মূল্যবান সম্পদ নিয়ে চলাচল করতে পারে। এর পাশাপাশি ফুটপাত দিয়ে হাটলে জীবনের তেমন কোন ঝুঁকি থাকে না। কারণ যানবাহন রাস্তা ছেড়ে ফুটপাতের ওপর দিয়ে চলাচল করে না। সুতরাং জীবন ও সম্পদের ঝুঁকি না নিয়ে ফুটপাত দিয়ে চলাচল করাই উত্তম।

ফুট ওভারব্রিজ : দেশে অধিকাংশ পথচারীরা দুর্ঘটনার শিকার হন রাস্তা পারাপার হতে গিয়ে। কিছু সময় বাঁচাতে গিয়ে যানবাহন চলাচল অবস্থায় রাস্তা পারাপার হওয়ার সময় অনেক দুর্ঘটনা ঘটে। কিন্তু একটু সময় অপচয় করে জেব্রাক্রসিং বা ফুট ওভারব্রিজ ব্যবহার করলে এ সকল দুর্ঘটনার হাত থেকে রেহাই পাওয়া যায়। এতে মূল্যবান জীবনটি রক্ষা পায়। রাজধানীসহ দেশে অনেক স্থানেই ফুট ওভারব্রিজ নেই কিন্তু জেব্রাক্রসিং রয়েছে যা অনায়াসে ব্যবহার করা সম্ভব। তবে ক্ষেত্র বিশেষে এ দু’টোর একটিও না থাকলে ট্রাফিক পুলিশের সহায়তা নিয়ে রাস্তা পারাপার করা উচিত। এতে অনেকে একসঙ্গে পারাপার হওয়ার কারণে কোন দুর্ঘটনা ও ছিনতাইকারীর হাত হতে রক্ষা পাওয়া যায়।

আমাদের দেশে জনসংখ্যার তুলনায় রাস্তা ও যানবাহনের সংখ্যা অনেক কম। তাই রাজধানীসহ অধিকাংশ শহরগুলোয় তীব্র যানজট পরিলক্ষিত হয়। আর এ কারণে অসহনীয় যানজট হতে মুক্তি পেতে অনেকেই রাস্তায় হেঁটে চলাচল করে। হেঁটে চলাচল করার কারণে নিরাপত্তা নিশ্চিতের জন্য পথচারীদের অবশ্যই ফুটপাত ও ফুট ওভারব্রিজ ব্যবহার করা উচিত।

এইচএসএম তারিফ

প্রকাশিত : ২ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

০২/০২/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: