মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
৯ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শুক্রবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

রোনাল্ডোহীন রিয়ালের নায়ক বেনজেমা

প্রকাশিত : ২ ফেব্রুয়ারী ২০১৫
  • স্প্যানিশ লা লিগা, মানদুকিচের জোড়া গোলে এ্যাটলেটিকোর জয় রিয়াল মাদ্রিদ ৪-১ রিয়াল সোসিয়েদাদ, এইবার ১-৩ এ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ মধুর প্রতিশোধ নিল রিয়াল মাদ্রিদ। শনিবার রাতে স্প্যানিশ লা লিগার ম্যাচে গ্যালাক্টিকোরা ৪-১ গোলে উড়িয়ে দেয় রিয়াল সোসিয়েদাদকে। চলমান ২০১৪-১৫ মৌসুমের প্রথম পর্বের ম্যাচে সোসিয়েদাদের মাঠে ৪-২ গোলে হেরেছিল রিয়াল। গত বছরের আগস্টে অপ্রত্যাশিত ওই হারের বদলা এবার ভালমতোই নিয়েছে কার্লো আনচেলত্তির দল।

নিষেধাজ্ঞার কারণে দলের প্রধান তারকা ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো না থাকলেও জয় পেতে সমস্যা হয়নি ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নদের। সান্টিয়াগো বার্নাব্যুতে গোটা ম্যাচে চোখ ধাঁধানো পারফর্মেন্স প্রদর্শন করে নায়ক বনে যান ফরাসী তারকা করিম বেনজেমা। জোড়া গোল ছাড়াও বাকি গোলগুলোতে অবদান রাখেন তুখোড় এই স্ট্রাইকার। রিয়ালের অপর গোল দুটি করেন ব্রাজিল বিশ্বকাপের গোল্ডেন বুটজয়ী কলম্বিয়ান তারকা জেমস রড্রিগুয়েজ ও স্প্যানিশ ডিফেন্ডার সার্জিও রামোস।

সহজ জয় পেয়েছে এ্যাটলেটিকো মাদ্রিদও। আসরের বর্তমান চ্যম্পিয়নরা এ্যাওয়ে ম্যাচে ৩-১ গোলে হারায় স্বাগতিক এইবারকে। বৃষ্টিমাখা কর্দমাক্ত ম্যাচে এ্যাটলেটিকোর জয়ের নায়ক ক্রোয়েশিয়ান স্ট্রাইকার মারিও মানদুকিচ। তিনি করেন জোড়া গোল। অপর গোলটি করেন ফরাসী ফুটবলার এ্যান্টোনিও গ্রিজম্যান।

দাপুটে জয়ে পয়েন্ট তালিকার শীর্ষস্থান অক্ষুণœ রেখেছে রিয়াল। ২০ ম্যাচে ২১ পয়েন্ট ভা-ারে তাদের। রবিবার রাতের ম্যাচের আগে ৪৭ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে বার্সিলোনা। সমান পয়েন্ট নিয়ে গোল পার্থক্যে পিছিয়ে থেকে তৃতীয় স্থানে অ্যাটলেটিকো। ২২ পয়েন্ট নিয়ে ১২তম স্থানে রিয়াল সোসিয়েদাদ।

সান্টিয়াগো বার্নাব্যুতে কিক অফ থেকেই জমে উঠেছিল দুই রিয়ালের ম্যাচ। প্রথম মিনিটেই মাদ্রিদের জালে বল জড়ান অতিথি সোসিয়েদাদের ইলুসটোন্ডো। রুবেন পেড্রোর কর্নার থেকে দারুণ হেডে গোল করেন তিনি। এই গোলের পর প্রথম পর্বের মতো আরেকবার হারের শঙ্কায় পড়েছিল রিয়াল! কিন্তু দুই মিনিট পরই দলকে সমতায় ফিরিয়ে সব শঙ্কা দূর করেন রড্রিগুয়েজ। ব্রাজিলিয়ান ডিফেন্ডার মার্সেলোর মাপ ক্রস থেকে গোল করেন কলম্বিয়ান প্লেমেকার। এরপর একতরফা আধিপত্য বিস্তার করে খেলতে থাকে গ্যালাক্টিকোরা। ২০ মিনিটে বেনজেমার প্রচেষ্টা ব্যর্থ করে দেন সোসিয়েদাদ গোলরক্ষক। ৩৭ মিনিটে ফরাসী স্ট্রাইকারকে আরেকবার হতাশ করেন তিনি। তবে বেনজেমার শট ফিরিয়ে দিলেও ফিরতি বলে দারুণ শটে গোল করে রিয়ালকে এগিয়ে নেন রামোস।

বিরতির পর ৫২ মিনিটে অবশেষে গোল পান দারুণ খেলা বেনজেমা। এ সময় বেলকে বল দিয়ে গোল মুখের দিকে দ্রুতগতিতে যান তিনি। গোলরক্ষককে এগিয়ে আসতে দেখে বেল বল ফিরিয়ে দেন বেনজেমাকে। বুদ্ধিমত্তার সঙ্গে বল জালে জড়ান ফরাসী স্ট্রাইকার। রিয়াল এগিয়ে যায় ৩-১ গোলে। ৭৬ মিনিটে নিজের দুই নম্বর ও দলের হয়ে চতুর্থ গোল করেন বেনজেমা। লা লিগার চলতি মৌসুমের প্রথম পর্বে রিয়াল মাদ্রিদ, বার্সিলোনা ও এ্যাটলেটিকো মাদ্রিকে হারিয়ে সাড়া ফেলেছিল সোসিয়েদাদ। কিন্তু সাফল্যের এই ধারা ধরে রাখতে পারেনি তারা।

ম্যাচ শেষে রিয়াল কোচ কার্লো আনচেলত্তি বেনজেমার ভূয়সী প্রশংসা করেন। তিনি বলেন, অসাধারণ একটা ম্যাচ খেলেছে বেনজেমা। তার মান দারুণ এবং সে খুব কার্যকরও। গোলমুখে সে অনেক আক্রমণ করেছে। ইতালিয়ান এই কোচ শুধু গোল করার জন্যেই নয়, খেলার ধরনের জন্যেও বেনজেমার প্রশংসা করেন। বলেন, তার দ্বিতীয় গোলটি ছিল মানসম্পন্ন। দারুণ শট ছিল। কিন্তু তার খেলার ধরনের জন্যে এবং যেভাবে সে দলকে সাহায্য করে, তার জন্যেও তাকে আমাদের মূল্য দেয়া উচিত। সে পেনাল্টি বক্সের স্ট্রাইকার নয়, সে বাকি মাঠেও খেলে।

এইবারের বিরুদ্ধে খেলার সপ্তম মিনিটে এগিয়ে যায় অতিথি এ্যাটলেটিকো। দারুণভাবে বল নিয়ন্ত্রণে নিয়ে বাঁ দিক থেকে গ্রিজম্যানকে বল দেন রাউল গার্সিয়া। সহজেই গোলরক্ষকে পরাস্ত করেন ফরাসী তারকা। এরপর দুই মিনিটের মধ্যে জোড়া গোল করে জয় একরকম নিশ্চিত করে ফেলেন মারিও মানদুকিচ। ২৩ মিনিটে ডি বক্সের ভেতর থেকে গ্রিজম্যানের ক্রসে পা ছুঁইয়ে বল জালে পাঠান ক্রোশেয়ান তারকা। ২৫ মিনিটে ডিফেন্ডারদের ভুলে নিজের দ্বিতীয় আর দলের তিন নম্বর গোল করেন মানদুকিচ। ম্যাচ শেষের এক মিনিট আগে স্বাগতিক এইবারের হয়ে একমাত্র গোলটি করেন ফেডেরিকো পিওভাসসারি। হেডে গোলটি করেন ইতালিয়ান স্ট্রাইকার। ফলে ৩-১ গোলের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে এ্যাটলেটিকো।

প্রকাশিত : ২ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

০২/০২/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: